SCORE

সর্বশেষ

পিএসএলের চ্যাম্পিয়ন ইসলামাবাদ ইউনাইটেড

পাকিস্তান সুপার লিগ- পিএসএলের তৃতীয় আসরের শিরোপা জিতেছে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। এর আগে প্রথম আসরেও শিরোপা জিতেছিল দলটি। দ্বিতীয় আসরের চ্যাম্পিয়ন পেশোয়ার জালমিকে ৩ উইকেটে হারিয়ে রোববার চ্যাম্পিয়ন তকমা গায়ে লাগায় ইসলামাবাদ।

পিএসএলের চ্যাম্পিয়ন ইসলামাবাদ ইউনাইটেড

ইনজুরির কারণে এই ম্যাচে পেশোয়ারের হয়ে খেলতে পারেননি বাংলাদেশের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল। দলের আরেক বাংলাদেশি খেলোয়াড় সাব্বির রহমান স্কোয়াডের সাথে থাকলেও ছিলেন না একাদশে। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান সংগ্রহ করে পেশোয়ার। আগের ম্যাচগুলোর সফল ব্যাটসম্যান কামরান আকমল এদিন ৯ বল খেলে মাত্র ১ রান করে বিদায় নিলে শুরুতেই চাপ ভর করে বসে পেশোয়ারের উপর, যে চাপ থেকে শেষপর্যন্ত আর বের হতে পারেনি দলটি।

Also Read - সিকান্দার রাজার আবেগঘন বক্তব্য

দলের পক্ষে ক্রিস জর্ডান ৩৬, লিয়াম ডওসন ৩৩, ওয়াহাব রিয়াজ অপরাজিত ২৮ এবং ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ২১ রান করে। ইসলামাবাদের পক্ষে শাদাব খান তিনটি, হুসাইন তালাত ও সামিত প্যাটেল দুটি এবং মোহাম্মদ সামি ও ফাহিম আশরাফ একটি করে উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা ইসলামাবাদ ইউনাইটেডকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার লুক রনকি (৫২) ও শাহিবজাদা ফারহান (৪৪)। দুজনের ৯৬ রানের উদ্বোধনী জুটিতেই জয়ের ভিত পেয়ে যায় দলটি। তবে এরপর ৫২ রানের মধ্যে ৭ উইকেট হারিয়ে বসলে একটু বেগ পেতে হয় জয় তুলে নিতে। শেষদিকে আসিফ আলীর ৬ বলে ২৬ রানের ইনিংস ১৯ বল বাকি থাকতেই ইসলামাবাদকে এনে দেয় ৩ উইকেটের জয়।

পেশোয়ারের পক্ষে হাসান আলী, ওয়াহাব রিয়াজ এবং ক্রিস জর্ডান দুটি করে উইকেট শিকার করেন। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন লুক রনকি। আসরের সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পেশোয়ার জালমি ১৪৮/৯ (২০ ওভার)
জর্ডান ৩৬, ডওসন ৩৩, ওয়াহাব ২৮*
শাদাব ২৫/৩,তালাত ১৮/২

ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ১৫৪/৭ (১৬.৫ ওভার)
রনকি ৫২, ফারহান ৪৪, আসিফ ২৬*
জর্ডান ২২/২, ওয়াহাব ২৮/২

ফল- ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ৩ উইকেটে জয়ী।

আরও পড়ুনঃ কলঙ্কের ম্যাচে অজিদের শোচনীয় পরাজয়

Related Articles

পিএসএলে তামিমদের দাপুটে জয়