SCORE

রিয়াদ-আরিফুলের ব্যাটে চড়ে খুলনার জয়

Share Button

নতুন অধিনায়কের অধীনে খেলতে নেমেছিল চিটাগং ভাইকিংস। স্কোরবোর্ডে লড়াকু পুঁজি আর বোলিংয়ে নিয়মিত বিরতিতে খুলনা টাইটানসের উইকেট শিকার করে জয়ের পথে ফেরার আশা জাগিয়েছিল চিটাগং। সেই আশা হতাশায় রূপ নিয়েছে খুলনা টাইটানসের মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও আরিফুল হকের জুটিতে। তাদের ব্যাটিং বীরত্বে ৫ উইকেট জয় পেয়েছে খুলনা।

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় খুলনা টাইটানস। অধিনায়ক মিসবাহ উল হক ও দিলশান মুনাবিরার পরিবর্তে চিটাগং ভাইকিংসের একাদশে সুযোগ পান স্টিয়ান ভ্যান জিল ও নাজিবুল্লাহ জাদরান। চিটাগংয়ের একাদশ থেকে বাদ পড়েন শুভাশিষও। ডাক পান আল-আমিন।  চিটাগং ভাইকিংসের নেতৃত্বের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয় লুক রঙ্কিকে।

এবারের বিপিএলে দারুণ ছন্দে ছিলেন রঙ্কি। তবে অধিনায়ক রনকির ব্যাট ছিল বিবর্ণ। প্রথম ওভারেই আবু জায়েদ রাহির বলে পরাস্ত হন রঙ্কি। ৩ রান করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান তিনি। শুরুর ধাক্কা সামাল দেন ওপেনার সৌম্য সরকার ও এনামুল হক বিজয়।

Also Read - ১০ ভারতীয়সহ ৭৭ জুয়ারি ধরলো বিসিবি

সৌম্য ও এনামুল ৯৫ রানের জুটি গড়ে বড় স্কোরের পথে এগিয়ে নিয়ে যায় চিটাগংকে। নিয়মিত বাউন্ডারি আর সিঙ্গেল নিয়ে রানের চাকা সচল রাখেন এনামুল ও সৌম্য।

দারুণ ব্যাটিং করেন এনামুল হক। ব্যাট হাতে যেন খুলনা টাইটানসের বোলারদের শাসন করেন তিনি। পঞ্চম ওভারে শফিউলের বলে পুল করে হাঁকান ছয়। শফিউলের পরের ওভারে আবারো স্কয়ার লেগের ওপর দিয়ে ছক্কা হাঁকান তিনি। এক ওভার পরেই কার্লোস ব্রাথওয়েটের বলে স্ট্রেইটে ছক্কা মারেন এনামুল। এনামুলের চার-ছয়ে দ্রুত রান বাড়ছিল চিটাগংয়ের। যদিও সৌম্য সরকার ছিলেন কিছুটা মন্থর।

রাহীকে ঘিরে খুলনার উচ্ছ্বাস

২৪ রানের মাথায় জীবন পেয়েছিলেন সৌম্য। জীবন পেয়েছিলেন ৩০ রানের মাথাতেও। কিন্তু স্কোর বড় করতে পারেননি তিনি।  ৩১ রান করে রিয়াদের বলে লং অনে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ধরা পড়েন ব্রাথওয়েটের হাতে।

সৌম্য সরকারের বিদায়ের পরে চিটাগং ভাইকিংসের ব্যাটিং এলোমেলো করে দেন খুলনা টাইটানসের আবু জায়েদ রাহি। আবু জায়েদের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন এনামুল। ঐ ওভারেই রানের খাতা খোলার আগেই আরিফুল হকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সিকান্দার রাজা। ৫ চার আর ৩ ছক্কায় ৪৭ বলে ৬২ রানের ইনিংস খেলে ফিরে যান এনামুল।

