পিএসএলে টিকে থাকার লড়াইয়ে মুখোমুখি তামিম-রিয়াদের দল

পাকিস্তান সুপার লিগ- পিএসএলের বাঁচা-মরার লড়াইয়ে এবার মাঠে নামবেন দুই বাংলাদেশি ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ্‌ রিয়াদ। তামিমের দল পেশোয়ার জালমি ও রিয়াদের দল কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের মধ্যকার এই ম্যাচটি শুরু হবে মঙ্গলবার সন্ধ্যায়।

পিএসএল: টিকে থাকার লড়াইয়ে মুখোমুখি তিন বাংলাদেশির দল

আসরে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই কোনো দলেরই। এলিমিনেটর-১ এর এই ম্যাচের জয়ী দল এলিমিনেটর-২ এ মুখোমুখি হবে করাচি কিংসের। এলিমিনেটর-২ এর বিজয়ী দল ফাইনালে ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের মোকাবেলা করবে।

Also Read - সোহানকে গালি দিয়েছিলেন থিসারা!

নিদাহাস ট্রফির কারণে চলতি মাসের শুরুতে পিএসএল ছেড়ে জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দেন তামিম, সাব্বির ও রিয়াদ। যতদিন খেলেছিলেন, ততদিন দলে জায়গা পোক্তই ছিল তামিমের। তাই মঙ্গলবারের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচকে সামনে রেখে তাকে নিয়ে পেশোয়ার জালমির ইতিবাচক পরিকল্পনা থাকারই কথা। অন্যদিকে সাব্বির বা রিয়াদের কেউই ছিলেন না তত ধারাবাহিক। যদিও নিদাহাস ট্রফিতে দুজনই সমীহ জাগানিয়া পারফরমেন্স প্রদর্শন করেছেন। তাতে রিয়াদের জন্য একাদশের দরজা খোলে গেলেও সাব্বিরের অবশ্য সেই সুযোগ নেই। নিদাহাস ট্রফি শেষ করে দলে সঙ্গে ঢাকা ফিরে এসেছেন তিনি।

রোববার রাতে পর্দা নামা নিদাহাস ট্রফি শেষে সোমবারই দেশে ফিরে আসে বাংলাদেশ দল। তবে পিএসএলের জন্য তামিম ও রিয়াদ উড়াল দেন লাহোরে। পিএসএলের লিগ পর্বের ম্যাচগুলো সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হলেও শেষদিকের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলোর ভেন্যু খোদ পাকিস্তানই।

বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় শুরু হতে যাওয়া প্রথম এলিমিনেটরের ম্যাচটির ভেন্যু লাহোরের ঐতিহাসিক গাদ্দাফি স্টেডিয়াম। এই ম্যাচে পরাজয় মানে আসর থেকে বাদ পড়া, আর তাই নির্দ্বিধায় জমজমাট এক লড়াই-ই প্রত্যক্ষ করতে যাচ্ছে লাহোর।

উল্লেখ্য, এর আগে কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল লিগ পর্বে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দুই দল করাচি কিংস ও ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। ঐ ম্যাচে করাচি কিংসকে হারিয়ে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড নিশ্চিত করে ফাইনাল ম্যাচে অংশগ্রহণ। মঙ্গলবারের জয়ী দল ও করাচি কিংসের মধ্যকার লড়াই থেকে বাছাই করা হবে দ্বিতীয় ফাইনালিস্ট। টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৫ মার্চ।

আরও পড়ুনঃ এমন বাংলাদেশকে দেখে খুব ভালো লেগেছে: বোর্ড সভাপতি