SCORE

সর্বশেষ

‘ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে ভাবনা নাই’

২০১৬ সালে ঘরের মাটিতে আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরপর তিনটি সিরিজে নামের পাশে যোগ করেছিলেন তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞার খড়গ ঝুলছে তখন থেকেই। সেই চাপ মাথায় নিয়েই আরও কুকর্মে জড়িয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে বিসিবির ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞার সাথে পেয়েছেন ২০ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ।

'ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে ভাবনা নাই'

এমন বিতর্কের জন্ম দেওয়ার পর এড়িয়ে যাচ্ছিলেন গণমাধ্যম। শনিবার অবশ্য সাব্বিরকে পাওয়া গেলো, তাকে যে পাঠানো হয়েছে বোর্ডের নির্দেশেই। বিভিন্ন বিষয়ে আলাপের ফাঁকে কথা হল ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে। সামনে যে আন্তর্জাতিক ম্যাচ!

Also Read - সেঞ্চুরির খোঁজে সাব্বির

সাব্বির জানালেন, ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে কোনো ভাবনাই নেই তার, বরং পূর্ণ মনোযোগ ত্রিদেশীয় সিরিজে ভালো খেলা নিয়েই। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আসলে মাথায় নেতিবাচক কিছু ঘটছে না। ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে ভাবনা নাই। এক পয়েন্ট হোক বা ১০ পয়েন্ট, সমস্যা নাই। চেষ্টা করছি এই সিরিজটা ভালো খেলার জন্য।’

কিশোর দর্শককে পিটিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে এ নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে গেলে শাসিয়েছিলেন অফিসিয়ালদের। অনেকের মতে সাব্বিরের শাস্তি তাই ‘প্রাপ্য’ ছিল। এরও আগে বিপিএলে আম্পায়ারকে তিরস্কার করে প্রথমে জরিমানা গুনেছিলেন, পরবর্তীতে পেয়েছিলেন নিষেধাজ্ঞা। সাব্বিরকে নিয়ে বিতর্কের ঘটনা ছিল অতীতের বছরগুলোতেও। তবে সর্বশেষ ঘটনা ছাড়িয়ে গেছে সব ঘটনাকেই।

সাব্বিরও বললেন এমনটাই। যদিও সেগুলো ভুলে এখন তাকাচ্ছেন সামনে, ‘মানুষ হিসেবে বললে, আমার উপর এই ঘটনা অনেক প্রভাব ফেলেছে। তবে যদি প্রফেশনাল খেলোয়াড় হিসেবে চিন্তা করি, তাহলে পাস্ট ইজ পাস্ট।

জাতীয় দলের খেলোয়াড় হিসেবে তার ভূমিকাটা মোটেও ভুলেননি সাব্বির। তিনি বলেন, ‘যা হওয়ার হয়ে গেছে। এটার প্রভাব যাতে খেলায় না পড়ে, সেটা নিয়ে চিন্তা করছি। চাইছি জাতীয় দলকে আমার জায়গা থেকে সেরাটা দিতে। কারণ আমি বাংলাদেশের পতাকা বহন করছি। চেষ্টা করছি ভালো কিছু করার জন্য।’

আরও প্রউনঃ বাংলাদেশকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিমার

Related Articles

মিরপুরের ডিমেরিট পয়েন্টের বিরুদ্ধে বিসিবির আপিল