SCORE

সর্বশেষ

কেমন আছেন মুম্বাইয়ের মুস্তাফিজ?

বাংলাদেশের তরুণ বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজ গত দুইবারের মতো এবারও ভারতে পাড়ি দিয়েছেন আইপিএল খেলতে। এবার নিজের নতুন দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে মাঠেও নেমেছেন প্রতিটি ম্যাচেই। যদিও জয়ের দেখা পান নি এক ম্যাচেও। কিন্তু প্রতি ম্যাচেই নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা অক্ষুণ্ণ রেখেছেন এই তরুণ। বাংলা নববর্ষের দিন মুম্বাইয়ের মাঠে খেলা শেষে হোটেল রুমেই কেটেছে তার। দেশ ছেঁড়ে বিদেশ বিভূঁইয়ে পুরো ভিন্ন পরিবেশে, বিশাল ক্যানভাসে কেমন কাটছে আমাদের প্রিয় ফিজের দিনকাল?

প্রথমবার হায়দ্রাবাদে তৎকালীন অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ছিলেন। তিনি সেবার যাকে বলে নিজের ভাইয়ের মতো করে আগলে রেখেছিলেন ফিজকে। মুস্তাফিজও আস্থার প্রতিদান দিয়েছিলেন দলকে চ্যাম্পিয়ন বানিয়ে। যদিও পরেরবার ইনজুরি তার সাফল্যকে খরায় পরিণত করেছিল। ফলে হায়দ্রাবাদ তাকে ছেড়ে দিলো। তবে তাকে লুফে নিলো মুম্বাই। তখনও পুরো ফর্মে ফেরা হয়নি মুস্তাফিজের। কিন্তু সদ্য সমাপ্ত নিদাহাস ট্রফিতে আলো ছড়িয়ে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েই রেখেছিলেন ফিজ। মুম্বাইয়ে গিয়েই আলোচনার কেন্দ্রে চলে এলেন তিনি। মুম্বাইয়ের অধিনায়ক রোহিত শর্মা মুস্তাফিজকে নিয়ে তাদের বিশেষ পরিকল্পনার কথা জানালেন। বুঝাই গেলো মুস্তাফিজ দলটির প্রাণভোমরা হতে চলেছেন। মুম্বাই ফ্র্যাঞ্চাইজির সবাই খুব উচ্ছ্বসিত তাকে পেয়ে। হায়দ্রাবাদের চেনা পরিবেশ রেখে ভিন্ন এক পরিবেশে চলে আসলেও মুস্তাফিজের কোন অসুবিধা হচ্ছে বলে মনে হয়না। কারণ, মুম্বাইয়ের কোচ শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তী জয়াবর্ধনে আছেন, বোলিং কোচ হিসেবে আছেন নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শেন বন্ড, সতীর্থরা আছেন, আছেন মুম্বাইয়ে মুস্তাফিজের দোভাষী বাংলাদেশ দলের সাবেক ওপেনার নাফিস ইকবাল, আর মুম্বাইয়ের বিশাল সমর্থকগোষ্ঠী।

Also Read - মুশফিকের ইনজুরি প্রসঙ্গে দেবাশীষের মন্তব্য

বাংলা নববর্ষ পালন করা হয়নি মুস্তাফিজের। তার আগেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ভিডিও বার্তায় জানিয়ে রেখেছিলেন তিনি যে, ‘দলের সঙ্গে থেকে নববর্ষ পালন করতে পারি, নাও পারি।’ যদিও ভক্তদের শুভেচ্ছা জানাতে ভুলেন নি তিনি। তবে তার নিজের জন্য দিনটি ছিল মিশ্র অনুভূতির। সেদিন মাঠে নেমেছিলেন দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিপক্ষে। নিজে ভাল খেললেও দল জেতাতে পারেন নি। ৪ ওভারে ২৫ রানে ১ উইকেট নিয়ে ভাল বল করেছিলেন। কিন্তু দলের বাকিদের ব্যর্থতায় তা বিসর্জন দিতে হয়। আর তার নিজের হাত থেকে দুইটি ক্যাচ মিস দিনটাকে আরও বাজে বানিয়ে দেয়। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে তাকে স্লিপের মতো জায়গায় ফিল্ডিং করানো নিয়ে। শুধু তাই নয়, শেষ ওভারে দল জেতানোর সুযোগও ছিল তার কাছে। কিন্তু তাতেও অসফল তিনি। তিন ম্যাচের দুইটিতে শেষ ওভারে বল করেও দল জেতাতে না পারা সত্যি অনেক কষ্টের। তবে তার সাফল্য কিন্তু কম নয়। মুম্বাইয়ের সেরা বোলার এখন পর্যন্ত তিনিই। ৩ ম্যাচে ১১.৫ ওভারে ৭.৪৩ ইকোনমি রেট, ৮৮ রানে উইকেট ৫টি। ডট বল দিয়েছেন ২৯টি। যেকোন বিচারেই দারুণ বোলিং করেছেন ফিজ। শুধু জয়ের দেখাই পান নি। দিনশেষে নিজের হোটেলরুমেই নববর্ষ কাটালেন তিনি।

