SCORE

সর্বশেষ

মুশফিক-নাঈমের ব্যাটিং নৈপুণ্যে জয় রূপগঞ্জের

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ করেছে বাংলাদেশ। দলে অন্তর্ভুক্ত ক্রিকেটাররা কয়েকদিন বিশ্রামে থেকে নেমে পড়েছেন আবারো মাঠে। জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটারই খেলছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এর বিভিন্ন দলের হয়ে। টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ করে মাঠে নেমেছেন সদ্য বাবা হওয়া মুশফিকুর রহিম।

মুশফিক-নাঈমের ব্যাটিং নৈপুণ্যে জয় রূপগঞ্জের

ডিপিএলের এবারের আসরে প্রথম ম্যাচ খেলতেই নেমেই জয়ের দেখা পেয়েছে তাঁর দল লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। ডিপিএলের আগের আসরেও এই দলের হয়ে খেলেছিলেন তিনি। তবে আগের আসরে মুশফিক অধিনায়কের দায়িত্বে থাকলেও এবারের আসরে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নাঈম ইসলাম।

Also Read - এক সিরিজ দিয়েই টাইগারদের বিচার করতে নারাজ মাশরাফি

বৃহস্পতিবার প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ করেছিলেন রূপগঞ্জের ওপেনার আব্দুল মজিদ ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাইম। উদ্বোধনী জুটিতেই এসেছে ৫২ রান। অভিষিক্ত নাইম ২৭ রানে আউট হয়ে গেলে ক্রিজে আসেন অধিনায়ক নাঈম ইসলাম। মজিদকে সঙ্গে নিয়ে ৭৮ রানের জুটি গড়েন তিনি।

ব্যক্তিগত ৫৯ রান করে মজিদ ফিরে গেলে নাঈমকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে আসেন মুশফিক। দুই জনের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে যায় দল রূপগঞ্জ। দলীয় সংগ্রহ যখন ১৫০ এর বেশি তখন অর্ধশতক হাঁকান নাঈম। তাঁর পরেই ৫৫ বলে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অর্ধশতক হাঁকান মুশফিকুর রহিম। নাঈম-মুশফিকের ৯২ রানের জুটি ভাঙে দলীয় ২২২ রানে।

৭৮ রান করা নাঈমকে ফেরান ফরহাদ রেজা। তাঁর বিদায়ের পর দলীয় ২৪ রান যোগ করতেই ব্যক্তিগত ৬৭ বলে ৬৫ রান নিয়ে আউট হন মুশফিক। শেষপর্যন্ত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৭২ রান সংগ্রহ করে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট পান আরাফাত সানি।

রূপগঞ্জের দেওয়া ২৭৩ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় প্রাইম দোলেশ্বর। ব্যক্তিগত দুই রান নিয়েই সাজঘরে ফিরেন উইকেটরক্ষক লিটন দাস। অবশ্য ফজলে ও ইমতিয়াজের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টাও করে প্রাইম দোলেশ্বর। তবে দলীয় ৪৬ রানে ৩৫ রান করা ইমতিয়াজকে সাজঘরে ফেরান মোশারফ হোসেন।

৬ রান করে সাজঘরে ফিরেন মার্শাল আয়ুব। দলীয় ৮০ রানে ফজলে ও ফরহাদ হোসেনকে হারালে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় প্রাইম দোলেশ্বর।  অধিনায়ক ফরহাদ রেজা কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করলেও সেটি থেমে যায় দলীয় ১২০ রানে। তবে শরিফুল্লাহর ৪১ রানে শেষ পর্যন্ত ২১৭ রানে ইনিংস থামে প্রাইম দোলেশ্বরের।

রূপগঞ্জের হয়ে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট পান মোশারফ হোসেন ও তিনটি উইকেট পান আসিফ হাসান। এই জয়ে ৫ ম্যাচে তিন জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর;
লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ২৭২/৭ (ওভার ৫০)

নাঈম ৭৮, মুশফিক ৬৫ঃ আরাফাত ৩-৪০

প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব ২১৭ (ওভার ৪৭.৫)

শরিফুল্লাহ ৪১, ইমতিয়াজ ৩৫ঃ মোশারফ ৪-৪০

ফলাফলঃ ৫৫ রানে জয়ী লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ।

ম্যাচ সেরাঃ নাঈম ইসলাম (লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ)

আরও পড়ুনঃ এখন অনেক ভালো অবস্থায় আছি’  

Related Articles

উপরের দিকে চোখ শান্ত’র

অসুস্থ রুবেল, দোয়া চাইলেন সবার কাছে

বোলিং অ্যাকশন নিয়ে বাড়ছে সচেতনতা

দুঃসময়ে তরুণদের পাশে মাশরাফি

নির্ভার থাকার জন্যই অধিনায়কত্ব করেননি মাশরাফি