SCORE

Trending Now

ঘুরে দাঁড়ানোই তামিমদের নতুন ভাবনা

টেস্ট সিরিজে প্রত্যাশা অনুযায়ী ফল হয়নি। চট্টগ্রামে লড়াকু ড্র উপহার দিলেও ঢাকা টেস্টে দৃষ্টিকটুভাবে হেরে বসেছে টাইগাররা। আর এই হারে সমর্থক থেকে শুরু করে টিম ম্যানেজমেন্টেও লেগেছে হতাশার ছোঁয়া।

'প্রয়োজন' ছিল তামিমের শাস্তি!
তামিম ইকবাল। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

তবে সেই হতাশা কাটিয়ে উঠে এখন ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় বাংলাদেশ দলের। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে জাতীয় দলের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল বলেন, ‘নতুন একটা সিরিজে কীভাবে ঘুরে দাঁড়াবো এটা একটা নতুন ভাবনা। আমরাও দলের জন্য সেরাটি দিতে প্রস্তুত। শেষ দুই সিরিজেই আমরা হেরেছি কারণ হয়তোবা খারাপ খেলছি এবং আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী পারফর্ম করতে পারিনি। তাই এটাই আমাদের টার্গেট যে ভালো খেলতে হবে। আমাদের সবাইকেই সেরাটি দিতে হবে। বোলারদের উইকেট পেতে হবে, ব্যাটসম্যানদের রান করতে হবে। আমরা যদি আমাদের ভালোটা খেলি সিরিজটি দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে।’

সাম্প্রতিক বাজে পারফরমেন্সের প্রভাব পড়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের উপরও। তামিমের ভাষ্য, ‘সত্যি বলতে কি আমরা ক্রিকেটাররা সবাই খুব আশা ভঙ্গের বেদনায় আচ্ছন্ন। কারণ আমাদের বিশ্বাস ও আস্থা ছিল অনেক ভালো খেলার। তা খেলতে না পেরে স্বভাবতই সবাই হতাশ। তবে এটাই ক্রিকেট। কখনও কখনও এমন হয়। এখান থেকে কিভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যায়, সেটাই এখন আসল। আবার একটা নতুন সিরিজ। যা ভিন্ন ফরম্যাটের। এখানে সামর্থ্যের সবটুকু উজাড় করে দিয়ে দেশকে আবার সাফল্যের স্বাদ উপহারের চেষ্টা করতে হবে। এ মুহূর্তে এটাই আমাদের চিন্তা।’

Also Read - ভারতের বিপক্ষে প্রোটিয়াদের টি-২০ অধিনায়ক ডুমিনি

তামিম আরও বলেন, ‘শুধু টিম ম্যানেজমন্টে নয়, আমরা সবাই জানি আমরা হয়তো খারাপ খেলছি। কারণ আমরা সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারিনি। সবার লক্ষ্য ও প্রতিজ্ঞা,আমাদের ভালো খেলতে হবে। আমাদের সেরাটা উপহার দিতেই হবে। সবাইকে পারফর্ম করতেই হবে। ব্যাটসম্যানদের রান করতে হবে। বোলারদের উইকেটের পতন ঘটাতে হবে। এই কাজগুলো যদি ঠিকমত বাস্তব রূপ পায়, আমরা যদি ভালো খেলি তাহলে টি-টোয়েন্টি সিরিজে অন্যরকম কিছু ঘটতেও পারে।’

টি-২০ সিরিজে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা দুই দলকেই সমান্তরালে রাখার পক্ষপাতী তামিম। তিনি বলেন, ‘গত ক’দিনে মনে হচ্ছে তারা ভালো করছে। তারা অভিজ্ঞতা ও তারুণ্যের মিশ্রণ, কিছুটা আমাদের মতোই। আমি ওরকম না, ওরা বা আমরা এগিয়ে আছি তা বলব। দুই দলই সমান সামর্থ্যের, যারা ভালো খেলবে তারাই জিতবে।’

নিকট ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তামিমের মধ্যে কাজ করছে টি-২০ ফরম্যাটে ভালো করার তাড়নাও, ‘আমরা সাধারণত টি-টোয়েন্টি খেলতাম খুবই কম। কিন্তু আগামী ৬ মাস বা ১ বছরের সূচিতে অনেক খেলব আমরা। সম্ভবত ওয়ানডের চেয়েও টি-টোয়েন্টি বেশি খেলব। এখানে দুটি, শ্রীলঙ্কা সফরে ৫টি, ওয়েস্ট ইন্ডিজে ২-৩টি। কোন ধরনের পরিকল্পনায় এগোব, সেটি ঠিক করার উপযুক্ত সময় এখনই। ২০২০ বিশ্বকাপের আগে এখনও যথেষ্ট সময় আছে। তবে এখন থেকে যত কম সময় নিয়ে আমরা প্রস্তুত হব, তত ভালো। এই সংস্করণে আমরা যা করেছি, তার চেয়ে যেন ভালো করতে পারি। আন্তর্জাতিক মানের একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আমরা খেলি এই সংস্করণে। আমাদের তাই আরও ভালো করা উচিত। আমার বিশ্বাস, আমরা ভালো করতে পারব।’

দেশের মাটিতে খেলে সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশের সবচেয়ে বাজে শুরু হয়েছে এই বছর। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজ বা টেস্ট সিরিজের ফলাফল যে আরও ভালো হতে পারত, তামিম মেনে নিচ্ছেন সেটিও, ‘আমরা তিন জাতি ক্রিকেটে যেভাবে শুরু করেছিলাম, শেষ পর্যন্ত আমরা সেটা ধরে রাখতে পারিনি। আর তাই হেরেছি। টেস্ট ম্যাচেও আমার কাছে মনে হয় যে, শ্রীলঙ্কা বেটার সাইড ছিল। তারপরও আমাদের ভালো করার সুযোগ ছিল। উচিতও ছিল। কারণ আমরা খেলেছি ঘরের মাঠে অনুকূল ও চেনা কন্ডিশনে। সবচেয়ে বড় কথা, হোম কন্ডিশনে আমরা শেষ দুই তিনটি সিরিজ যেভাবে খেলেছি, তাতে আমাদের অবশ্যই অনেক বেশি ভালো করা উচিত ছিলো।’

আরও পড়ুনঃ নতুনদের যথেষ্ট সুযোগ দেওয়ার পক্ষে তামিম

Related Articles

লর্ডসে খেলতে মুখিয়ে তামিম

বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম

ইঞ্জুরিতে শেষ দুই রাউন্ড মিস করবেন তামিম, তাসকিন, মিরাজ

ইনজুরির শিকার মুশফিক

‘খেলতে গেলে চোটে পড়তেই পারে’