SCORE

সর্বশেষ

মুস্তাফিজের ভুল ধরিয়ে দিলেন জহির

আইপিএলের ১১তম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে নাটকীয়ভাবে জয় পেয়েছে ফিক্সিংয়ের দায়ে দুই বছর নিষিদ্ধ থাকা চেন্নাই সুপার কিংস। আইপিএলে ফিরেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে এক উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হাতের মুঠো থেকে ম্যাচটি বের করে নিয়ে গেছেন উইন্ডিজ অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভো।

মুস্তাফিজের ভুল ধরিয়ে দিলেন জহির

শেষ তিন ওভারে চেন্নাইয়ের যখন ৪৭ রান প্রয়োজন ১৮তম ওভারে মিচেল ম্যাকক্লেনাগানের ওভারে দুই ছয়, এক চারে ২০ রান তুলে নেন চেন্নাইয়ের ব্যাটসম্যান ব্রাভো। বুমরাহর করা তার পরের ওভারেও ২০ রান তুলে নেন ব্রাভো। এতেই জয়ের কাছে পৌঁছে যায় চেন্নাই। তবে বুমরাহর ওভারেই আউট হন ব্রাভো।

Also Read - ঘাটতি পোষাতে নাফীসের ভিন্নরকম উদ্যোগ

শেষ ওভারে চেন্নাই সুপার কিংসের যখন ৭ রান প্রয়োজন তখন বল হাতে আসেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। তবে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়া কেদার যাদবে শেষ রক্ষা হয়নি মুম্বাইয়ের। প্রথম তিন বল ডট দিলেও চতুর্থ বলে স্কুপ শটে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জয়ের কাজটা সহজ করে দেন যাদব।

মুম্বাই হারের জন্য শেষ তিন ওভারকেই দুষছেন অনেকেই। ম্যাচ শেষে মুস্তাফিজের বোলিং বিশ্লেষণ করতে গিয়ে শেষ ওভারে তার কী ধরণের ভুল ছিল সেটি তুলে ধরেন ভারতের সাবেক পেসার জহির খান। ফিল্ডিং সাজানোয় আরেকটু গুরুত্ব দিলে ম্যাচের দৃশ্য অন্যরকম হলেও হতে পারত দাবি ভারতের এই সাবেক বা-হাতি পেসারের।

‘কেদার যাদব হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে ভুগছিলেন। মুম্বাইয়ের উচিত ছিল থার্ড ম্যান ও ফাইন লেগ ফিল্ডার বাউন্ডারিতে রাখা। কারন সে সোজা খেলতে পারবে না। বল বাউন্ডারিতে নিতে হলে তাকে মুস্তাফিজের বলের গতি ব্যবহার করতে হবে। ওভারের প্রথম বল থেকেই কেদার এমন কিছু করতে চাইছিল।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘মুস্তাফিজ যদি ফাইন লেগ বাইরে রাখত, তাহলে ফলাফল ভিন্ন হতে পারতো। এই ম্যাচ নিয়ে মুস্তাফিজ হয়তো দ্বিতীয়বার চিন্তা করলে এমন কিছুই করত।’

আইপিএলে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে আগামী ১২ এপ্রিল সানরাইজার্সের মুখোমুখি হবে মুস্তাফিজের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এবারের আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলছেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

আরও পড়ুনঃ শিশির নয়, ডেথ ওভারকেই দুষছে মুম্বাই

Related Articles

আইপিএলে জুয়ার সঙ্গে জড়িত আরবাজ খান!

প্রেসিডেন্টের পরেই স্থান রশিদের!

‘টি-টোয়েন্টি হটাও, টেস্টে মনোযোগ দাও’

পারফরম্যান্স বিবেচনায় সাকিবের মূল্য প্রায় ৯ কোটি!

“আরেক ওভার করলে তো ম্যাচ ওখানেই শেষ!”