SCORE

সর্বশেষ

‘কোচকে দোষ দেওয়াটা বোকামি’

হিথ স্ট্রিক বিদায়ের পর বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় উইন্ডিজ লিজেন্ড কোর্টনি ওয়ালশকে। স্ট্রিকের অধীনে বাংলাদেশের পেসাররা সাফল্য পেলেও ওয়ালশের অধীনে ব্যর্থ পেসাররা। সর্বশেষ ঘরের মাঠেও ব্যর্থ হয়েছে পেসাররা। বোলাররা ব্যর্থ হওয়াতে অনেকেই আঙুল তুলছেন ওয়ালশের দিকে।

হিথ স্ট্রিক বিদায়ের পর বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় উইন্ডিজ লিজেন্ড কোর্টনি ওয়ালশকে। স্ট্রিকের অধীনে বাংলাদেশের পেসাররা সাফল্য পেলেও ওয়ালশের অধীনে ব্যর্থ পেসাররা। সর্বশেষ ঘরের মাঠেও ব্যর্থ হয়েছে পেসাররা। বোলাররা ব্যর্থ হওয়াতে অনেকেই আঙুল তুলছেন ওয়ালশের দিকে। তবে একা কোচকে দায়ি করাটা হবে যে বড্ড বোকামি। নেট অনুশীলনে ৫৫ বছর বয়সী ওয়ালশের বল মোকাবিলা করতেই ঘাম ঝরাতে হয় ব্যাটসম্যানদের এমনটা জানিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। তাহলে সমস্যাটা কোথায়? পেসারদের সমস্যা কাটিয়ে উঠতে বোলারদের নিয়ে স্পেশাল ক্যাম্প শুরু করেছে বোলিং কোচ ওয়ালশ। সেই ক্যাম্পে রয়েছে দল থেকে বাদ পড়া তাসকিন আহমেদ, তরুণ রাহি, রনি, কাজী অনিকদের মতো বোলাররা। নিজেদের ব্যর্থতার জন্য কোচকে দায়ি করতে চাননা তাসকিন। বরং সমস্যাগুলো খুঁজে দ্রুতই সমাধান নেওয়ার কথা জানান এই স্পিডস্টার। সেই সাথে নিজেদের আরো পরিশ্রম করতে হবে জানান তিনি। “কোচকে দোষ দেওয়াটা বোকামি। তারা আমাদের সঠিক পরিকল্পনা, সঠিক উপদেশই দেন এবং দলের পরিকল্পনা গুলোও সঠিকভাবে দেন। যদি কোন কিছুর সমস্যা হয়, সেটি বোলারদের কমতি। এটা অবশ্যই কঠোর পরিশ্রমের দ্বারা খুঁজে বের করতে হবে।” কোচ, শীর্ষদের ক্ষেত্রে অনেকসময় বড় সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায় ভাষা বুঝতে না পারা। ওয়ালশ উইন্ডিজের হওয়াতে বাংলাদেশের পেসাররা তাঁর কথা, উপদেশগুলো সঠিকভাবে বুঝতে পারাটা বড় ফ্যাক্টর। তবে এটিকে বড় সমস্যা মনে করছেন না তাসকিন। তাঁর মতে মাঠে সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে না পারাটাই বড় সমস্যা। কোচের ভাষা বুঝতে না পারলে সেটি অনুবাদ করে দেন দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা। সেই সাথে এই ক্যাম্পে কোচ ওয়ালশ থেকে পেসাররা ইয়র্কার, স্লোয়ার নিয়ে কাজ করবেন পেসাররা। “না, এটা কোন সমস্যা নয়। উনি কি বলেন সেটা বুঝতে পারি আমি এবং আমার মনে হয় অনেক ক্রিকেটারই বুঝে উনার ভাষা। যাদের বুঝতে সমস্যা হয়, সিনিয়র ক্রিকেটাররা অনুবাদ করে দেন সেটির। আমার কাছে এটি বড় সমস্যা মনে হয় না, সঠিকভাবে মাঠে বাস্তবায়ন করাটাই বড় সমস্যা আমার মতে।” তিনি আরও যোগ করেন, “গত চার বছর আমি দলের সঙ্গে রয়েছি। অনেক কিছুর অভিজ্ঞতাও হয়েছে। এই চার বছরে বুঝতে পেরেছি, বাস্তবায়ন করাটা সবচেয়ে বড় ব্যাপার। যদি আমি ঠিকঠাক বাস্তবায়ন না করতে পারি তাহলে কোন প্ল্যানই কাজে আসবেনা। যারা ক্যাম্পে রয়েছে তাঁরা , স্লোয়ার, ইয়র্কার, লেন্থ-বলে নিয়ে বেশি কাজ করছে।”

