SCORE

সর্বশেষ

সিলেটকে উড়িয়ে দিয়ে রাজশাহীর ৭ উইকেটের জয়

চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ১৭তম ম্যাচে বোলারদের ধারাবাহিকতার  পর তরুণ জাকির হাসানের অপরাজিত অর্ধশতকের পাশাপাশি মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিমদের ব্যাটিং ধারাবাহিকতায় ভর করে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে ৭ উইকেটের জয় পেয়েছে রাজশাহী কিংস।

শীর্ষে সিলেট তলানিতে রাজশাহী

১৪৭ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে রাজশাহীকে শুভ সূচনা এনে দেন ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামা দুই ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক ও রনি তালুকদার। দুজনের মারকুটে ব্যাটিংয়ে ৬ ওভারে স্কোরবোর্ডে ৫০ রান যোগ করে কিংসরা। এরপর রনি আরো চড়াও হয়ে ব্যাট করতে থাকে। ইনিংসের নবম ওভারে ২৪ রান করা রনিকে নাসির ফেরানোর পর ৪ বলের ব্যবধানে নতুন ব্যাটসম্যান সামিত প্যাটেলকে মাত্র ১ রানে নাবিল সামাদ ফেরালে ম্যাচে ফিরে আসে সিলেট সিক্সার্স।

Also Read - 'আমরা রংপুরের দুর্বলতা জানি'

৩য় উইকেট জুটিতে মুমিনুলের সাথে যোগ দিয়ে ঝড়ো গতিতে রান তুলতে শুরু করেন তরুণ জাকির হাসান। এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান যখন ম্যাচটিকে রাজশাহীর অনুকূলে নিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখন দলীয় ৯৭ রানের সময় ৪২ রান করা মুমিনুল হককে সাজঘরের পথ ধরিয়ে সিলেটকে খেলায় ফেরানোর চেষ্টায় মাতেন আবুল হাসান। ৪৭ বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন ৫০ রান এমন সমীকরণে জাকির হাসানের দ্রুতগতির ২৬ বলের অর্ধশতক ও মুশফিকুর রহিমের ২০ বলের ২৫ রানের ইনিংসে ভর করে ১৫ বল বাকি থাকতেই ৭ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রাজশাহী কিংস।

সিলেটের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে ইকোনোমিক্যাল স্পেল করে ২০ রান খরচায় ১ উইকেট শিকার করেন অধিনায়ক নাসির হোসেন। অন্যদিকে বাকি বোলাররা ব্যয়বহুল হলেও ১৭ রানের বিনিময়ে আবুল হাসান রাজু মুমিনুল হকের ও নাবিল সামাদ ২৭ রান খরচায় সামিত প্যাটেলের উইকেট নিজের ঝুলিতে নেন।

এর আগে মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে টস হেরে রাজশাহী কিংসের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে আগে ব্যাট করতে নামে সিলেট সিক্সার্স। ইনিংসের চতুর্থ বলে মোহাম্মদ সামি আন্দ্রে ফ্লেচারকে ফিরিয়ে কিংসদের দারুণ সূচনা এনে দেন। শুরুতে উইকেট হারিয়ে রক্ষণাত্বক ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় সিলেট সিক্সার্স।

উপুল থারাঙ্গা ১০ রান করে মেহেদী মিরাজের চমৎকার এক বলে বোল্ড আউট হয়ে সাজঘরে ফিরলে আরো চাপে পড়ে সিলেটের দলটি। রাজশাহীর বোলারদের আক্রমণাত্বক বোলিংয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে সিলেট সিক্সার্স। দলীয় ৭১ রানে ফ্লেচার, থারাঙ্গার সাথে নুরুল হাসান, নাসির হোসেন ও গুনাথিলাকার উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে দলটি।

এরপর ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে সাব্বির রহমান ও টিম ব্রেসনান ৬৯ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দিয়ে লড়াকু সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান সিলেট সিক্সার্সকে। ইনিংসের শেষ ওভারে সাব্বিরকে উইলিয়ামস আউট করালেও ততক্ষণে  সাব্বির ও ব্রেসনানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ভর করে লড়াকু পুঁজির ভিত গড়ে ফেলে সিক্সার্স। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে সিলেট সিক্সার্সের স্কোর দাঁড়ায় ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৬ রান।

রাজশাহীর বোলারদের মধ্যে কেসরিক উইলিয়ামস ৩২ রানে ২টি উইকেট লাভ করেন। তাছাড়া স্যামি, মিরাজ, প্যাটেল ও ফ্র্যাঙ্কলিন প্রত্যকে একটি করে উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

সিলেট সিক্সার্সঃ ১৪৬/৬ (২০ ওভার)
সাব্বির ৪১, গুনাথিলাকা ৪০, ব্রেসনান ২৯*; উইলিয়ামস ৩২/২

রাজশাহী কিংসঃ ১৪৭/৩ (১৭.৩ ওভার)
জাকির ৫১*, মুমিনুল ৪২, মুশফিক ২৫*; আবুল ১৭/১, নাসির ২০/১

ফলাফলঃ রাজশাহী ৭ উইকেটে বিজয়ী।
ম্যাচ সেরাঃ জাকির হাসান।


আরও পড়ুনঃ বিপিএলে আসছেন না হাফিজ

Related Articles

জাকির-আফিফকে বাদ দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা

ক্রিকেটারদের কাছে এতটাই গুরুত্ববহ ঘরোয়া ক্রিকেট!

অভিষেকের অপেক্ষায় পাঁচ ক্রিকেটার!

টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে একাধিক চমক রাখার ব্যাখ্যা

ফিরলেন সাকিব-সৌম্য, দলে পাঁচ নতুন মুখ