রোহিতের সাথে মুস্তাফিজের উইকেট উদযাপন।

নতুন ঠিকানায় জয়ের দেখা না পেলেও সবার কাছ থেকে ইতিবাচক মন্তব্যই পাচ্ছেন মুস্তাফিজ। এক ভিডিও বার্তায় তিনি জানালেন, ‘ড্রেসিংরুমটা নতুন, অনেক সিনিয়র খেলোয়াড় আছে। আমার বয়সী অনেকে আছে। দলের সমন্বয়টা অনেক ভালো। কোচ, সতীর্থরা অনেক সহায়তা করে। নতুন কোচের সঙ্গে কাজ করলে সব সময়ই শেখা যায়। আমি শেখার চেষ্টা করছি।’ সেই সঙ্গে ডেথ ওভারের সঙ্গী ভারতীয় বোলার জসপ্রিত বুমরাহ’র সঙ্গে তার রসায়নও উপভোগ করছেন তিনি। কিন্তু ডেথ ওভারে মুস্তাফিজকে আনা নিয়ে অনেকেই মুম্বাই অধিনায়ক রোহিতের সমালোচনা করছেন। সাবেক ভারতীয় পেসার জহির খান যেমন সমালোচনা করছেন। যেহেতু তিন ম্যাচেই মুস্তাফিজের শুরুটা দারুণ হয়েছে, ফলে তাকে শুরুতেই এনে রানের চাকায় বাঁধ দেওয়া আর উইকেট তুলে প্রতিপক্ষকে চাপে ফেলে দেওয়ার যে পরামর্শ জাহির দিয়েছেন তা সঠিক বলেই মনে হচ্ছে। তবে এখনও মনে হচ্ছে, ওয়ার্নারের মতো করে তাকে ব্যবহার করতে না পারলে সেরা ফল পেতে কষ্ট করতে হবে মুম্বাইকে। মুস্তাফিজকে বলা হয় ‘এক দুর্ভেদ্য অস্ত্র’। তাকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারলে সাফল্য নিশ্চিত। শেষ ওভারের চাপ সামলে উঠতে পারলেই মুস্তাফিজ আবার ‘ট্রাম্পকার্ড’ হয়ে উঠবেন।

এখনও সেরা ফর্ম ফিরে না পেলেও ফিরে পাওয়ার খুব কাছেই আছেন মুস্তাফিজ। জয়ের স্বাদ না পেলেও নতুন দলের ড্রেসিংরুমে ঠিকই মানিয়ে নিয়েছেন এই পেসার। সবার সহযোগিতাও পাচ্ছেন তিনি। তার আপডেট নিয়মিতই প্রকাশ করছে মুম্বাই তাদের অফিসিয়াল ভেরিফাইড ফেসবুক পাতায়। আর সবার সহযোগিতায়ই প্রথম ম্যাচে নার্ভাস বোলিং করলেও পরের ম্যাচ থেকেই স্বরূপে ফিরেছেন তিনি। নববর্ষের প্রথম দিনটা ভাল কাটেনি, তাতে কি? জয় শুধুই সময়ের ব্যাপার। বাংলা নতুন বছরে বরং আরও শানিত, পরিণত হয়েই ফিরবেন আমাদের প্রিয় ফিজ।

আরও পড়ুনঃ মুশফিকের ইনজুরি প্রসঙ্গে দেবাশীষের মন্তব্য

Related Articles

টিকে থাকার লড়াইয়ে মুখোমুখি কলকাতা-রাজস্থান

সাকিবের কাছে হার মানলেন রশিদ

চেন্নাইয়ের বিপক্ষে সাকিবদের ফাইনালে ওঠার লড়াই

নিজে হারলেও মুম্বাইয়ের পরাজয়ে প্রীত প্রীতি!

আইপিএল: প্লে-অফের শেষ দল রাজস্থান রয়্যালস