SCORE

ম্যাককালামের কাছেও রান চান মাশরাফি

Share Button

আসর শুরুর আগেই টি-২০ ফরম্যাটের সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত দুই ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে দলভুক্ত করে আলো কেড়ে নিয়েছিল রংপুর। আসর শুরুর কয়েকদিন পর দুজনই এসে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন একসঙ্গে। তবে এরপর গেইল তিন-তিনটি ম্যাচ একাই জেতালেও এখনও জ্বলে উঠতে পারেননি ম্যাককালাম।

মাশরাফির নেতৃত্বে খেলতে মুখিয়ে আছেন ম্যাককালাম

শুক্রবার খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ের পর রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ম্যাককালামের ব্যাটে রান দেখারও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

Also Read - রিয়াদের কন্ঠেও গেইল বন্দনা

মাশরাফি বলেন, ‘অবশ্যই ম্যাককালামের কাছ থেকে আমরা বড় রান চাই। এ ব্ল্যাক ক্যাপ্স খুব গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ব্যাটিং করছে। সত্যি বলতে কী, ভালো করার প্রচন্ড ইচ্ছে আছে তার মধ্যে। সে চেষ্টা করছে।’

মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের অনুশীলন দেখে থাকলে দেখবেন একমাত্র ও-ই সব সময় চেষ্টা করছে। সে জানে এই উইকেট তার জন্য কঠিন। আজকের উইকেটটা ভালো ছিল। কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে তো উইকেট গিয়ে সময় নেওয়ার সুযোগ নেই। আপনার ফর্ম ভালো যাচ্ছে না, যে আপনি উইকেট গিয়ে থিতু হবেন। ও এভাবে খেলে যদি রান করে, ওর জন্য ভালো হবে আমাদের জন্যও ভালো হবে। আমি এখনও আশাবাদী ম্যাকাকালামও এগিয়ে আসবে।’

ফাইনালে যাওয়ার আগে রংপুরের সামনে কেবলমাত্র একটি বাধা- ঢাকা ডায়নামাইটস-কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মধ্যকার পরাজিত দলের বিপক্ষে ম্যাচ। সেটি জিতলেই ফাইনাল। এর আগের চার আসরের তিনটিতেই শিরোপা জিতেছিলেন মাশরাফি। তবে কি চতুর্থ শিরোপাটা সামনে? মাশরাফির উত্তর, ‘নাহ , এখনই এত দূর ভাবছি না। কারণ, একটা দল চালাতে গেলে ভারসাম্যটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যদিও এই পর্যন্ত এসেছি ভারসাম্য নিয়ে কিন্তু সংগ্রাম করেছি। একটা ভালো দল শুধু নাম দিয়েই হয় না। আমরা যেভাবে খেলেছি কিছু কিছু দিনে প্রয়োজনীয় সময়ে কেউ একজন এগিয়ে এসেছে বলে আমরা এত দূর আসতে পেরেছি।’

মাশরাফির চিন্তায় আপাতত তাই পরের ম্যাচটাই, ‘পরের দুই ম্যাচের কথা আমি বলবো না, পরের ম্যাচটা নিয়ে ভাবছি। সম্ভবত টুর্নামেন্টের সেরা দুই দলের একটির বিপক্ষে আমাদের খেলতে হবে। পরের ম্যাচটা দুই দলের জন্যই সমান। যারা নার্ভ ধরে রাখতে পারবে তারাই সুবিধা পাবে।’

দল নিয়ে মাশরাফি আরও বলেন, ‘কম্বিনেশনের কথা বললে এখনও আমাদের মানিয়ে নিতে খুব কঠিন হচ্ছে। আজকেও গাজীকে ওপেন করাতে হয়েছে, যেন শেষ পর্যন্ত একজন ব্যাটসম্যান থাকতে পারে। যখন আমরা একজন বাঁহাতি স্পিনার, পেসার বা অফ স্পিনার বাড়াতে চাচ্ছি তখন একজন ব্যাটসম্যানের ঘাটতি হয়ে যাচ্ছে। আবার ব্যাটসম্যান বাড়াতে গেলে একজন বোলারের ঘাটতি হয়ে যাচ্ছে। আমার মনে হয় বোলাররা টুর্নামেন্ট জুড়ে ভালো করছে, এই জন্য আমরা মোটামুটি টুর্নামেন্টের শেষ পর্যন্ত আসতে পেরেছি। অন্যথায় আরও কঠিন হত।’

আরও পড়ুনঃ ‘ঘুমকাতুরে’ গেইল!

Related Articles

তৃতীয়বারের নিলামে দল পেলেন গেইল

অথচ আইপিএলে দল পাননি তারা!

বাংলাদেশকে ম্যাচ জেতাতে চান মিঠুন

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া’র বর্ষসেরা একাদশে সাকিব

অভয় পেয়েই শেষদিকে জ্বলে উঠেছিলেন ম্যাককালাম

Leave A Comment