SCORE

Trending Now

‘মাশরাফি ভাইয়ের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল’

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এর চলতি আসরের দশম রাউন্ডে রেকর্ড গড়েছেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের পেসার ইয়াসিন আরাফাত মিশু। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৮ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব গড়েছেন এই ১৯ বছর বয়সী পেসার। চোটের কারণে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলতে না পারলেও প্রিমিয়ার লিগে প্রথম থেকে বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন ইয়াসিন।

Yeasin

এমন কীর্তি গড়া যে কোনো বোলারের জন্য বড় অর্জন। ব্যতিক্রম নন ইয়াসিনও, ‘বোলিং ভাল হচ্ছিল। উইকেট পাচ্ছিলাম। ৮ উইকেট পেয়ে যাবো ভাবিনি। যখন ৬টা পেলাম মনে হল শেষের উইকেটগুলো নেয়া যায় কিনা। হয়ে গেছে তাই ভাল লাগছে। এটা আমার জন্য অনেক বড় অর্জন।’

Also Read - যে কারণে একাদশে মিরাজ

ইয়াসিনের বোলিং ফিগার ছিল ৮.১-১-৪০-৮। এর আগে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের সেরা বোলিং ফিগার ছিল আব্দুর রাজ্জাকের। ৭ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি ১৭ রানে। সব মিলে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে একাদশ বোলার হিসেবে এই কীর্তি তার। ঢাকা লিগের ইতিহাসেও এটা সেরা বোলিং।

ইয়াসিন ৮ উইকেটের কীর্তি গড়ে দিয়েছেন বিস্ময়ের জন্ম। তার দাবি, ঘরোয়া ক্রিকেটে ফতুল্লার মতো উইকেটই যেন দেওয়া হয় সবসময়, ‘উইকেটে কিছুটা ঘাস ছিল। আমি সুবিধাটা কাজে লাগিয়েছে। সামনে বল করে ব্যাটসম্যানকে ড্রাইভ খেলিয়েছি। যে বলগুলো পেছনে করেছি সেগুলো ভাল হয়নি। যেগুলো সামনে খেলাতে চেষ্টা করেছি ব্যাটসম্যান ড্রাইভ করতে গিয়ে স্লিপে, গালিতে ও উইকটেরক্ষকের হাতে ক্যাচ দিয়েছে। এমন উইকেট যদি আমরা ঘরোয়া ক্রিকেটে পাই পেস বোলাররা সবসময় রাজত্ব করবে এবং ঘরোয়া ক্রিকেটের মান আরও উন্নত হবে।’

ইয়াসিন এদিন আউট করেছেন সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, নাসির হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মনন শর্মা, মাশরাফি বিন মুর্তজা, সানজামুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলাম সবুজকে। এদিন মাশরাফি ছিলেন তার পঞ্চম শিকার। ইয়াসিন জানান ‘মাশরাফি ভাইয়ের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তিনি জুটি গড়ে ফেলেছিললেন। তাকে ফেরানোর পরই টানা উইকেট পেয়ে গেছি।’

আরো পড়ুনঃ

শেষ ম্যাচে চাপে থাকবে শ্রীলঙ্কাই

Related Articles

ইয়াসিনের বোলিং ঘূর্ণিতে উড়ে গেলো পূর্বাঞ্চল

প্রিমিয়ার লিগে রেকর্ড গড়লেন ইয়াসিন