SCORE

সর্বশেষ

প্রস্তুতি ম্যাচে নয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা

ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে আগামী ৬ ও ৯ জানুয়ারি দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ত্রিদেশীয় সিরিজ ও শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য প্রাথমিক স্কোয়াডে ডাক পাওয়া যেসব ক্রিকেটাররা বর্তমানে অনুশীলন ক্যাম্পে ঘাম ঝরাচ্ছেন, তারাই অংশ নেবেন এই ম্যাচে।

দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশকে ২৫৬ রানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ।

তবে এই দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে নিজেদের নতুন করে প্রমাণের কোনো সুযোগ নেই বললেই চলে। কেননা চূড়ান্ত যে স্কোয়াড বাছাই করা হবে, তা হবে প্রস্তুতি ক্যাম্পের আগের পারফরমেন্স বিবেচনা করেই।

Also Read - 'তারা বাংলাদেশের প্লেয়ারদের মতোই খেলবে'

সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। নতুন করে এখন আর বাছাইয়ের সুযোগ নেই জানিয়ে একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘এখন আর ট্রায়ালের কিছু নেই। আমরা ওয়ানডে ও টেস্ট দল নিয়ে কোনো পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে চাই না। কারণ সেখানে বেশির ভাগই পরীক্ষিত ও পরিণত পারফর্মার।’

প্রস্তুতি ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে দিবা-রাত্রির ম্যাচের মতো। মূলত চেনা পরিস্থিতির সাথে আরও খাপ খাইয়ে নিতেই এমন আয়োজন। নান্নু বলেন, ‘শনিবারের প্রস্তুতি ম্যাচটি আসলে ক্রিকেটারদের ম্যাচ কন্ডিশনে প্র্যাকটিস। আর সে কারনেই এ খেলাটি হবে দিবা-রাত্রিতে। শনিবার প্রস্তুতি ম্যাচটি শুরু হবে বেলা ১২ টায়।’

চলমান প্রস্তুতি ক্যাম্পের অংশ হিসেবে ৪ ও ৫ জানুয়ারি প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত স্কিল ট্রেনিং অনুষ্ঠিত হবে। ৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে দিবা-রাত্রির প্রস্তুতি ম্যাচ, যা শুরু হবে দুপুর বারোটায়। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচের পরদিন বিশ্রাম পাবেন খেলোয়াড়রা।

এরপর ৮ জানুয়ারি দুপুর দেড়টা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত স্কিল ট্রেনিং অনুষ্ঠিত হবে। ৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ শুরু হবে দুপুর একটায়। ১০ জানুয়ারি স্কিল ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হবে প্রস্তুতি ক্যাম্প।

উল্লেখ্য, প্রস্তুতি ম্যাচ দুটি হবে একদিনের ম্যাচের ফরম্যাট অনুযায়ী। ম্যাচ দুটিতে ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ক্রিকেটাররা দুই দলে ভাগ হয়ে খেলবেন। দল দুটির নামকরণ করা হয়েছে লাল দল ও সবুজ দল।

আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ত্রিদেশীয় সিরিজ। সিরিজের পর্দা নামবে ২৭ জানুয়ারির ফাইনাল ম্যাচের মাধ্যমে।

আরও পড়ুনঃ পরিচয় পাল্টানোয় চাপ নিচ্ছেন না হ্যালসল

Related Articles

ত্রিদেশীয় সিরিজ বয়কটের হুমকি জিম্বাবুয়ের

এক সিরিজ দিয়েই টাইগারদের বিচার করতে নারাজ মাশরাফি

গামিনিকে বিসিবির কারণ দর্শানোর নোটিশ

আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মতো হওয়া, তবেই না চোকার!

বড় কীর্তির সামনে সাকিব