শেষ ওভারের নাটক!

শ্বাসরূদ্ধকর এক ম্যাচ। ম্যাচের ভাগ্য দুলছে পেন্ডুলামের মতো। এমন ম্যাচের শেষ ওভার ছিল নাটকীয়তায় ভরপুর। আম্পায়ার নো বল না দেয়ায় বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ওয়াকআউটের জন্য সাকিবের আহ্বান। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটিং বীরত্ব। বাঁধভাঙা উল্লাস, টাইগারদের সর্পনৃত্য। সব মিলিয়ে শেষ ওভার ছিল নাট্যমঞ্চ।

তখন টানটান উত্তেজনা।  ছয় বলে বাংলাদেশের প্রয়োজন বারো রান। ইসুরু উদানা শেষ ওভারের প্রথম বলেই দিয়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমানের কাঁধের ওপরে এক বাউন্সার। সেটি ব্যাটে লাগাতে পারেননি মুস্তাফিজ। পরের বলেও আরেক বাউন্সার। এবারেরটা আরেকটু বেশি উঁচুতে। সেই বলে বোলিং প্রান্তে রান আউটও  হন মুস্তাফিজুর। নিয়মানুসারে দ্বিতীয় বলটি হওয়ার কথা নো বল। কিন্তু আম্পায়ার দেননি।

টাইগারদের সর্পনৃত্য
টাইগারদের সর্পনৃত্য

নো বল না দেয়ার পর আম্পায়ারের সাথে আলাপচারিতা করতে দেখা যায় ক্রিজে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে ডাগ-আউটেও। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন এবং দলের অন্যান্য ক্রিকেটাররা চলে আসেন বাউন্ডারির কাছাকাছি।

Also Read - রিয়াদের বীরত্বে নাটকীয় ম্যাচ জিতে ফাইনালে বাংলাদেশ

উত্তেজিত অবস্থায় দেখা যায় অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে। ম্যাচ রেফারির সাথে হয় উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়। নো বলের বিষয়ে অভিযোগ করতে থাকেন সাকিব আল হাসান। এক সময় হাত দিয়ে ইশারা দিয়ে ক্রিজে থাকা দুই ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং রুবেল হোসেনকে ডাকেন তিনি। তাদেরকে ওয়াকআউট করার জন্য ডাকেন সাকিব।

অধিনায়কের আহ্বানে হেলমেটও খুলেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।  এরপর পরিস্থিতি সামাল দেন খালেদ মাহমুদ সুজন। ম্যাচশেষ করে মাঠ ছাড়তে বলেন রিয়াদকে। এরপর আবার হেলমেট পড়ে উইকেটে যান রিয়াদ।

তখন টাইগারদের প্রয়োজন ১২ রান। হাতে চার বল। ওয়াইডের দাগঘেষা এক ইয়োর্কারে দারুণ শটে চার মারেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেই চারের পরও জয় থেকে দূরে আট রান। তবে বাউন্ডারির উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে টাইগারদের মাঝে। শুরু হয় উল্লাস। পরের বলে দুই রান নিয়ে নিজের কাছে স্ট্রাইক রাখেন রিয়াদ। দুই রানের জন্য দৌড়েছিলেন প্রাণপণে, সফলও হন। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ তখন দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ চোয়ালে লড়ছেন।  উদানার লো ফুলটসকে ফ্লিক করে ছক্কা হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করেন রিয়াদ।

শুরু হয়ে যায় বাঁধভাঙা উল্লাস। টাইগাররা উদযাপন করেন সর্পনৃত্যে। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ১৮ বলে ৪৩ রানের ব্যাটিং বীরত্বে জয় পায় বাংলাদেশ।

ম্যাচশেষে শেষ ওভারের উত্তেজনা নিয়ে কথা বলেন তামিম ইকবাল। তামিম মনে করেন তিনি দেখেছেন লেগ আম্পায়ার নো বল দিয়েছিলেন। তামিম বলেন, “অনেক আবেগপূর্ণ সমাপ্তি। আমরা দেখেছিলাম লেগ আম্পায়ারকে নো বল দিতে। আমরা নো বল নিয়ে অভিযোগ করছিলাম। তবে এটা আমরা আরো ভালোভাবে করতে পারতাম। আমরা এ ঘটনা নিয়ে আর কিছু করব না।”