SCORE

সর্বশেষ

প্রযুক্তির নেতিবাচক দিক তুলে ধরলেন কোহলি

বিশ্বের অন্যতম ফিট ও সেরা ক্রিকেটার তিনি। শৃঙ্খল ক্যারিয়ার আর ব্যাটিং শৈলীর কারণে স্থান পেয়েছেন কোটি ক্রিকেট ভক্তের হৃদয়ে। ক্রিকেটের পাশাপাশি জীবনযাপন নিয়েও বেশ সচেতন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

প্রযুক্তির নেতিবাচক দিক তুলে ধরলেন কোহলি

সেই কোহলি এবার তুলে ধরলেন প্রযুক্তির নেতিবাচক দিকটাও। বর্তমান যুগে প্রযুক্তির ব্যবহার কীভাবে ক্ষতি করছে, সেদিকে ইঙ্গিত দিয়ে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান দিয়েছেন মানসিক ও শারীরিক বিকাশের তাগিদ।

Also Read - চার ক্রিকেটারকে আইপিএল ছাড়ার নির্দেশ

সম্প্রতি কোহলি বলেন-

‘আমি যদি পেশাদার ক্রিকেট নাও খেলতাম, ব্যায়াম না করে থাকার কথা চিন্তাও করতে পারি না। পিউমা কিছুদিন আগে একটি জরিপ করেছে। সেখানে দেখিয়েছে, মানুষ এখন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা শুধু মোবাইল ফোনে ব্যয় করে। প্রযুক্তি আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভালোর চেয়ে খারাপ করছে এখন। মানুষ ভুলে যাচ্ছে কোন জিনিসটি গুরুত্বপূর্ণ। তাদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশে কী করা উচিত, সেটাই ভুলে যাচ্ছে সবাই।’

সঠিক সময়ে সঠিক কাজ ও সময়ের যথার্থ ব্যবহারের প্রতি ইঙ্গিত করে তরুণদের উদ্দেশে কোহলি বলেন, ‘ওদের (তরুণদের) ঠিক করতে হবে কোন বিষয়টি অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত। একটা রুটিন বানাতে হবে: কখন শারীরিক পরিশ্রম করতে হবে, কতক্ষণ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে থাকা যাবে, কখন ভিডিও গেম খেলব আর কখন বাড়ির কাজ করব।

ক্রিকেটে পুরোদমে ক্যারিয়ার গড়ার আগে কোহলি নিজেও ছিলেন স্থূলকায়, এখন তিনি একদম ফিট। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘পেশাদার খেলার একটি নির্দিষ্ট স্তরে খেলা একটা ভূমিকা রেখেছে। আমি যখন ফিট হতে শুরু করলাম, হঠাৎ বুঝলাম আমি আরও পরিষ্কার করে ভাবতে শুরু করেছি। আমি আরও ভালো বুঝছি, একাগ্রতা বেড়েছে। আমার বাহ্যিক গঠনের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে মানসিকভাবেও পরিবর্তন লক্ষ করেছি। শরীর যত ফিট হবে, তত আত্মবিশ্বাসও বাড়বে। এটা আপনাকে নিজের সম্পর্কে ভালো বোধ করায়। আর ভালো চিন্তা করতে চাইলে ভালো বোধ করাটা গুরুত্বপূর্ণ।

আরও পড়ুনঃ সাকিব-তামিমদের নিয়ে চূড়ান্ত হল বিশ্ব একাদশ

Related Articles

দায়িত্ব থেকে বিরতি নিলেন স্ট্রস

‘র‍্যাঙ্কিং নয়, সিরিজ জয় নিয়েই ভাবনা’

টি-টোয়েন্টি নয়, শান্তকে নিয়ে ভাবনা ওয়ানডে-টেস্টে

টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশের মেয়েরা

“কথা দিয়ে ক্রিকেট হয় না”