SCORE

Trending Now

ত্রুটিই ধরা পড়ল আল-আমিনের বোলিংয়ে

বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেসার আল-আমিন হোসেনের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি ধরা পড়েছে। সর্বশেষ বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেলার সময় আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করেন ম্যাচ অফিশিয়ালরা। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি তার বোলিং অ্যাকশন বিশ্লেষণ করা হয়, যার রিপোর্টে ধরা পড়েছে ত্রুটি। অর্থাৎ, আম্পায়ারদের অ্যাকশনে ভুল ধরার আলোচিত সিদ্ধান্তটি সঠিকই ছিল।

আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন যে ত্রুটিপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত হয়েছে, সেটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন ম্যানেজার নাসির উদ্দিন আহমেদ নাসু।

Also Read - এনসিএলের শেষ রাউন্ড শুরু বুধবার

সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘বিপিএলে তার (আল আমিন) কয়েকটি ডেলিভারি ভিডিও অ্যানালাইসিস করে দেখা হয়েছে। যেখানে তার অ্যাকশন ত্রুটিপূর্ণ। আগামী কয়েকদিন সে রিহ্যাবে থাকবে। পরে নিজেকে আত্মবিশ্বাসী মনে হলে পরীক্ষা দেবে।’

উল্লেখ্য, গত ২৮ নভেম্বর বিপিএলে খুলনা টাইটান্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মধ্যকার ম্যাচে আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন দেখে সন্দেহ হলে আম্পায়াররা এ নিয়ে রিপোর্ট পেশ করেন। এর আগে ২০১৪ সালে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে খেলার সময়ও আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি ধরা পড়েছিল। এরপর দুই দফা পরীক্ষা দিয়ে বৈধতা পান আল আমিন। তিন বছর পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ৫ম আসরে এসে আবার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ হতে হয় প্রতিভাবান ও অভিজ্ঞ এই ফাস্ট বোলারকে। যে ম্যাচে আল-আমিনের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করা হয়, ঐ ম্যাচে খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ইনিংসের ১৫তম ওভারে আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন ম্যাচের ফিল্ড আম্পায়ারদ্বয়। সেই ওভারে খুলনার ব্যাটসম্যান আরিফুল হককে আউট করেছিলেন আল-আমিন। ম্যাচে ৪ ওভার বোলিং করে ২০ রানে তিন উইকেট নেন এই পেসার। পাশাপাশি কুমিল্লা জিতে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে। অ্যাকশনের ত্রুটি তখনও নিশ্চিত না হওয়ায় বিপিএলে খেলতে অবশ্য বাঁধা ছিল না আল-আমিনের।

আরও পড়ুনঃ মাশরাফিকে দেয়া কথা রাখলো রংপুর রাইডার্স

Related Articles

বোলারদের নিয়ে সন্তুষ্ট প্রকাশ বোলিং অ্যাকশন কমিটির

বোলিংয়ের ছাড়পত্র পেলেন আল-আমিন

বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিলেন আল-আমিন

বিপিএলেই মনোযোগ আল-আমিনের

এক ম্যাচে নাসিরের দুই মাইলফলক স্পর্শ