SCORE

সর্বশেষ

দুই প্রাইমের লড়াইয়ে নায়ক মার্শাল আইয়ুব

চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মঙ্গলবার দুর্দান্ত এক শতক হাঁকিয়েছেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মার্শাল আইয়ুব। ১২৮ বলে ১৩৫ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলে দুই প্রাইমের লড়াইয়ে তিনি হয়েছেন ম্যাচ-সেরা। যদিও ম্যাচে তার দল প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব, প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের কাছে হেরে গেছে ১ উইকেটের ব্যবধানে।

দুই প্রাইমের লড়াইয়ে নায়ক মার্শাল আইয়ুব
মার্শাল আইয়ুব। ফাইল ছবি

নাটকীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৮৬ রান সংগ্রহ করে দোলেশ্বর। মার্শাল আইয়ুবের দারুণ শতকে ভর করেই দলটি পায় লড়াকু পুঁজি। তার ঐ ইনিংসে ছিল ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা। এছাড়া ৫৩ বলে ৬৭ রান করে অপরাজিত ছিলেন ফরহাদ হোসেন। টপ অর্ডারের নির্ভরযোগ্য সেনানী ফজলে মাহমুদের ব্যাট থেকে আসে ৪৫ রান। প্রাইম ব্যাংকের পক্ষে শরিফুল ইসলাম, নাহিদুল ইসলাম, ইউসুফ পাঠান ও মনির হোসেন একটি করে উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দুই ওপেনার মেহেদি মারুফ ও মেহরাব হোসেন জুনিয়রের ব্যাটিং দৃঢ়তায় উদ্বোধনী জুটিতে ১৪৭ রানের মজবুত ভিত পায় প্রাইম ব্যাংক। তবে মারুফ ৮২ ও শতক হাঁকানো মেহরাব ১০২ রান করে সাজঘরে ফিরে গেলে খেই হারায় দলটির ব্যাটিং লাইনআপ। একের পর এক উইকেট হারাতে থাকলে একপর্যায়ে চেপে বসে হারের শঙ্কা। তবে দলকে সেই হারী লজ্জা থেকে বাঁচান সাজ্জাদুল হক। অন্য ব্যাটসম্যানরা যখন ব্যস্ত ছিলেন আসা-যাওয়ার মধ্যে, সেখানে তিনি একাই করেন ৫১ রান, তাও মাত্র ৩৮ বল খেলে। ২৭৭ রানে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে তার বিদায়ের পর আবারও ব্যাকফুটে চলে যায় দল। তবে শেষ পর্যন্ত ২ বল বাকি থাকতেই ১ উইকেটের কষ্টার্জিত জয় পায় প্রাইম ব্যাংক।

Also Read - মাশরাফির ৪ বলে ৪ উইকেট!

সংক্ষিপ্ত স্কোর

প্রাইম দোলেশ্বর ২৮৬/৫ (৫০ ওভার)
মার্শাল ১৩৫, ফরহাদ ৬৭, ফজলে ৪৫
ইউসুফ ১৯/১, নাহিদুল ২৬/১

প্রাইম ব্যাংক ২৮৭/৯ (৪৯.৪ ওভার)
মেহরাব ১০২, মারুফ ৮২, সাজ্জাদুল ৫১
মামুন ৪৬/২, শরীফউল্লাহ্‌ ৪৭/২

ফল- প্রাইম ব্যাংক ১ উইকেটে জয়ী।

আরও পড়ুনঃ টিভি পর্দায় নিদাহাস ট্রফি

Related Articles

উপরের দিকে চোখ শান্ত’র

অসুস্থ রুবেল, দোয়া চাইলেন সবার কাছে

বোলিং অ্যাকশন নিয়ে বাড়ছে সচেতনতা

দুঃসময়ে তরুণদের পাশে মাশরাফি

নির্ভার থাকার জন্যই অধিনায়কত্ব করেননি মাশরাফি