তবে একা কোচকে দায়ী করাটা হবে যে বড্ড বোকামি! নেট অনুশীলনে ৫৫ বছর বয়সী ওয়ালশের বল মোকাবিলা করতেই ঘাম ঝরাতে হয় ব্যাটসম্যানদের এমনটা জানিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। তাহলে সমস্যাটা কোথায়? পেসারদের সমস্যা কাটিয়ে উঠতে বোলারদের নিয়ে স্পেশাল ক্যাম্প শুরু করেছেন বোলিং কোচ ওয়ালশ।

Also Read - মাশরাফিকে ধরতে মঞ্চে ভক্তের লাফ!

সেই ক্যাম্পে রয়েছেন দল থেকে বাদ পড়া তাসকিন আহমেদ, তরুণ রাহী, রনি, কাজী অনিকদের মতো বোলাররা। নিজেদের ব্যর্থতার জন্য কোচকে দায়ী করতে চাননা তাসকিন। বরং সমস্যাগুলো খুঁজে দ্রুতই সমাধান নেওয়ার কথা জানান এই স্পিডস্টার। সেই সাথে নিজেদের আরো পরিশ্রম করতে হবে জানান তিনি।

“কোচকে দোষ দেওয়াটা বোকামি। তারা আমাদের সঠিক পরিকল্পনা, সঠিক উপদেশই দেন এবং দলের পরিকল্পনা গুলোও সঠিকভাবে দেন। যদি কোন কিছুর সমস্যা হয়, সেটি বোলারদের কমতি। এটা অবশ্যই কঠোর পরিশ্রমের দ্বারা খুঁজে বের করতে হবে।”

কোচ, শিষ্যদের ক্ষেত্রে অনেকসময় বড় সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায় ভাষা বুঝতে না পারা। ওয়ালশ উইন্ডিজের হওয়াতে বাংলাদেশের পেসাররা তাঁর কথা, উপদেশগুলো সঠিকভাবে বুঝতে পারাটা বড় ফ্যাক্টর। তবে এটিকে বড় সমস্যা মনে করছেন না তাসকিন। তাঁর মতে মাঠে সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে না পারাটাই বড় সমস্যা।

কোচের ভাষা বুঝতে না পারলে সেটি অনুবাদ করে দেন দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা। সেই সাথে এই ক্যাম্পে কোচ ওয়ালশ থেকে পেসাররা ইয়র্কার, স্লোয়ার নিয়ে কাজ করবেন পেসাররা।

“না, এটা কোন সমস্যা নয়। উনি কি বলেন সেটা বুঝতে পারি আমি এবং আমার মনে হয় অনেক ক্রিকেটারই বুঝে উনার ভাষা। যাদের বুঝতে সমস্যা হয়, সিনিয়র ক্রিকেটাররা অনুবাদ করে দেন সেটির। আমার কাছে এটি বড় সমস্যা মনে হয় না, সঠিকভাবে মাঠে বাস্তবায়ন করাটাই বড় সমস্যা আমার মতে।”

তিনি আরও যোগ করেন, “গত চার বছর আমি দলের সঙ্গে রয়েছি। অনেক কিছুর অভিজ্ঞতাও হয়েছে। এই চার বছরে বুঝতে পেরেছি, বাস্তবায়ন করাটা সবচেয়ে বড় ব্যাপার। যদি আমি ঠিকঠাক বাস্তবায়ন না করতে পারি তাহলে কোন প্ল্যানই কাজে আসবেনা। যারা ক্যাম্পে রয়েছে তাঁরা স্লোয়ার, ইয়র্কার, লেন্থ বল নিয়ে বেশি কাজ করছে।”

আরও পড়ুনঃ পিএসএল তামিমদের দাপুটে জয়

Related Articles

মুস্তাফিজের ইনজুরি নিয়ে ওয়ালশের বক্তব্য

“আমরা এখনও শক্তিশালী দল”

“ক্রিকেটে এসব ঘটেই”

ইতিবাচক ও আত্মপ্রত্যয়ী ওয়ালশ

আইপিএল থেকে চোট নিয়ে ফিরেছেন মুস্তাফিজ