SCORE

সর্বশেষ

টি-২০ কম বলেই বাংলাদেশের এমন সিদ্ধান্ত

জুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারতের মাটিতে একটি টি-২০ সিরিজে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। অবশ্য প্রথমে শোনা গিয়েছিল ওয়ানডে সিরিজের কথা। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পছন্দ টি-২০। তাই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের বদলে তিন বা চার ম্যাচের টি-২০ সিরিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। সামনে সূচিতে বাংলাদেশের টি-২০ কম বলেই এমন চাওয়া- জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।


টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য এখনো হাতে দুই বছরেরও বেশি সময় আছে বাংলাদেশের। তবুও এখন থেকেই যেন টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবছে বিসিবি। যদিও এর আগেই ২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। অস্ট্রেলিয়ায় টি-২০ বিশ্বকাপ বসবে ২০২০ সালের অক্টোবরে।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেন, ‘জুন থেকে আমাদের খেলা শুরু হচ্ছে। সামনে ২০১৯ বিশ্বকাপ। পরের বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে তেমন টি-টোয়েন্টি ম্যাচই নেই আমাদের। সব টেস্ট।”

Also Read - সাইফউদ্দিন নাকি আরিফুল— দ্বিধায় নির্বাচকরা

২০২৩ সালের মধ্যে আরো ৩৫ টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। টেস্টের পাশাপাশি ওয়ানডেও যথেষ্ট পরিমাণে আছে। কিন্তু খুব বেশি টি-২০ নেই বলে মনে করেন তিনি। টি-২০ তে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স এখনো তেমন ভালো নয় দেখে যত জায়গায় টি-২০ খেলার সুযোগ রয়েছে সবগুলোই কাজে লাগাতে চান বিসিবি সভাপতি।

তিনি বলেন, আগে বাংলাদেশ তেমন টেস্ট খেলত না। এখন ৩৫টা টেস্ট খেলবে। এত টেস্ট আগে খেলিনি। ৩৫ টেস্ট আছে, ওয়ানডেও আছে। এই সময়ে আমাদের টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খুব একটা নেই। আমরা টি-টোয়েন্টি খুব একটা ভালোও খেলি না। আমরা চাচ্ছি যত জায়গায় সুযোগ পাওয়া যায় টি-টোয়েন্টি খেলব।’

৩৫ টি টেস্ট আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে খেলবে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে প্রতি বছর গড়ে সাতটি করে টেস্ট খেলবে সাকিব-রিয়াদরা। এছাড়া টি-২০ বিশ্বকাপের আগেও আগামী দুই বছরের মধ্যে প্রায় ১৫ টি টি-২০ খেলবে বাংলাদেশ।


আরো পড়ুন : ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম আসছে বিপিএলেও



 

Related Articles

টি-২০ মর্যাদা পাচ্ছে সব সদস্য দেশ

টি-২০ সিরিজেও ধুঁকছে শ্রীলঙ্কা

নিজেকে টি-টোয়েন্টির স্রষ্টা দাবি গেইলের!

সুযোগ হাতছাড়া করাকেই দুষলেন কোহলি

কোহলিদের বিপক্ষে উইন্ডিজদের দাপুটে জয়