SCORE

সর্বশেষ

ব্যাটিং ব্যর্থতার দিনে আলো ছড়ালেন আফিফ-শাকিল

আইসিসি অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের পঞ্চমস্থান নির্ধারণী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার যুবাদের ১৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। ব্যাটিং ব্যর্থতার দিন আফিফ হোসেন ও শাকিল হোসেনের জোড়া অর্ধশতককে ৪১.৪ ওভারে অল-আউট হওয়ার আগে স্কোরবোর্ডে ১৭৮ রানের সংগ্রহ পায় সাইফবাহিনী।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের যুবারা।

কুইন্সটাউনে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও প্রত্যাশামত হয়নি যুবা টাইগারদের। ইনিংসের প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে ফ্রেসার জোন্সের বলে ডু প্লেসিসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ২ রান করা নাইম শেখ সাজঘরে ফিরলে দলীয় চার রানে প্রথম উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের। পরের ওভারে আখোনা ম্ন্যাকার বলে সাইফ হাসানও ডু প্লেসিসের হাতে তালুবন্দী হলে ৪ রানে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশের যুবারা।

Also Read - বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

অধিনায়ককে হারানোর ৪০ বলের ব্যবধানে দুই প্রোটিয়া পেসারের বোলিং তোপে নামের প্রতি সুবিচার করতে ব্যর্থ হয়ে আমিনুল ইসলাম (৭), তৌহিদ হৃদয় (১), মোহাম্মদ রাকিব (২) তিনজনই সাজঘরে ফিরলে ইনিংসের নবম ওভারে ৩৩ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে বসে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যুবা টাইগাররা।

ব্যাটিং বিপর্যয়ে কম রানের মধ্যে অল-আউট হওয়ার শঙ্কার মাঝে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ক্রিজে যোগ দেন আফিফ হোসেনের সাথে শাকিল হোসেন। বলের মেধা বিচার করে শুরু থেকেই খেলতে থাকেন দুজনেই। সাবলীল গতিতে রানও আসতে থাকে বাংলাদেশের। দলের ব্যাকফুটে থাকার মানসিকতা থেকে বের হয়ে এসে আক্রমণাত্বক ভূমিকায় অবর্তীণ হয়ে প্রতিপক্ষের বোলারদের উপর চড়াও হয়ে দ্রুতগতিতে রান তুলতে থাকেন আফিফ। এমতাবস্থায় অপরপ্রান্তে তাকে যোগ্য সঙ্গ দিতে থাকেন প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয়বারের মতো খেলার সুযোগ পাওয়া উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান শাকিল।

দলীয় শতরান পূর্ণের পথে ৬ চার ও ২ বিশাল ছক্কায় ৪৪ বল মোকাবেলায় আসরে নিজের তৃতীয় অর্ধশতক পূর্ণ করেন আফিফ। মাইলফলক স্পর্শের পর আরও ভয়ঙ্কর রুপ ধারণের পথে হাঁটতে থাকেন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত সফল হননি। ইনিংসের ২৮তম ওভারে নিজের  বল করতে এসে দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করে তাকে প্যাভিলিয়নের পথ ধরান বাঁহাতি প্রোটিয়া পেসার ম্ন্যাকার

৭ চার ও ২ ছয়ে ৫৯ বলে ৬৩ রানের ইনিংস খেলে আফিফ ফিরে গেলে আবারও ছন্দপতন ঘটে বাংলাদেশের। দ্রুততম সময়ে কাজী অনিক (১৩) ও হাসান মাহমুদের উইকেট হারানো বাংলাদেশের চাপকে কিছুটা বাড়িয়ে দেয়। এক প্রান্ত থেকে উইকেট হারাতে থাকলেও আরেক প্রান্ত আগলে ধরে ৭১ বল মোকাবেলা করে অর্ধশতক তুলে নেন শাকিল। এরপর দলের পুরো দায়িত্ব নিজ কাঁধে নিয়ে এগোতে থাকেন সামনের দিকে।

তবে অর্ধশতকের পর বেশিক্ষণ ক্রিজে থিতু হতে পারেননি তিনিও। ৬১ রান করে জোন্সের পঞ্চম শিকারে নাম লেখালে ১৬৫ রানে নমব উইকেট হারায় দলটি। জোন্সের ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেটের দিনে শেষ উইকেটে টিপু সুলতান ও রনি হোসেনের ১৩ রানের জুটিতে অল-আউট হওয়ার আগে ১৭৮ রানের পুঁজি পায় বাংলাদেশ। রনি রান আউট হলেও ১৮ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন টিপু।

প্রোটিয়া বোলারদের মধ্যে জোন্স ৩৩ রানের বিনিময়ে পাঁচটি, ম্ন্যাকার ২৭ রান খরচায় তিনটি ও ডি ক্লার্ক ২৭ রানের বিনিময়ে নেন একটি উইকেট।

প্রসঙ্গত, এবারের যুব বিশ্বকাপে এটিই হচ্ছে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য শেষ ম্যাচ। আজকের খেলার বিজয়ী এবারের আসরে পঞ্চমস্থান দখল করবে।

খেলাটির বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে ক্লিক করুন এখানে

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-
বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দলঃ ১৭৮ অল-আউট (৪১.৪ ওভার)
সাইফ ১ (৭), নাইম ২ (৫), আমিনুল ৭ (১৯), হৃদয় ১ (১০), আফিফ (৬৩ (৫৯), রাকিব ২ (৪), শাকিল ৬১ (৮৯), অনিক ১৩ (২২), হাসান ০ (৪), টিপু ১৮ (২৪)*, রনি ০ (৯); জোন্স ৩৩/৫, জোন্স ২৭/৩, ডি ক্লার্ক ২৭/১.


আরও পড়ুনঃ স্পিন সহায়ক হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম টেস্টের উইকেট

Related Articles

অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতলো ভারত

বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

পঞ্চমস্থান নির্ধারণী ম্যাচে প্রোটিয়াদের মুখোমুখি বাংলাদেশ

টস হেরে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে লড়বে সাইফরা