রুমানা-সালমাদের নতুন কোচ জাইন

দেড় বছরের চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে আগ্রহ নেই ইংলিশ কোচ ডেভিড ক্যাপেলের। তাই নতুন কোচ আসছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের। ভারতের আনজু জাইনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে রুমানা-সালমাদের নতুন প্রধান কোচের দায়িত্বে।

বাংলাদেশের কোচ হয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত ভারতের এ সাবেক উইকেটরক্ষক। যেকোনো দেশের জাতীয় দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব পাওয়াটা অনেক বড় ব্যাপার বলে মনে করেন আনজু জাইন। ওয়েস্ট ইন্ডিজে দলকে টি-২০ বিশ্বকাপের টিকিট এনে দেয়াই তার প্রথম চ্যালেঞ্জ বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, “এই পর্যায়ে জাতীয় দলের কোচিংয়ের সুযোগ পাওয়াটা রোমাঞ্চকর। এই মুহূর্তে বড় চ্যালেঞ্জ ওয়েস্ট ইন্ডিজে উইমেনস ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টিতে দলকে নিয়ে যাওয়া।” 

Also Read - উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশকেই এগিয়ে রাখছেন রুবেল

বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তাদের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলছে বাংলাদেশের মেয়েরা। প্রথম ম্যাচে ১০৬ রানে জিতে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে প্রোটিয়ারা। ওয়ানডে সিরিজের পর তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ নারী দল। তারপর ২১ শে মে দেশে ফিরে আসবে তারা। ডেভিড ক্যাপেলের অধীনে এটিই বাংলাদেশ নারী দলের শেষ সিরিজ। এরপর দলের দায়িত্ব নিবেন আনজু জাইন।

জুলাইয়ে নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত হবে টি-২০ বিশ্বকাপের কোয়ালিফাইং রাউন্ড। গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আয়ারল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, উগান্ডা, থাইল্যান্ড এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। এদের মধ্যে র‍্যাঙ্কিংয়ে সবচেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ। কোয়ালিফাইং থেকে দুইটি দল খেলবে বিশ্বকাপ।

বিসিসিআই- এর বি লেভেল সনদপত্র পাওয়া কোচ আনজু জাইন। ২০১২ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ২০১৩ বিশ্বকাপ তার কোচিংয়েই খেলেছে ভারত নারী দল। ভারত জাতীয় নারী দলের ক্রিকেটার ছিলেন ১৯৯৩ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত।

কোচিং প্যানেলে জাইন পাবেন স্বদেশী দুইজনকে। ভারতের দেভিকা পালশিখর তার সহকারী হিসেবে থাকছেন। ফিজিওথেরাপিস্টের দায়িত্বে আছেন আনুজা দালভি।

আনজু জাইন  দ্বিতীয় কোনো ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে  বাংলাদেশের নারী দলের কোচ হচ্ছেন। তার আগে দুই মেয়াদে বাংলাদেশে এসে কাজ করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক মমতা মাবেন।


আরো পড়ুন ঃ আরেকটি স্মৃতিময় বিশ্বকাপ উপহার দিতে চান রুবেল