SCORE

Trending Now

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় পেলো সিলেট সিক্সার্স

Share Button

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টির ৫ম আসরের সিলেট পর্বের দ্বিতীয় দিনে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও জয় পেয়েছে নাসির হোসেনের সিলেট সিক্সার্স। গতকাল প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী ঢাকা ডাইনামাইটসকে হারিয়ে বিপিএলে শুভ সূচনা করেছিলো সিলেট।

সিলেটের বোলারদেরই কৃতিত্ব দিলেন থারাঙ্গা
নাসিরের বলে উইকেট শিকারের পর সতীর্থদের সাথে থারাঙ্গার উল্লাস। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

 

প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সিলেট অধিনায়ক নাসির হোসেন। তামিম ইকবাল না থাকায় ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়কত্ব করেন মোহাম্মদ নবী। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৬ রান যোগ করেন দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও উইকেটকিপার লিটন দাস। ব্যক্তিগত মাত্র ১২ রান করেই সিলেট অধিনায়ক নাসিরের বলে বোল্ড আউট হন কায়েস।

Also Read - সতর্ক করা হলো নাসিরকে

দলীয় ৪ রান যোগ করতেই তাইজুলের বলে ডাউন দ্যা উইকেটে মারতে এসে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন লিটন (২১)। রান পাননি ইংলিশ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জস বাটলার। সিলেটকে আবারো ব্রেক-থ্রু এনে দেন তাইজুল ইসলাম। ব্যক্তিগত ৪ রানে বাটলারকে ফেরান তিনি।

কুমিল্লার হয়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন মারলন স্যামুয়েলস এবং অলক কাপালি। দু’জনের ব্যাটে প্রাণ ফিরে পায় কুমিল্লা। কাপালি-স্যামুয়েলসের ৪২ রানের জুটি ভাঙেন স্যানটুকি। কাপালির বিদায়ের পর দাঁড়াতে পারেননি আর কেউই। দলকে একাই টেনে তুলেন স্যামুয়েলস। শেষদিকে স্যামুয়েলসের ৬০ রানের উপর ভর করে ১৪৫ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা। সিলেটের হয়ে দুইটি করে উইকেট লাভ করেন স্যানটুকি ও তাইজুল।

১৪৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করেন সিক্সার্সের দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা ও আন্দ্রে ফ্লেচার। গত ম্যাচেও ব্যাট হাতে দলকে একাই জয়ের বন্দরে নিয়ে গিয়েছিলেন এই দুই ব্যাটসম্যান। গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও দলের হাল ধরেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

ছোট টার্গেটে কিছুটা ধীর গতিতেই ব্যাট করেন দুই ওপেনার থারাঙ্গা এবং ফ্লেচার। দুই ওপেনারের গড়া ৭৩ রানের জুটি ভাঙেন ডুয়েন ব্রাভো। ব্যক্তিগত ৩৬ রান করে সাজঘরে ফিরেন ফ্লেচার। আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে মাত্র তিন রান করেই নবীর বলে আউট হন সাব্বির রহমান।

টানা দ্বিতীয় অর্ধশতক তুলে রান আউটের শিকার হন ৫১ রান করা উপুল থারাঙ্গা। দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে কিছুটা ব্যাকফুটে চলে যায় সিলেট। দলকে জয়ের আশ্বাস দেখান অধিনায়ক নাসির হোসেন কিন্তু ব্যক্তিগত ১৮ রানে রশিদ খানের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন নাসির।

নাসিরের বিদায়ে আবারো ম্যাচে ফিরে কুমিল্লা। তবে শেষদিকে শ্বাসরুদ্ধকর মুহূর্তে শেষ ওভারে ব্রাভোর প্রথম বলে শুভাগত ফিরলেও দ্বিতীয় বলে উইকেটকিপার নুরুল হাসান ৬ মেরে জয়ের আশা টিকিয়ে রাখে। শেষপর্যন্ত চার মেরে দলকে জয় এনে দেন সোহান। কুমিল্লার হয়ে দুইটি উইকেট পান ব্রাভো।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ১৪৫/৬ (ওভার ২০)

স্যামুয়েলস ৬০, কাপালি ২৬ঃ তাইজুল ২-২২

সিলেট সিক্সার্স ১৪৮/৬ (ওভার ১৯.৫)

থারাঙ্গা ৫১, ফ্লেচার ৩৬ঃ ব্রাভো ২-৩৪

ফলাফলঃ ৪ উইকেটে জয়ী সিলেট সিক্সার্স

আরো পড়ুনঃ সতর্ক করা হলো নাসিরকে

Related Articles

ভারত, নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ

‘আমার আজেবাজে জিদ নেই’

‘চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলেছি’

কুমিল্লাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ বিসিবির

পাইবাসকে চান না মুশফিক-সাকিব-মাশরাফি