SCORE

সর্বশেষ

বাংলাদেশকে ফারব্রেস এর ‘না’

সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল, মঞ্চও প্রস্তুত ছিল। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নেয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে পাশার দান উল্টে দিয়ে পারিবারিক কারণে বাংলাদেশকে ফিরিয়ে দিলেন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের সহকারী কোচ পল ফারব্রেস।

ক্রিকইনফো এর সূত্র অনুযায়ী, গত সপ্তাহেও বাংলাদেশের কোচ হওয়ার পাকাপাকি কথা ছিল ফারব্রেসের। চুক্তির কাগজ পাঠানোর পরই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড  (বিসিবি) কে না বলে দেন এই কোচ। তবে বিসিবি ও পল ফারব্রেস এ বিষয়ে এখনও মুখ খোলেন নি।

Also Read - বিমান দুর্ঘটনায় ক্রিকেটারদের শোক

৪০টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলা ফারব্রেস ইংল্যান্ডের সহকারী কোচ হিসেবে এই মুহূর্তে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কান দলের টিম বাসে সন্ত্রাসী হামলার সময় টিম বাসেও ছিলেন তিনি।

নিদাহাস ট্রফির আগে প্রধান কোচ নিয়োগ দেওয়ার কথা থাকলেও সম্ভব হয়নি সেটি। ফলে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠেয় নিদাহাস ট্রফির জন্য বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশকে। তবে বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন শীঘ্রই নিয়োগ দেওয়া হবে নতুন কোচ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইতিহাস গড়া জয়ের পরের দিন মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেছিলেন তিনি। কে কোচ হবেন সেটি এখনো চূড়ান্ত না হলেও এই মাসের মধ্যেই সবকিছু ঠিকঠাক করে ফেলবেন বলে আশ্বাসও দিয়েছিলেন সে সময়। সেই সাথে আগামী মাস, এপ্রিলে দলের সঙ্গে যোগ দিবেন নতুন কোচ এমনটা জানিয়েছিলেন পাপন।

‘এই সিরিজের পরেই আমরা চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে যাব। সব প্রার্থীদের সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হবে। আমরা বোর্ডের কর্মকর্তারা সবাই এখানেই থাকছি। এখনো যেহেতু সব ঠিকঠাক হয়নি সেই জন্য চূড়ান্তভাবে কিছুই বলতে চাচ্ছি না। সাক্ষাৎকারের জন্য দুই থেকে তিনজনকে ডাকা হবে এবং সব কিছুই এই মাসের মধ্যে চূড়ান্ত করা হবে। আশা করছি এপ্রিলে দলের সঙ্গে যোগ দিবে নতুন কোচ।’

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে শ্রীলঙ্কার কোচ হওয়ায় অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন এবারও হয়ত শ্রীলঙ্কা থেকে কোচ আনা হবে। তবে সেটি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিসিবি প্রধান। লঙ্কা থেকে আনা হচ্ছে না কোন কোচ।

‘এখন এটি বলা কঠিন। তারা সবাই বিভিন্ন দেশ থেকে আসছে তবে তাঁদের কেউই শ্রীলঙ্কান নয়।’

শ্রীলঙ্কান কড়া হেডমাস্টার চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিদায়ের পর থেকেই একজন ভালো কোচের জন্য হন্যে বিসিবি। বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের কারণে জাতীয় দলের জন্য ভালো কোচ পাওয়া অনেকটা আমাবস্যার চাঁদ হাতে পাওয়ার মতই। সব কোচই ভালো পারিশ্রমিক আর সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য এসব ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের দলগুলোর কোচ হিসেবে কাজ করতেই আগ্রহী। পিকনিক মুডে কাজ করে সেসব জায়গায় মাস দুয়েকের অল্প সময়ে কাড়ি কাড়ি টাকা কামিয়ে নেয়া খুবই সহজ বিষয়। স্পিন ও ব্যাটিং পরামর্শক খুঁজতে গিয়েও পড়তে হয়েছে একই সমস্যার মধ্যে।

উচ্চ পারিশ্রমিক দাবি করে বসছেন বেশিরভাগ কোচই। অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন তো বছরে ৪০ দিন কাজ করার শর্তে প্রতিদিনের জন্য ৫ হাজার ডলারই দাবি করে বসেছেন। স্পিন বিশেষজ্ঞ কোচ হিসেবে বিসিবির প্রথম পছন্দ এই মুহূর্তে ভারতের সাবেক কোচ অনিল কুম্বলে।

নতুন প্রধান কোচ নিয়োগ দিতে গিয়ে নানারকম সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশকে। যারা রাজি হন, তাঁরা বেশির ভাগই বিভিন্ন শর্ত জুড়ে দেন। বেশিরভাগেরই চাওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টগুলোর সময় ছুটি। তিন-চার নৌকায় পা দিয়ে রাখা কোচ বাংলাদেশ দলকে কতটা সময় দিতে পারবেন, বোর্ডের মূল ভাবনার বিষয় এখন সেটিই।  বিসিবির চাওয়া এমন একজনকে নিয়োগ দেয়া যার ধ্যানজ্ঞান থাকবে লাল সবুজকে ঘিরে।

গেল কয়েক মাসে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করেও ফল পাওয়া যায়নি। ঢাকায় এসে রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছেন। সিমন্সকে বিসিবির খুব একটা পছন্দ হয়নি। পাইবাসকে পছন্দ করে না বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। পরে তারা চাকরি নিয়েছেন আফগানিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডে।

এছাড়া বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার জিওফ মার্শের। ‘হাইপ্রোফাইল’ এই কোচকে সাক্ষাৎকারে না ডেকেই ই-মেইলে যোগাযোগ চালিয়ে গিয়েছিল বোর্ড। কথাবার্তাও নাকি প্রায় চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু মার্শও পারিবারিক কারণে বাংলাদেশে কাজ করতে রাজি হননি। বিপিএলের সময় রংপুর রাইডার্সের কোচ টম মুডির শরণাপন্ন হয়েও ব্যর্থ বিসিবি। তিনিও ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের নির্ভার জগৎ ছেড়ে টেস্ট দলের ভার নিতে রাজি হননি।

এইদিকে গুঞ্জন উঠেছে ভারতের সাবেক কোচ অনিল কুম্বলে হবেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ। ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে বোঝাপড়ায় সমস্যা হওয়ায় প্রধান কোচের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন কুম্বলে। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা হাথুরুর মতো কড়া হেড মাস্টার না চাইলেও বিসিবি তাঁর মতোই মাস্টার খুঁজছে।

আরো পড়ুনঃ

সহজ জয়ে ফাইনালের পথে ভারত

Related Articles

দুই ফরম্যাটে দুই কোচ চান না সালাউদ্দিন

কারস্টেনের দৃষ্টি বিশ্বকাপে

কোচ খোঁজায় নেমেছেন কারস্টেনও

দেশে আসছেন গ্যারি কারস্টেন!

আরব আমিরাতের সাথে চুক্তি করলো কারস্টেন