SCORE

সর্বশেষ

সাকিবের কাছে অধিনায়কত্ব নয় বাড়তি চাপ

এর আগে তিনি যখন বাংলাদেশ দলের অধিনায়কের আসনে বসেছিলেন, তার উপর ছিল পাহাড়সম চাপ। অধিনায়কত্ব থেকে অব্যাহতি পেয়েছিলেন সেই চাপ সামলাতে না পারার কারণেই। ২০১৭ সালের শেষদিকে আবারও যখন ফিরে পেলেন অধিনায়কত্বের মুকুট, তখন ব্যক্তি কিংবা খেলোয়াড় সাকিবের পাশাপাশি অনেক পরিণত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলও।

যেখানে সাকিবের আবেগটাই মুখ্য

আর এজন্যই হয়ত অধিনায়কত্বকে কখনই বাড়তি চাপ মনে করেন না সাকিব। বরং অধিনায়ক হিসেবে সাহস কাজ করে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের মধ্যে।

Also Read - জবাব মেলেনি অনেক প্রশ্নের

সম্প্রতি দেশের শীর্ষস্থানীয় জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোকে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘অধিনায়কত্ব আমার কাছে কখনোই বাড়তি চাপ মনে হয়নি। অধিনায়ক হওয়ার পর আমার সাহস বরং বেড়েছে।’

জাতীয় দলের আগে সাকিবের অধিনায়কত্ব করার অভিজ্ঞতাও নেই খুব একটা। সাকিব বলেন, ‘বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকে অধিনায়কত্ব করছি, তাও নয়। অনূর্ধ্ব-১৭ দলে বোধ হয় একবার করেছিলাম। ওভাবে অধিনায়কত্ব কখনো করিনি। অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর আমার সাহস আরও বেড়েছে।’

অধিনায়কত্বের সবচেয়ে কঠিন কাজ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে বিচক্ষণ সাকিবের জবাব, ‘কঠিন কাজ বলব না। তবে একটা জিনিস, সবার মধ্যে অধিনায়কত্ব করার গুণাবলি থাকে না।’

তিনি বলেন, ‘অধিনায়কত্ব করা কঠিন কোনো কাজ মনে হয় না আমার কাছে। ক্রিকেট এমনই খেলা, যেখানে আপনি যে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, সেটি ঠিক হলে আপনি হিরো, ঠিক না হলে আপনি জিরো! তার মানে এই নয় যে আপনি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

সাকিব আরও বলেন, ‘আপনার চিন্তা হয়তো একরকম ছিল, হয়ে গেছে আরেক রকম। তবে বলব না, এটা কঠিন কোনো কাজ। কিছু কিছু ক্ষেত্রে দলকে উজ্জীবিত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

বর্তমানে সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-২০ দলের অধিনায়ক। মাশরাফি বিন মুর্তজার ক্যারিয়ার শেষ হলে সাকিবকে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবেও দেখে থাকেন অনেকে। তবে সেক্ষেত্রে মাশরাফির মতো সফল হতে হলে সাকিবের প্রয়োজন আরও অভিজ্ঞতা, যা তিনি অর্জন করে নিচ্ছেন টেস্ট ও টি-২০ থেকে!

আরও পড়ুনঃ জবাব মেলেনি অনেক প্রশ্নের

Related Articles

বাঁহাতি-ডানহাতিতে সমস্যা দেখেন না অপু

সাকিবদের হারিয়ে ফাইনালে চেন্নাই

সাকিবের পাশে থিতু হতে চান অপু

কারস্টেনকে বিমোহিত করেছেন সবাই

মাশরাফিকে টেস্ট খেলতে বলেছিলেন পাপন