SCORE

Trending Now

মোসাদ্দেক সাফল্য পেলেন তিন বিভাগেই

Share Button

ঢাকা টেস্টে ব্যাটিং বিপর্যয়ের কারণে ধুঁকছে বাংলাদেশ। প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৩ বলে অপরাজিত ৮ রান করে দলের ড্র’তে অবদান রাখা মোসাদ্দেক হোসেনকে এই টেস্টের একাদশে রাখে নি টিম ম্যানেজমেন্ট। অন্যদিকে ডিপিএলে আবাহনীর হয়ে খেলতে পাঠানো হয়েছে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে। কলাবাগানের বিপক্ষে ম্যাচে তিন বিভাগেই সাফল্য পেয়েছেন মোসাদ্দেক। ১০৫ রানে ৬ উইকেট হারানো আবাহনীর বিপর্যয়ে মাশরাফিকে সাথে নিয়ে ৯৮ রানের জুটি গড়েন মোসাদ্দেক। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে ৪১ রান করে রানআউট হয়ে যান। এরপর বল হাতে ৮ ওভার বোলিং করে ১ টি মেডেনসহ ২০ রানের বিনিময়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট। এই স্পেলে মোসাদ্দেক ডট বল করেছেন ৩২টি। ইকোনোমি ২.৫০। এছাড়া কলাবাগানের সর্বোচ্চ স্কোরার মোক্তার আলীকে রান আউট করেন মোসাদ্দেক। 

সাভারে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৩ নম্বর মাঠে সকালে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন কলাবাগান ক্রীড়া চক্র। ৪ রানের মাথায় ০ রানে সাইফ হাসানকে আউট করে সিদ্ধান্তকে যথার্থ প্রমাণ করেন শাহাদত হোসেন রাজিব। এরপর ক্রিজে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। অন্যদিকে আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়ও বেশিক্ষণ টিকতে পারেন নি। দলীয় ৩৭ রানের মাথায় ৩০ বলে ১৭ রান করে আউট হোন বিজয়। শান্ত এক প্রান্ত আগলে রাখলেও নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে আবাহনী। ৭৬ রানে টপ অর্ডারের ৪ ব্যাটসম্যান হারায়। অধিনায়ক নাসির হোসেন আউট হোন ১২ রানে। তবে অর্ধশতক করে ৫৫ রানে আউট হয়েছেন শান্ত।

Also Read - ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত মাশরাফি ম্যাচসেরা

মোহাম্মদ মিঠুন ও শচীন রানাও খুব বেশি সুবিধা করতে পারেন নি। ২৯.৫ ওভারে ১০৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে আবাহনী যখন বিপদের মুখে তখন বড় জুটি করেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মাশরাফি বিন মূর্তজা। রানের গতি বাড়ানোর পাশাপাশি দলকে লড়াই করার মতো অবস্থানে নিয়ে যান এই দুই ক্রিকেটার। দলীয় ২০৩ রানের মাথায় মোসাদ্দকের রান আউটের মাধ্যমে এই জুটি ভাঙ্গে। ৭৩ বলে গুরুত্বপূর্ণ ৪১ রান করেন মোসাদ্দেক। অন্যদিকে ৫৪ বলে ৬৭ রান করেছেন মাশরাফি। ইনিংসে ৩ টি চারের পাশাপাশি ৫টি ছক্কা মারেন বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক।

৪৯.৫ ওভারে সব উইকেটে হারিয়ে ২১৫ রান করে আবাহনী লিমিটেড। কলাবাগানের পক্ষে মোক্তার আলী ৩টি, জাতিন, আবুল হাসান ও শাহাদত হোসেন ২টি করে উইকেট নেন।

২১৬ রানের টার্গেটে শুরুটা মোটেই ভালো হয় নি কলাবাগানের। মাত্র ৩৩ রানেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান হারায় তারা। দুইটি উইকেট নেন মাশরাফি অপর উইকেটটি নেন জাতীয় দলের আরেক পেসার তাসকিন আহমেদ। প্রাথমিক এই বিপর্যয় কাটাতে লড়াই করেন মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। মোহাম্মদ আশরাফুল, তাইবুর রহমান, মাহমুদুল হাসান, মোক্তার আলীরা সূচনা পেলেও কেউ বড় ইনিংস খেলতে পারেন নি। যার ফলে ৪৮.১ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে কলাবাগান করে ১৮১ রান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন মোক্তার আলী। এছাড়া মাহমুদুল হাসান ৩৮, তাইবুর রহমান ২৬ ও মোহাম্মদ আশরাফুল ২৫ রান করেন। আবাহনীর পক্ষে ৯.২ ওভার বোলিং করে ৪৯ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। এছাড়া ৩০ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
আবাহনী লিমিটেডঃ ২১৫/১০ (৪৯.৫ ওভার)
মাশরাফি বিন মুর্তজা ৬৭, নাজমুল হোসেন শান্ত ৫৫, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৪১
মোক্তার আলী ৩/৪৭

কলাবাগান ক্রীড়া চক্রঃ ১৮১/১০ (৪৮.১ ওভার) 
মোক্তার আলী ৪০, মাহমুদুল হাসান ৩৮, তাইবুর ২৬ ও মোহাম্মদ আশরাফুল ২৫
মাশরাফি বিন মুর্তজা ৪/৪৯, তাসকিন ৩/৩০, মোসাদ্দেক ১/২০

ফলাফলঃ আবাহনী লিমিটেড ৩৬ রানে জয়ী। 
ম্যাচসেরাঃ মাশরাফি বিন মুর্তজা। 

Related Articles

ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত মাশরাফি ম্যাচসেরা

ব্যাটে-বলে সৌম্যের জবাব

‘সবার আগে দরকার দর্শক ফিরিয়ে আনা’

২০ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে ডিপিএল

Leave A Comment