SCORE

সর্বশেষ

শ্রীদেবীর মৃত্যুতে ব্যথিত নান্নু

বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবীর মৃত্যুতে চলচ্চিত্র প্রেমীদের ছুঁয়ে গেছে বিষাদ। সেই বিষাদে পুড়ছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও।

শ্রীদেবীর মৃত্যুতে ব্যথিত নান্নু

ভারতীয় অভিনেত্রীর মৃত্যুতে ব্যথিত হয়েছেন নান্নু। ভারতের সংবাদমাধ্যম ডেকান ক্রনিকলকে জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলের প্রধান বলেন, ‘আমরা তাঁর (শ্রীদেবী) অনেক ছবি দেখেছি এবং সব ছবিই ভালো লেগেছে।’

Also Read - 'টাইগার— তুমি আমার জন্য সৌভাগ্যের প্রতীক!'

শ্রীদেবীর মৃত্যুর পর নতুন করে জন্ম নিয়েছে অনেক বিতর্ক। এতে নিদারুণ মর্মাহত নান্নু। তিনি বলেন, ‘কিন্তু দুঃখজনক ব্যাপার, তাঁর মৃত্যু ঘিরে যে বিতর্ক হয়েছে সে জন্য মর্মাহত হয়েছি। আমরা তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোকাহত।’

শ্রীদেবী মারা গেলেও বেঁচে থাকবেন তার কর্মে। আর তাই মৃত্যুর পরও তার ভক্ত হয়েই থাকতে চান নান্নু, ‘শ্রীদেবী বলিউডে প্রথম দিকের অন্যতম নারী সুপারস্টার। আমরা এখনো এবং সব সময়ের জন্য তাঁর উন্মুখ ভক্ত হয়েই থাকব।’

উল্লেখ্য, আশি-নব্বইয়ের দশকে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবী ১৯৬৩ সালে ভারতের তামিলনাড়ুতে জন্মগ্রহণ করেন। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি দুইবাইয়ে অবস্থানকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুকে বরণ করে নেন ভারতের সিনেমা জগতের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অভিনেত্রী।

ষাটের দশকে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় জগতে পা রাখেন শ্রীদেবী। ২০১৪ সালে ভারতের চতুর্থ গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘পদ্মশ্রী’-তে ভূষিত হন তিনি। ৫৪ বছর বয়সে হুট করে শ্রীদেবীর মৃত্যু গোটা ভারতের কাছে এসেছে আকস্মিক ধাক্কা হয়ে। শুধু ভারতেই নয়, বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা শ্রীদেবীর ভক্তদের জন্যও এটি বিরাট এক শোকের সংবাদ। মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর মতো শ্রীদেবীর ভক্তদের তাই মর্মাহত হওয়াটাই স্বাভাবিক।

[আরও পড়ুনঃ ‘টাইগার তুমি আমার সৌভাগ্যের প্রতীক’]

[যে দলের বোলিং কোচ হয়ে কাজ করছেন তিনি, সেই বাংলাদেশ দলের প্রতীক বাঘ বা টাইগার। উচ্ছ্বসিত কোর্টনি ওয়ালশ তাই বাঘকে বললেন তার ‘সৌভাগ্যের প্রতীক’। সম্প্রতি পতৌদি স্মারক বক্তৃতায় ওয়ালশ বলেন, ‘টাইগার তুমি আমার জন্য সৌভাগ্যের প্রতীক। স্মারক বক্তৃতায় আসার সিদ্ধান্তটা নিতেই… বিস্তারিত

Related Articles

কারস্টেনকে বিমোহিত করেছেন সবাই

সালাউদ্দিনের সাথে কারস্টেনের বৈঠক

‘মাশরাফিকে না পাওয়া দুর্ভাগ্য’

“চেষ্টা করেছি সম্ভাব্য সেরা দলটা গঠন করতে”

কোচ-অধিনায়কের সম্মতিতেই স্কোয়াডে সৌম্য