SCORE

Trending Now

ঢাকা টেস্ট : ব্যাটিংয়ে আসা-যাওয়ার মিছিল, বড় পরাজয়

Share Button

মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে যেন প্রথম ইনিংসের পুনরাবৃত্তি ঘটল দ্বিতীয় ইনিংসে। শ্রীলঙ্কার বোলারদের সামনে যেন অসহায় আত্মসমর্পণ করলেন বাঙ্গালদেশের ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ইনিংসে ১১০ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে অলআউট মাত্র ১২৩ রান করে।

বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য ছিল ৩৩৯। এর আগে মিরপুরে ২০৯ রানের বেশি স্কোর তাড়া করে জেতার রেকর্ড নেই। রেকর্ড গড়ে জিততে হতো বাংলাদেশকে। পিচ পুরোপুরি স্পিন বান্ধব। লঙ্কান স্পিনারদের ধাঁধা প্রথম ইনিংসে ধরতেই পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যতিক্রম ঘটল না। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা এলেন আর গেলেন। রচিত হলো হতাশায় ভরা পরাজয়ের কাব্য।

ইমরুল কায়েসের ক্যাচ ধরে ডিকওয়েলার উল্লাস
ইমরুল কায়েসের ক্যাচ ধরে ডিকওয়েলার উল্লাস

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই শুরু হয় উইকেটের পতন। দিলরুয়ান পেরেরার বলের লাইন ধরতে পারেননি তামিম ইকবাল। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও হলেন ব্যর্থ। এরপর মুমিনুল হককে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেওয়ার প্রচেষ্টা করেন ওপেনার ইমরুল কায়েস। ইছুতা দ্রুতগতিতে রান তুলতে চাইছিলেন দুজন। তবে কিছুক্ষণ পরপরই উইকেটের সুযোগের সৃষ্টি করছি শ্রীলঙ্কার বোলাররা। ৪৬ রানের জুটি গড়লেও খুব যে সাবলীল ব্যাটিং করেছেন তা নয়।

Also Read - ফিরলেন সাকিব-সৌম্য, দলে পাঁচ নতুন মুখ

দলীয় ৪৯ রানের মাথায় রঙ্গনা হেরাথের বল ইমরুল কায়েসের ব্যাট ছুঁয়ে জমা পড়ে নিরোশান ডিকওয়েলার গ্লাভসে। দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুমিনুল হককেও অনেকটা একই ভাবে আউট করেন হেরাথ। ৪৭ বলে ৩ চারে ইনিংসের সর্বোচ্চ ৩৩ রানের ইনিংস খেলেন মুমিনুল হক।

দলীয় ৬৪ রানের মাথায় মুমিনুলের বিদায়ে বাড়তে থাকে শঙ্কার মেঘ। প্রথম টেস্টে অর্ধশতক হাঁকানো লিটন দাসের ব্যাটিং শুরুতে ছিল বেশ ইতিবাচক। তবে ইনিংস লম্বা করতে পারেননি তিনি। ১২ রান করে আকিলা ধনঞ্জয়ার বলে ক্যাচ দেন কুশল মেন্ডিসকে। হঠাৎ লাফিয়ে ওঠা বল বুঝতে পারেননি লিটন।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মুশফিকুর রহিম কিছু বাউন্ডারি হাঁকিয়ে চাপ দূর করতে চাইলেও জুটি ২২ রানেই ভেঙেই যায়। ডাউন দ্যা উইকেটে এসে ধনঞ্জয়ার বল ঠেকাতে চেয়েছিলেন রিয়াদ। কিন্তু বল ব্যাট ছুঁয়ে চলে যায় স্লিপে থাকা দিমুথ করুনারাত্নের হাতে। এরপর শুরু হয় আসা-যাওয়ার মিছিল। পরের ওভারে রঙ্গনা হেরাথকে ক্রিজ থেকে হালকা বের হয়ে এসে ড্রাইভ করতে গিয়ে স্টাম্পিং হন মুশফিকুর রহিম।  প্রথম ইনিংসে ০ রান করা সাব্বির ফিরে যান ১ রান করে। তাকে ফেরান ধনঞ্জয়া। এরপর ধনঞ্জয়া ফিরিয়ে দেন আব্দুর রাজ্জাক ও মেহেদি হাসান মিরাজকে। তাইজুল ইসলামকে আউট করে ২১৫ রানের বিশাল জয় নিশ্চিত করেন হেরাথ।

এর আগে সকালে ব্যাটিংয়ে নেমে শেষ দুই উইকেটে ২৬ রান যোগ করতে সক্ষম হয় শ্রীলঙ্কা। সুরাঙ্গা লাকমল ও রঙ্গনা হেরাথের উইকেট নেন তাইজুল ইসলাম। ৭০ রান করে অপরাজিত ছিলেন রোশেন সিলভা।

অভিষিক্ত আকিলা ধনঞ্জয়া প্রথম ইনিংসে শিকার করেছিলেন তিন উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে নেন পাঁচটি। দুই টেস্টের চার ইনিংসের চারটিতেই পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস খেলে রোশেন সিলভা হন সিরিজসেরা। ঢাকা টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ১২৬ করা রোশেনের হাতে উঠে ম্যাচসেরার পুরষ্কারও।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ঃ শ্রীলঙ্কা ২২২/১০, প্রথম ইনিংস, ৬৫.৩ ওভার
মেন্ডিস ৬৮, রোশেন ৫৬, দিলরুয়ান ৩১
রাজ্জাক ৪/৬৩, তাইজুল ৪/৮৩, মুস্তাফিজুর ২/১৭

বাংলাদেশ ১১০/১০, প্রথম ইনিংস, ৪৫.৩ ওভার
মিরাজ ৩৮, লিটন ২৫, রিয়াদ ১৭
ধনঞ্জয়া ৩/২০, লাকমল ৩/২৫, দিলরুয়ান ২/৩২

শ্রীলঙ্কা ২২৬/১০, দ্বিতীয় ইনিংস, ৭৩.৫ ওভার
রোশেন ৭০*, করুনারাত্নে ৩২, চান্দিমাল ৩০
তাইজুল ৪/৭৬, মুস্তাফিজুর ৩/৪৯, মিরাজ ২/৩৭

বাংলাদেশ ১২৩/১০, দ্বিতীয় ইনিংস, ২৯.৩ ওভার
মুমিনুল ৩৩, মুশফিক ২৫, ইমরুল ১৭
ধনঞ্জয়া ৫/২৪, হেরাথ ৪/৪৯, দিলরুয়ান ১/৩২

Related Articles

এমন উইকেটে প্রথমবার রাজ্জাক

ঢাকা টেস্ট : টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় বাংলাদেশের হাসি ম্লান

ঢাকা টেস্ট : ধুকঁছে শ্রীলঙ্কা

ঢাকা টেস্ট : রাজ্জাকের ঘূর্ণিতে প্রথম সেশন বাংলাদেশের

সিরিজ জয়ের খরা কাটাতে চান রিয়াদ

Leave A Comment