SCORE

Breaking News

সিলেটের দর্শক দেখে অভিভূত রংপুর রাইডার্স

Share Button

টিকেটকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ লাইন, চড়া মূল্যে কালোবাজারি, বুথ ভাঙচুর- কি হয়নি বিশ ওভারের ঘরোয়া ক্রিকেটের আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ- বিপিএলের সিলেট রাউন্ডকে কেন্দ্র করে। সবচেয়ে বড় কথা সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রতিদিন বিপুল সংখ্যক দর্শক সমাগম হচ্ছে। তাইতো সিলেটের মাঠের অবকাঠামো এবং ক্রিকেটপ্রেমি দর্শকের গ্যালারি জুড়ে গর্জনে মুগ্ধ ফ্রাঞ্চাইজি, ক্রিকেটার, সংগঠক, বিসিবি। এই যেমন টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট রংপুর রাইডার্স অভিভুত সিলেটে খেলতে পেরে।

বিডি ক্রিকটাইম এর সিলেট প্রতিনিধি মাকসুদুল হকের সাথে একান্ত এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন রংপুর রাইডার্স এর ফিল্ডিং কোচ জনাব ফাহিম আলিম। সিলেটে খেলার অনুভূতি সম্পর্কে তিনি বলেন-“সিলেটের দর্শক দেখে আমরা অভিভূত, শুধু সিলেটের দলের জন্যেই নয়, বরং, সব দলকে উৎসাহ দিচ্ছেন গ্যালারি ভরা দর্শকেরা। এমন স্পোর্টিং দর্শক খুব আনন্দদায়ক। খেলোয়াড়দের জন্যেও অনেক অনুপ্রেরণামূলক”

Also Read - জয়ের কৃতিত্ব সবাইকে দিলেন নাসির

“এছাড়া সিলেটে এরকম খেলা আয়োজন হবার কারণে এখানে যে দর্শক জোয়ার আছে এটা বোঝা গেছে। এটা তরুণ ক্রিকেটারদের জন্যে খুব উপকারী হবে। দর্শকদের উৎসাহ উদ্দীপনা ক্রিকেটারদের আরো ভালো পারফর্ম করার জ্বালানি যোগাবে। এছাড়া সিলেট থেকেও ভালো মানের ক্রিকেটার উঠে আসতে সহায়ক হবে। একসময় সিলেটের রাজিন, অলক, তাপস, এনামুল জুনিয়র, নাজমুল হোসেন জাতীয় দলে খেলেছেন, এরপরে আবুল হাসান রাজু এসেছেন, কিন্তু, মাঝে কিছু সময় চলে গেছে, রাজুর পরে আর কেউ সেভাবে জাতীয় দলে জায়গা করে নিতে পারেননি। সিলেটের মাঠে এরকম বড় ইভেন্ট নিয়মিত হলে স্থানীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ে ক্রিকেট খেলার আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে”

সিলেটে আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে তাঁর ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশ করেন- “সিলেটের মাঠ এবং অবকাঠামোগত সুবিধাগুলো চমৎকার। যদিও এখন মাঠে ঘাসের অবস্থা খুব ভালো নয়, গেল বর্ষা মৌসুমে প্রচুর বৃষ্টির কারণে হয়ত এমনটা হয়েছে, কিন্তু, এটা ঠিক করা যাবে। এখানে ৪টি ড্রেসিং রুম আছে, এটা খুব কম মাঠেই পাওয়া যায়। সুযোগ সুবিধাগুলো বেশ ভালো। এখানে আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করা যায়। এছাড়া এখানকার ক্রিকেট ক্রেজি দর্শক ব্যাপক ভূমিকা রাখবে মাঠের খেলা আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে। সব মিলিয়ে বলবো সিলেটে আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন হবার সব ব্যবস্থাই আছে”

সিলেটি দর্শকদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন- “সিলেটি ক্রিকেট ক্রেজি দর্শকদের মাঠে আসা এবং প্রত্যেকটা দলের জন্যে উৎসাহ জোগানো দেখে রংপুর রাইডার্স অভিভূত। রংপুরের বাস যেখানে যাচ্ছে সেখানেই লোকজন এসে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে, মাশরাফিকে অভিনন্দন জানাচ্ছে। দলের জন্যে সমর্থন দিচ্ছে। সিলেটের দর্শকের মধ্যে এমন উদ্দীপনা দেখে আমরা খুব মুগ্ধ। তাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি ক্রিকেটকে এভাবে সমর্থন করার জন্যে”

উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো এবারই সিলেটে আয়োজিত হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ- বিপিএল এর খেলা। চার-ছক্কার এই টুর্নামেন্টের পঞ্চম আসরে চার দিনে মোট আট ম্যাচ খেলা হচ্ছে দেশের অন্যতম আকর্ষণীয় এই ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

আরো পড়ুনঃ জয়ের কৃতিত্ব সবাইকে দিলেন নাসির

 

  • মাকসুদুল হক, সিলেট প্রতিনিধি, বিডিক্রিকটাইম।
  • সহযোগিতায়- তানজীল শাহরিয়ার

Related Articles

তরুণ ক্রিকেটারদের সুযোগ দিতে চায় রংপুর