SCORE

Trending Now

বরফের দেশে ক্রিকেট উত্তাপ

Share Button

ক্রিকেট মাঠের সবুজ ঘাসের ছিঁটেফোঁটাও নেই। পুরো মাঠ জুড়ে সাদা বরফ। সুইজারল্যান্ডের সেন্ট মরিজের তীব্র ঠান্ডাতেই হলো ব্যাট-বলের উত্তপ্ত লড়াই। বরফের ময়দানে মুখোমুখি হলেন ভিরেন্দর শেবাগ-শোয়েব আখতার। 

আট এবং নয় ফেব্রুয়ারি – দুই দিন ব্যাপী হয়েছে আইস ক্রিকেট। দুই ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলেছে প্যালেস ডায়মন্ডস আর রয়্যালস। প্যালেস ডায়মন্ডসের অধিনায়কত্ব করেছেন ভিরেন্দর শেবাগ। তার সাথে ছিলেন তিলাকরত্নে দিলশান, মাহেলা জয়াবর্ধনে, মাইক হাসি, জহির খান, মোহাম্মদ কাইফ, অ্যান্ড্রু সায়মন্ডস, লাসিথ মালিঙ্গার মতো তারকারা। অন্যদিকে রয়্যালসের নেতৃত্বে ছিলেন শহীদ আফ্রিদি। গ্রায়েম স্মিথ, জ্যাক ক্যালিস, নাথান ম্যাককালাম, ড্যানিয়েল ভেট্টোরি, মন্টি পানেসার এবং শোয়েব আখতাররা খেলেছেন রয়্যালসের জার্সিতে।

শুক্রবার সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ তে প্যালেস ডায়মন্ডসকে আট উইকেটে হারিয়েছে রয়্যালস। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ডায়মন্ডস। দ্বিতীয় ওভারেই বিদায় নেন তিলাকরত্নে দিলশান। তাকে ফেরান আবদুল রাজ্জাক। পরের বলে আরেক লঙ্কান মাহেলা জয়াবর্ধনেকেও ফিরিয়ে দেন আবদুল রাজ্জাক। এরপর ঝড় তুলেন ভিরেন্দর শেবাগ। সবুজ গালিচায় ব্যাট হাতে খেলেন ২২ বলে ৪৬ রানের ইনিংস। সেই ইনিংসে ছিল নয়টি চার আর একটি ছয়। ৬৫ রানের মাথায় তাকে আউট করেন ইলিয়ট।

Also Read - শেষ বলে জিতল প্রাইম দোলেশ্বর

মাইক হাসি ভয়ঙ্কর হয়ে উঠার আগেই ভেট্টোরির বলে ইলিয়টের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান। ২১ বলে ১৮ রান করেন তিনি। শেষে ঝড় তুলেন সায়মন্ডস আর কাইফ। ৪২ বলে ৬৭ রান করেন সাইমন্ডস। আর কাইফের ব্যাট থেকে আসে ৩০ বলে ৫৭ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ২০৫ রান করে ডায়মন্ডস।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ম্যাট প্রায়র এসেই মারকুটে ব্যাটিং করা শুরু করলেও তার ইনিংস স্থায়ী হয় মাত্র ৬ বল। ৬ বলে ১১ রান করেন ফিরেন তিনি। এরপর চলে জ্যাক ক্যালিসের দাপট। বরফের আস্তরণের উপর দিয়ে হাঁকান ১৩ চার। ছক্কা মারেন ৪ টি। ৩৭ বলে করেন ৯০ রান। দ্বিতীয় উইকেটে তার সাথে ৮৪ রানের জুটির সঙ্গী গ্রায়েম স্মিথের ব্যাট থেকে আসে ৩৬ বলে ৫৮ রান। এরপর তাকে সঙ্গ দেন ওয়াইজ সাহা। ২১ বলে ৪৩ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন তিনি। আট উইকেট ও বিশ বল হাতে রেখেই ম্যাচ জিতে যায় রয়্যালস।

বৃহস্পতিবার প্রথম টি-২০ তে ভিরেন্দর শেবাগের ৩১ বলে ৬২ আর কাইফের ৩০ বলে ৪০ রানের ইনিংসে ভর করে রয়্যালসকে ১৬৫ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল প্যালেস ডায়মন্ডস। ৪ উইকেট নিয়েছিলেন আবদুল রাজ্জাক। ওয়াইজ শাহের ৩৪ বলে ৭৪ রানের ইনিংসে ভর করে ২৮ বল আগেই জয় ছিনিয়ে নেয় প্যালেস।

Related Articles

শহীদ দিবসে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানালেন ক্রিকেটাররা

ভক্তের ভালোবাসায় আপ্লুত তামিম

দাপুটে জয়ে নারিশ কর্পোরেট টুর্নামেন্ট শুরু পপুলারের

বক্তব্য দেওয়া হলো না শচীনের

টি-১০ টেস্টের প্রস্তাব ওয়াকারের

Leave A Comment