SCORE

Trending Now

বিজয়ের পাশে মাশরাফি

২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ফিল্ডিংয়ের সময় চোট পেয়েছিলেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়। সেই চোটে দীর্ঘসময়ের জন্য জাতীয় দলে ওয়ানডের রঙিন পোশাকে মাঠে নামা হয় নি আর। ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে স্কোয়াডে থাকলেও মাঠে নামা হয়নি তার।

‘বিজয় যতক্ষণ আছে অবশ্যই আমরা তাকে ব্যাকআপ করছি’

জাতীয় দলে সুযোগ না পেলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত পারফর্ম করে গিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান। ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্মের পর অবশেষে কপাল খুললো বিজয়ের। ডাক পেলেন ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য ঘোষিত দলে। দলে ডাক পেয়ে একাদশে নামা হয়েছে চারটি ম্যাচেই। তবে নামের পাশে সুবিচার করতে ব্যর্থ এই ওপেনার।

Also Read - 'ফাইনালের আগে এটি সতর্কবার্তা'

প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বড় ইনিংসের আশা দেখালেও ১৪ বলে ১৯ রানের ছোট ঝড়ো ইনিংস থামে তাঁর। নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একাধিক জীবন পেয়েও পূর্ণ করতে পারেননি ফিফটি। তাঁর ইনিংস থেমে গিয়েছিলো ৩৫ রানে। প্রথম দুই ম্যাচে রান পেলেও পরের দুই ম্যাচে কোন রান না করেই সাজঘরে ফিরেন তিনি।

দীর্ঘসময়ের পর জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পর নিজেকে প্রমাণ করতে না পারায় হতাশ বিজয়। এর আগে দলের চাহিদা অনুযায়ী খেলার কারণে দলপতি মাশরাফির প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন এই ওপেনার। আজ ব্যাট হাতে ব্যর্থতার দিনে বিজয়ের ব্যাপারে প্রশ্নের সম্মুখীন হন মাশরাফি। তিনি জানান, দলের সঙ্গে যতক্ষণ রয়েছে ততক্ষণ ব্যাকআপ করবেন বিজয়কে।

“বিজয়কে নিয়ে তো অনেক কথা হয়েছে, সে ঘরোয়া সব পর্যায়ে রান করেছে, বিপিএল বলেন, ফার্স্ট ক্লাস বলেন। আপনারাই তাকে এক্সপোজ করেছেন। তার উপর পূর্ণ আস্থা ছিল। তাকে নিয়মিত খেলিয়ে যাচ্ছি। সে যতক্ষণ আছে অবশ্যই আমরা তাকে ব্যাকআপ করছি।

জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে একই দলের হয়ে খেলেছিলেন মাশরাফি ও এনামুল। নিজ চোখেই সতীর্থের হাঁকানো ডাবল শতক দেখেছেন তিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করেও কেন জাতীয় দলে ব্যর্থ হচ্ছেন বিজয় সেই প্রশ্নের উত্তরও দেন বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি।

কঠিন সময় যেতে পারে। এমন না যে ফার্স্ট ক্লাসে রান করে এসেই আপনি আন্তর্জাতিক ম্যাচে রান করবেন। আমাদের ফার্স্ট ক্লাসের সঙ্গে একটা গ্যাপ অবশ্যই আছে।

এনামুল হকের এমন হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর ফাইনালে সুযোগ পাওয়া নিয়ে রয়েছে সংশয়। স্কোয়াডে আরেক ব্যাকআপ ওপেনার রয়েছেন মোহাম্মদ মিঠুন। জাতীয় দলের হয়ে বেশ কয়েকবারই ওপেনিংয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে উইকেটকিপারের। এখন পর্যন্ত এক ম্যাচেও মাঠে নামা না হলেও ফাইনালে বাজিয়ে দেখতে পারে মিঠুনকে।

অন্যদিকে ফাইনালে তামিমের ওপেনিং পার্টনার কে? বিজয় নাকি মিঠুন? সেই ব্যাপারে এখনি চিন্তাভাবনা করছেন না মাশরাফি। তিনি বলেন, আসলে নিশ্চিত না। এখনো তো কেবল খেলাটা শেষ করে আসলাম। এটা নিয়ে ভাবার বিষয় আছে।”

আরও পড়ুনঃ ‘ফাইনালের আগে এটি সতর্কবার্তা’

Related Articles

আবারও ব্যর্থ বিজয়

দুঃসময়ে তরুণদের পাশে মাশরাফি

দাপুটে জয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধার আবাহনীর

নাসির, শান্ত তাণ্ডবের পর মাশরাফি ঝড়

নাসির, শান্ত’র জোড়া শতক