SCORE

সর্বশেষ

সাকিবদের হারিয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত করল কলকাতা

ব্যাটিংয়ে ইনিংসের শেষ সময়ে নেমে করেছেন দশ রান। তবে বোলিংয়ে ছিলেন খরুচে। দিনটা ভালো কাটেনি সাকিব আল হাসানের। ভালো কাটেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। কলকাতা নাইট রাইর্ডার্সের কাছে পাঁচ উইকেটে হেরেছে তারা। এ জয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত করল কলকাতা নাইট রাইডার্স। 

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। শুরু থেকে দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান এবং শ্রীভাতস গোস্বামী ঝড় তুলেন। উদ্বোধনী জুটিতে দুই ব্যাটসম্যান গড়েন ৭৯ রানের জুটি। তাদের ঝড়ো ব্যাটিং দলকে শক্ত ভিত গড়ে দেয়। তাদের জুটি ভাঙেন কুলদীপ যাদব। ২৬ বলে ৩৫ রান করে কুলদীপ যাদবের বলে আন্দ্রে রাসেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন গোস্বামী। তার ইনিংসে ছিল চারটি চার এবং একটি ছক্কা।

এরপর শিখর ধাওয়ান এবং কেন উইলিয়ামসন মিলে যোগ করেন ৪৮ রান। কেন উলিয়ামসন শুরু থেকেই ধারণ করেন বিধ্বংসী রূপ। তবে তার ইনিংস দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। ১৭ বলে ৩৬ রানের মারকুটে ইনিংস খেলে বিদায় নেন স্ক্যান্টলবুরি-সিয়ারলেসের বলে। মাত্র ১৭ বলের ঐ ইনিংসে ছিল তিনটি ছক্কা এবং একটি চার।

Also Read - কোন সাকিবকে দেখতে চান?

অর্ধশতক ছুঁয়ে সাজঘরে ফিরেন শিখর ধাওয়ান। ৫ চার ও ১ ছক্কার সাহায্যে ৩৯ বলে ৫০ রান করে ধাওয়ান হন প্রাসিধ কৃষ্ণার শিকার।

দলীয় ১৪১ রানের মাথায় বিদায় নেন ধাওয়ান। তখনো সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হাতে পাঁচ উইকেট এবং ২৯ বল। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। শেষ পাঁচ ওভারে সাত উইকেট হারিয়েছে তারা। রান যোগ করেছে মাত্র ৩১।

শিখর ধাওয়ানের বিদায়ের পরের ওভারে আউট হন ইউসুফ পাঠান। ৪ বলে ২ রান করে সুনীল নারাইনের বলে ক্যাচ দেন রবিন উথাপ্পার হাতে। এক ওভার পরে বিদায় নেন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। পাঠান ২ এবং ব্র্যাথওয়েট ৩ রান করেন। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ভরসা ছিল মানিশ পান্ডে। তিনি ফিরে যান ২২ বলে ২৫ রান করে।

সাত নম্বরে ব্যাটিং করতে নামেন সাকিব আল হাসান। দুই চারের সুবাদে ৭ বলে ১০ রান করে প্রাসিধের বলে আউট হন সাকিব। শেষ দুই বলে বিদায় নেন রাশিদ খান এবং ভুবনেশ্বর কুমার। ২০ ওভারে ১৭২ রান করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। চার উইকেট পান প্রাসিধ কৃষ্ণা। একটি করে উইকেট শিকার করেন আন্দ্রে রাসেল, সুনিল নারাইন, কুলদীপ যাদব এবং স্ক্যান্টলবুরি-সিয়ারলেস।

১৭৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে দুই ওপেনার ক্রিস লিন এবং সুনিল নারাইন কলকাতা নাইট রাইডার্সকে এনে দেন উড়ন্ত সূচনা। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকাতে থাকেন নারাইন। দ্বিতীয় ওভারে রান হয় ২০। প্রথম দুই ওভারেই কলকাতা নাইট রাইডার্সের রান দাঁড়ায় ৩০।

প্রথম থেকেই খুনে মেজাজে ব্যাটিং করে কলকাতা নাইট রাইডার্সের ব্যাটসম্যানরা। নারাইনকে থামান সাকিব আল হাসান। নিজের প্রথম ওভারেই উইকেট পান সাকিব আল হাসান। ৪ টি চার এবং ২ টি ছক্কা হাঁকিয়ে ১০ বলে ২৯ রান করেন সুনিল নারাইন। দলীয় ৫২ রানের মাথায় সাকিবের বলে তুলে মারতে গিয়ে ধরা পড়েন মানিশ পান্ডের হাতে।

এরপর ক্রিস লিনকে সাথে নিয়ে হাল ধরেন রবিন উথাপ্পা। তাদের ৬৭ রানের জুটি কলকাতা নাইট রাইডার্সকে জয়ের পথে এগিয়ে নিয়ে যায়। ৫৫ রানের ইনিংস খেলেন ক্রিস লিন। সিদ্ধার্থ কাউলের বলে দলীয় ১১৯ রানের মাথায় আউট হন ক্রিস লিন। দারুণ এক ক্যাচ নেন মানিশ পান্ডে। দীনেশ কার্তিক এবং রবিন উথাপ্পা যোগ করেন আরো ৩০ রান। ধীরে ধীরে কমতে থাকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের আস্কিং রান রেট।

৩ চার আর ২ ছক্কা সমৃদ্ধ ৩৪ বলে ৪৫ রানের ইনিংস খেলে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের শিকার হন রবিন উথাপ্পা। পরের ওভারে আন্দ্রে রাসেলকে (৪ বলে ৪) ফিরিয়ে দেন সিদ্ধার্থ কাউল। কিন্তু অন্য প্রান্তে থাকা দীনেশ কার্তিক কলকাতা নাইট রাইডার্সকে নিয়ে যান জয়ের সন্নিকটে।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য যখন মাত্র এক রান প্রয়োজন তখন বিদায় নেন নিতিশ রানা। এরপর শুভমান গিলকে নিয়ে জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন দীনেশ কার্তিক। ২২ বলে ২৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

প্রথম ওভারের পর আরো দুই ওভার বোলিংয়ে আনা হয় সাকিবকে। নিজের দ্বিতীয় ওভারে ৫ এবং তৃতীয় ওভারে ১৩ রান দেন তিনি। তিন ওভারে ৩০ রান দিয়ে এক উইকেট পান সাকিব। দুইটি করে উইকেট নেন কাউল এবং ব্র্যাথওয়েট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ঃ

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ  ১৭২/৯, ২০ ওভার
ধাওয়ান ৫০, উইলিয়ামসন ৩৬, গোস্বামি ৩৫
প্রাসিধ ৪/৩০, নারাইন ১/২৩

কলকাতা নাইট রাইডার্স ১৭৩/৫, ১৯.৪ ওভার
লিন ৫৫, উথাপ্পা ৪৫, নারাইন ২৯
ব্র্যাথওয়েট২/২১, কাউল ২/২৬


আরো পড়ুন ঃ   নিদাহাস ট্রফির ফাইনালের ইনিংস আত্মবিশ্বাস দিবে সাব্বিরকে


 

Related Articles

ইয়ো ইয়ো টেস্টে বাদ পড়লেন ভারতের স্টার ক্রিকেটার

কোহলি নন, মোহাম্মদ নবীর প্রিয় ডি ভিলিয়ার্স

পরিবারের সান্নিধ্যে ঈদ, তবু মুস্তাফিজের আক্ষেপ

ভাগ্যকেই দোষারোপ করছেন মুস্তাফিজ

ঈদের পর অনুশীলন শুরু করবেন মুস্তাফিজ