SCORE

সর্বশেষ

মুমিনুলের অর্ধশতকে প্রথম জয় পেলো রাজশাহী

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টির ৫ম আসরের সিলেট পর্ব শেষে ঢাকা পর্বে টুর্নামেন্টে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে রাজশাহী কিংস। ব্যাট হাতে মুমিনুল হক এবং লিন্ডল সিমন্সের দুর্দান্ত ব্যাটিং বিশাল জয় পেয়েছে কিংস।

মুমিনুল- সিমন্সের ব্যাটিং নৈপুণ্যে প্রথম জয় রাজশাহীর

এর আগে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। এইদিনে রাজশাহীর নিয়মিত অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির অনুপস্থিতিতে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন দলটির আইকন ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। তার অধিনায়কত্বে টানা দুই ম্যাচ হারার পর জয়ের দেখা পেয়েছে রাজশাহী।

Also Read - ত্রিদেশীয় সিরিজের ম্যাচও হবে সিলেটে

টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় রংপুর। রাজশাহীর হয়ে প্রথম ওভারেই দলকে উইকেট এনে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। অ্যাডাম লিথ, মোহাম্মদ মিঠুন প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করলেও সেটি থামে দলীয় ৩২ রানে। লিথের বিদায়ের পর মিঠুনকে ১৮ রানে নিজের দ্বিতীয় উইকেট নেন ফরহাদ রেজা।

৩৩ রানে যখন দল ৩ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে তখন দলকে খাদের কিনারা থেকে তুলে আনেন রবি বোপারা ও শাহরিয়ার নাফীস। তবে সিলেটে উইকেট দ্রুত হলেও মিরপুরে খেলা হয় স্লো উইকেট। বোপারা-নাফীসের ৪৮ রানের জুটি ভাঙেন উইলিয়ামস। ৩১ বলে ২৩ রান করা নাফীসকে ফেরান উইলিয়ামস।

শেষদিকে বোপারার অপরাজিত ৫১ বলে ৫৪ এবং জিয়াউর রহমানের ১১ রানের উপর ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান সংগ্রহ করে রংপুর রাইডার্স। রাজশাহীর হয়ে দুইটি উইকেট লাভ করেন ফরহাদ রেজা এবং একটি করে উইকেট পান ফ্র্যাঙ্কলিন, উইলিয়ামস ও মিরাজ।

স্লো উইকেটে এই টার্গেট তাড়া করতে নেমে  শুরুতেই ধীর গতিতেই ইনিংস শুরু করেন রাজশাহীর দুই ওপেনার সিমন্স ও মুমিনুল। তবে ধীরে ধীরে স্ট্রাইক রোটেট করেন দুই ওপেনার। শুরুতেই ফিরে যেতে পারতেন মুমিনুল কিন্তু মাশরাফির করা বলে মুমিনুলের সহজ ক্যাচ হাতছাড়া করেন নাজমুল ইসলাম অপু।

ক্যাচ মিসের খেসারত দিতে হয় রাইডার্সদের। সুযোগ পেয়ে পঞ্চম আসরের প্রথম অর্ধশতকের দেখা পান মুমিনুল। তার পাশাপাশি ব্যাট হাতে দলের জয়ে বড় ভূমিকা পালন করেন লিন্ডল সিমন্স। শেষদিকে দল ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয়ের সম্ভবনা থাকলেও রান আউটের শিকার হন ৫৩ রান করা সিমন্স।

সিমন্সের বিদায়ের পর ৪ রান করেই বিদায় নেন ওয়ালার। শেষ পর্যন্ত মুমিনুলের অপরাজিত ৪৪ বলে ৬৩ এবং রনির ১০ রানের সুবাদে ৮ উইকেটের বড় জয় পায় রাজশাহী কিংস। রংপুরের হয়ে একটি উইকেট লাভ করেন থিসারা পেরেরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

রংপুর রাইডার্স ১৩৪-৫ (ওভার ২০)

বোপারা ৫৪*, নাফীস ২৩ঃ ফরহাদ ২-২৮

রাজশাহী কিংস ১৩৮-২ (ওভার ১৬.৪)

মুমিনুল ৬৩*, সিমন্স ৫৩ঃ পেরেরা ১-১২

ফলাফলঃ ৮ উইকেটে জয়ী রাজশাহী কিংস।

আরো পড়ুনঃ ত্রিদেশীয় সিরিজের ম্যাচও হবে সিলেটে

Related Articles

রুমানাদের বিশ্বকাপ বাছাই শুরু ৭ জুলাই

হার্ডহিটারের অভাব অনুভব করছেন আরিফুল

তিন হেড কোচ তত্ত্বের বিরোধী ফারুক

নিজেদের এগিয়ে রাখলেন আরিফুল

কারস্টেনের দৃষ্টি বিশ্বকাপে