শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের দ্রুততম ১০০ ওয়ানডের রেকর্ড

বাংলাদেশের ‘হোম অফ ক্রিকেট’ নামে খ্যাত মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম করতে যাচ্ছে অনন্য এক রেকর্ড।

শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ছবিঃ সংগৃহীত

 

এই ভেন্যুতে ১০০তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ মাঠে গড়াবে বুধবার। সবচেয়ে দ্রুততম ১০০ ম্যাচ আয়োজনকারী হিসেবে নাম লেখাতে যাচ্ছে বাংলাদেশের এই ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

Also Read - মুস্তাফিজকে চায় মুম্বাই, সাকিবকে দিল্লী

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়াম এ পর্যন্ত ম্যাচ আয়োজন করেছে ৯৮টি। ২০০৬ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশ জিম্বাবুয়ে ম্যাচ দিয়ে অভিষেক হয় বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যস্ত এই  ক্রিকেট স্টেডিয়ামের।

বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ। সেটি হবে ৯৯তম। তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছাবে এর পরের ম্যাচেই। বুধবার সতের জানুয়ারী শ্রীলঙ্কা আর জিম্বাবুয়ে এর মধ্যকার সিরিজের ২য় ম্যাচ দিয়ে রেকর্ড বুকে নাম লেখাবে এই স্টেডিয়াম।

বাংলাদেশের প্রথম টেস্টের ভেন্যু বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ম্যাচ আয়োজনের আর ভার নেয় নি শেরে বাংলা স্টেডিয়াম দায়িত্ব বুঝে নেয়ায়। তাই রাজধানী ঢাকায় এটাই একমাত্র আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

বাংলাদেশের চার ম্যাচ আর দুই কোয়ার্টার ফাইনালসহ বিশ্বকাপ ২০১১ আয়োজন করে এই স্টেডিয়াম।

এই ভেন্যুতে ৮৩ ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ যার মধ্যে ৩৯টি ম্যাচেই জয় পেয়েছে টাইগাররা। আগের ৯৮ ম্যাচের কেবল একটি ম্যাচই ছিল ফলাফল ছাড়া। ২০১৪ সালের বাংলাদেশ ভারত এর তিন ম্যাচের সিরিজের শেষ ম্যাচ হয়েছিল পরিত্যাক্ত।

মিরপুর স্টেডিয়াম এর উইকেট টিপিক্যাল উপমহাদেশীয় উইকেটের মতই। তাই হাই স্কোরিং ম্যাচ দেখা যায় নি খুব বেশি। ১৩ বার ৩০০ রানের কোটা পার করেছে কোনো দল। ২০১১ বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচে সর্বোচ্চ ৩৭০/৪ রান করেছে ভারত। এই মাঠে সর্বনিম্ন ৫৮ রান করেছে বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ(২০১১) ও ভারত(২০১৪) এর বিপক্ষে। ১০০ এর নিচে পাঁচবার অলআউট হয়েছে কোনো দল যার চারবারই দলের নাম ছিল বাংলাদেশ।

ছয় নম্বর স্টেডিয়াম হিসেবে ১০০ তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে আয়োজন করতে যাচ্ছে মিরপুরের এই ভেন্যু। ১১ বছর এক মাসে সর্বনিম্ন সময়ে এই মাইলফলক স্পর্শ করবে বাংলাদেশের হোম অব ক্রিকেট। এর আগে শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, হারারে স্পোর্টস ক্লাব ও কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম ১০০ ওয়ানডে আয়োজনের কৃতিত্ব দেখা গিয়েছে।

 

আরো পড়ুনঃ

ম্যাচ প্রিভিউ : বাংলাদেশ বনাম জিম্বাবুয়ে, প্রথম ম্যাচ, ত্রিদেশীয় সিরিজ