SCORE

সর্বশেষ

চোটমুক্ত হওয়াই তাসকিনের প্রথম কাজ

গত দুয়েকবছর ধরে পক্ষে কথা বলছে না ফর্ম। আবির্ভাবে সমর্থকদের মনে যে প্রত্যাশার জন্ম দিয়েছিলেন, পূরণ করতে পারছেন না সেটিও। ফলাফল, জাতীয় দল থেকে বাদ। তবে ফর্ম পড়তির দিকে থাকায় শুধু জাতীয় দলই নয়, একইসাথে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও বাদ পড়েছেন ডানহাতি ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ।

পেসারদের জন্য অন্যরকম চ্যালেঞ্জ দেখছেন তাসকিন

অবশ্য চুক্তি থেকে বাদ পড়ার দুঃসংবাদের পর তাসকিনরা শুনেছেন কিছু আশার বাণী। যা কিনা নিঃসৃত হয়েছে স্বয়ং মাশরাফি বিন মুর্তজার মুখ থেকে। কিংবদন্তীতুল্য মাশরাফি তাসকিনদের মতো তরুণ পেসারদের কাছে আদর্শ। সেই মাশরাফিই তাসকিনদের দিয়েছেন অভয়। জানিয়েছেন, তাদের সহায়তার জন্য সবসময়ই রয়েছেন পাশে। সেই অভয়ের স্বীকৃতিতে তাসকিনের কণ্ঠে ঝরে পড়ল কৃতজ্ঞতা।

Also Read - বিসিএলে মোসাদ্দেকের শতক

তাসকিন বলেন, ‘সিনিয়র খেলোয়াড়েরা অভিভাবকের মতো। তারা সব সময়ই আমাদের পাশে থাকেন। উৎসাহ দেন।’

ক্যারিয়ারের খারাপ এই সময়টাকে তাসকিন দেখছেন স্বাভাবিক স্রোত হিসেবেই। ২৩ বছর বয়সী ক্রিকেটার বলেন, ‘জীবনে ভালো-খারাপ সময় আসে। সব সময়ই বলে আসছি, ফিরে আসাটা সময়ের ব্যাপার।’

ভালো ও খারাপ সময়ের মিশেলে গড়া মাশরাফির ক্যারিয়ারও। মাশরাফির অনুজ তাসকিন সেখান থেকেই খুঁজছেন প্রেরণা। তবে তাসকিনের মনোযোগ এখন চোট থেকে সেরে ওঠায়ই। তিনি বলেন, ‘মাশরাফি ভাইদেরও উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। তাদের কাছ থেকে অনুপ্রেরণা খুঁজে পাই। তবে তার আগে আমার পিঠের চোটটা সারিয়ে তুলতে হবে।’

চোট ছিল আগে থেকেই। চলতি বছর যতগুলো ম্যাচ খেলেছেন, তাতে আরও গাঢ় হয়েছে চোটের ভয়াবহতা। আপাতত তাই থাকতে হচ্ছে মাঠের বাইরে। এখন তাই মাঠে ফিরতে চান শতভাগ ফিট হয়েই।

তাসকিন বলেন, ‘চোট নিয়ে খেলে শরীর আরও খারাপ হয়েছে, খেলাও খারাপ হয়েছে। মানুষের গালিও খেয়েছি! শতভাগ ফিট না হয়ে কোনো ধরনের ক্রিকেটই খেলতে চাই না। এখন আমার প্রথম কাজ পুরোপুরি চোটমুক্ত হওয়া।’

আরও পড়ুনঃ ‘আমার কিছু প্রমাণ করার নেই’

Related Articles

ড্র দিয়ে শুরু করল তামিম-রুবেলের ব্রাজিলও

ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ক্রিকেটাররা

ফিফা বিশ্বকাপ: ক্রিকেটাররা কোন দলে?

‘সমর্থন দিন, গালি দিয়েন না’

বিছানা থেকেই উঠতে পারছি না: তাসকিন