দুই ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় চিটাগং ভাইকিংস। তবে শেষ চার ওভারে ৪৪ রান তুলে দলকে বিপদ থেকে উদ্ধার করেন নাজিবুল্লাহ জাদরান ও স্টিয়ান ভ্যান জিল। ৫০ রানের জুটি গড়েন দুজন। ২ ছয় আর ১ চারে ১৬ বলে ২৪ রান করেন জাদরান। ২ ছক্কায় ১৫ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন ভ্যান জিল। খুলনা টাইটানসের হয়ে তিনটি উইকেট পান আবু জায়েদ রাহি।

১৬১ রানের জবাব দিতে নেমে ঝড়ো সূচনা করে খুলনা টাইটানস। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ছক্কা মারেন রাইলি রুশো। দ্বিতীয় ওভারেই সানজামুল ইসলামের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান ওপেনার মাইকেল ক্লিঙ্গার (১)। তবে তাতে থামেনি রুশোর ঝড়। ধীমান ঘোষকে সঙ্গে নিয়ে ৩৯ রান যোগ করেন রুশো। যদিও সেখানে ধীমান ঘোষের অবদান ছিল মাত্র ৪ রান।

পাওয়ারপ্লের শেষ ওভারে সিকান্দার রাজাকে সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হন ধীমান। পরের ওভারে আল-আমিনের টার্নে পরাস্ত হন রুশো। ২৬ বলে ৪৯ রানের ইনিংস খেলে বোল্ড হন রুশো। দুই ওভার পরে নিজের বলে নিজে ক্যাচ নিয়ে নাজমুল হোসেন শান্তকে (৯) ফিরিয়ে দেন তানভীর হায়দার।

দ্রুত উইকেট হারিয়ে বেশ বিপদে পড়ে যায় খুলনা টাইটানস। দলকে সেই বিপদ থেকে উদ্ধারের প্রচেষ্টা চালান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও আরিফুল হক।  দুজন মিলে এগিয়ে নিয়ে যান খুলনার রান। তাদের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় খুলনা।

রিয়াদ ও আরিফুলের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে হাঁটতে থাকে খুলনা। তাদের ৭০ রানের জুটি ভাঙেন তাসকিন আহমেদ। তবে ততক্ষণে সর্বনাশ হয়ে গিয়েছে চিটাগং ভাইকিংসের। ৩ ছক্কায় ২৪ বলে ৩৪ রান করেন আরিফুল হক। তার তিন ছক্কার একটি ছিল ১১১ মিটার।  তাসকিনের বলে জর্ডানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তিনি। ২ বলে ১০ রানের ছোট্টো এক ঝড়ো ইনিংস খেলেন কার্লোস ব্রাথওয়েট। আরিফুলের ফিরে যাওয়ার পরে তাসকিনের বলে একটি ছয় ও একটি চার মারেন তিনি।

তবে জয়ের বন্দরে নোঙর ভিড়িয়েই মাঠ ছাড়েন রিয়াদ।  ক্রিস জর্ডানের ফুল লেন্থের বলকে সীমানা ছাড়া করে দলের জয় নিশ্চিত করেন রিয়াদ। ৩৫ বলে ৪৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন খুলনা টাইটানসের অধিনায়ক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

চিটাগং ভাইকিংস ১৬০/৫, ২০ ওভার
এনামুল ৬২, সৌম্য ৩২, জাদরান ২৪
আবু জায়েদ ৩/২৬, রিয়াদ ১/২২

খুলনা টাইটানস ১৬৪/৫, ১৮.২ ওভার
রুশো ৪৯, রিয়াদ ৪৮*, আরিফুল ৩৪
আল-আমিন ১/১৪, সিকান্দার রাজা ১/২০, তানভির ১/২৯

খুলনা টাইটানস ৫ উইকেটে জয়ী

আরো পড়ুনঃ ১০ ভারতীয়সহ ৭৭ জুয়ারি ধরলো বিসিবি

Related Articles

রাজশাহীর প্রতিপক্ষ সিলেট, খুলনার বিপক্ষে লড়বে চিটাগাং

ঢাকার মুখোমুখি খুলনা, কুমিল্লার হয়ে ফিরছেন তামিম

পাঁচ বিদেশিতে ইতিবাচক জয়াবর্ধনে

শিরোপা জিততে চান রিয়াদ

তরুণদের নিয়ে দল সাজালো খুলনা টাইটানস