ব্র্যাডম্যানকেও টপকে গেলেন বাহির শাহ্!

সতেরো বছর পেরিয়ে আঠারো পূর্ণ করেননি এখনও। দেখে তাকে কিশোর মনে না হলেও দ্রুত শারীরিক বৃদ্ধি কিংবা অন্য কোনো কারণে টগবগে তরুণ মনে হওয়া সাইদ বাহির শাহ মাহবুব আদতে একজন কিশোরই। নিয়মিত খেলছেন আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলে। এমনকি ১৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া যুবদের বিশ্বকাপেও দেখা যাবে তাকে।

ব্র্যাডম্যানকেও টপকে গেলেন বাহির শাহ্!

তবে এই অখ্যাত কিশোর ক্রিকেটারই গড়েছেন অবাক করা এক কীর্তি। দুর্দান্ত ধারাবাহিক পারফরমেন্সে তিনি ছাড়িয়ে গেছেন ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান খ্যাত ডন ব্র্যাডম্যানকে!

Also Read - সাকিবের তুলে ধরা প্রসঙ্গে পন্টিংয়ের জবাব

আফগানিস্তানের এই বিস্ময় জাগানো ক্রিকেটার সবাইকে পেছনে ফেলেছেন ব্যাটিং গড়ের দিক থেকে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক হাজার রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এখন সর্বোচ্চ গড় তার। এমনকি সেই গড় ছাড়িয়ে গেছে ডন ব্র্যাডম্যানের গড় রানকেও!

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাহির শাহকে খুব একটা অভিজ্ঞ বলার সুযোগ নেই। মাত্র সাতটি ম্যাচে মাঠে নেমেছেন, তার মধ্যে ব্যাট হাতে ক্রিজে নামতে হয়েছে বারো ইনিংসে। তবে যা কীর্তি গড়ার, তা সেই বারো ইনিংসেই গড়ে ফেলেছেন বাহির। প্রথম শ্রেণিতে তার মোট রান ১০৯৬, ব্যাটিং গড় ১২১.৭৭!

বাহির ছাড়া কেউই এখনও একশর উপর গড়ের তালিকায় নাম লিখাতে পারেননি, কিংবা লিখালেও তা ধরে রাখতে পারেননি। বিস্ময় জাগানো এই কিশোরের ক্যারিয়ারের অনেক বড় অংশ এখনও বাকি, তবে তার কীর্তি নির্দ্বিধায় প্রশংসনীয়। বিশ্বের ক্রিকেট ইতিহাসে একশ ছুঁইছুঁই ব্যাটিং গড় আছে একজনেরই; তিনি ক্রিকেটের সর্বকালের সর্বসেরা ব্যাটসম্যান ডন ব্র্যাডম্যান। তার গড় ৯৯.৯৪। অবশ্য জীবনের শেষ ইনিংসে শূন্য রানে আউট না হলে তার গড় একশ ছুঁয়ে ফেলতে পারত!

ব্যাটিং গড়ের পাশাপাশি আরেকটি কীর্তি আছে বাহির শাহ্‌র। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের অভিষেক ম্যাচেই তিনি খেলেছিলেন ২৫৬ রানের একটি ইনিংস। অভিষেক ম্যাচে কোনো ব্যাটসম্যানের দ্বিতীয় সেরা ইনিংস এটি। বাহির দ্বিতীয় আরেকদিক থেকে- সবচেয়ে কম বয়সে ত্রিশতক হাঁকানোর রেকর্ডে।

আরও পড়ুনঃ অশনি সংকেতের বার্তা দিয়েছেন সাকিব