SCORE

সর্বশেষ

আরও প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রত্যাশা করেছিলেন বেলিম

বৃহস্পতিবার রাতে পর্দা উঠেছে ফিফা বিশ্বকাপ ২০১৮-র। বরাবরের মত এবারও ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনায় মাতাল পুরো ক্রীড়া বিশ্ব। আর এর রেশ ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশকেও।

বৃহস্পতিবার রাতে পর্দা উঠেছে ফিফা বিশ্বকাপ ২০১৮-র। বরাবরের মত এবারও ফুটবল বিশ্বকাপের উন্মাদনায় মাতাল পুরো ক্রীড়া বিশ্ব। আর এর রেশ ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশকেও। ১৪ মে বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায় বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয় আয়োজক দেশ রাশিয়া এবং এশিয়ার পরাশক্তি সৌদি আরব। একপেশে ম্যাচে স্বাগতিকদের কাছে সৌদি আরব পাত্তাই পায়নি। ৯০ মিনিটের রোমাঞ্চকর খেলায় ৫-০ গোলে হেরে মাঠ ছেড়ে আসতে হয় সৌদি আরবকে। রাশিয়ার ফুটবলারদের পা থেকে আসা পাঁচ-পাঁচটি গোল দর্শকদের আনন্দ দিতে পেরেছে ঠিকই। তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার অভাব ছিল স্পষ্ট। আর এ কারণেই ফিফা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ দেখে হতাশ বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার জাভেদ ওমর বেলিম। ম্যাচ শেষে বিডিক্রিকটাইমের সাথে আলাপকালে বেলিম জানান এই ম্যাচ নিয়ে তার হতাশার কথা। এ সময় তার কণ্ঠে ফুটে ওঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে হতাশার কথাও, যা ছিল এতো বড় আসরের তুলনায় বেমানান। বেলিম বলেন, ‘আমি হতাশ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পাশাপাশি প্রথম ম্যাচ বেশ জম্পেশ হবে ভেবেছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।’ তবে শেষ মিনিট পর্যন্ত স্বাগতিক রাশিয়ার আক্রমণাত্মক ফুটবল নজর কেড়েছে বেলিমের। তিনি বলেন, ‘তবে রাশিয়া যেভাবে নার্ভ ধরে ৫ গোলের বড় ব্যবধানে জিতে ম্যাচ শেষ করলো তা প্রশংসার দাবীদার।’ ম্যাচের ১২ মিনিটেই গোল করে স্বাগতিক দর্শকদের আনন্দে ভাসান ইউরি গাজিনস্কি। বদলি খেলোয়াড় হিসেবে নেমে ৪৩ মিনিটে দলের পক্ষে দ্বিতীয় গোল করেন দেনিস চেরিশেভ। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে রাশিয়া। ম্যাচের ৭১ মিনিটে আরেক বদলি খেলোয়াড় আরতিয়ম জিউবা দলকে এনে দেন উদযাপনের তৃতীয় উপলক্ষ্য। চেরিশেভ নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোল করে বসেন ম্যাচের ৯১ মিনিটে তথা ইনজুরি টাইমে। ৯৪ ও ম্যাচের শেষ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত গোল করে দলকে আবারও আনন্দে ভাসান আলেক্সান্দর গোলোভিন।
রাশিয়া ও সৌদি আরবের মধ্যকার ম্যাচের একটি দৃশ্য। ছবিঃ রয়টার্স

১৪ মে বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায় বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয় আয়োজক দেশ রাশিয়া এবং এশিয়ার পরাশক্তি সৌদি আরব। একপেশে ম্যাচে স্বাগতিকদের কাছে সৌদি আরব পাত্তাই পায়নি। ৯০ মিনিটের রোমাঞ্চকর খেলায় ৫-০ গোলে হেরে মাঠ ছেড়ে আসতে হয় সৌদি আরবকে।

রাশিয়ার ফুটবলারদের পা থেকে আসা পাঁচ-পাঁচটি গোল দর্শকদের আনন্দ দিতে পেরেছে ঠিকই। তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার অভাব ছিল স্পষ্ট। আর এ কারণেই ফিফা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ দেখে হতাশ বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার জাভেদ ওমর বেলিম।

Also Read - লঙ্কান বোর্ডে যুক্ত হচ্ছেন মুরালি-সাঙ্গা-মাহেলারা?

ম্যাচ শেষে বিডিক্রিকটাইমের সাথে আলাপকালে বেলিম জানান এই ম্যাচ নিয়ে তার হতাশার কথা। এ সময় তার কণ্ঠে ফুটে ওঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে হতাশার কথাও, যা ছিল এতো বড় আসরের তুলনায় বেমানান।

বেলিম বলেন, আমি কিছুটা হতাশউদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পাশাপাশি প্রথম ম্যাচ বেশ জম্পেশ হবে ভেবেছিলামকিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি

তবে শেষ মিনিট পর্যন্ত স্বাগতিক রাশিয়ার আক্রমণাত্মক ফুটবল নজর কেড়েছে বেলিমের। তিনি বলেন, তবে রাশিয়া যেভাবে নার্ভ ধরে ৫ গোলের বড় ব্যবধানে জিতে ম্যাচ শেষ করলো তা প্রশংসার দাবীদার

ম্যাচের ১২ মিনিটেই গোল করে স্বাগতিক দর্শকদের আনন্দে ভাসান ইউরি গাজিনস্কি। বদলি খেলোয়াড় হিসেবে নেমে ৪৩ মিনিটে দলের পক্ষে দ্বিতীয় গোল করেন দেনিস চেরিশেভ। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে রাশিয়া। ম্যাচের ৭১ মিনিটে আরেক বদলি খেলোয়াড় আরতিয়ম জিউবা দলকে এনে দেন উদযাপনের তৃতীয় উপলক্ষ্য। চেরিশেভ নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোল করে বসেন ম্যাচের ৯১ মিনিটে তথা ইনজুরি টাইমে। ৯৪ ও ম্যাচের শেষ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত গোল করে দলকে আবারও আনন্দে ভাসান আলেক্সান্দর গোলোভিন।

আরও পড়ুনঃ মুদ্রার ওপিঠও দেখলেন রশিদ খান

Related Articles

যেখানে অনন্য জাভেদ ওমর বেলিম!

‘টি-টোয়েন্টিতে ২০ রানের হার বড় ব্যবধান’

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ঈদ আনন্দে বিডিক্রিকটাইম

প্যারা অলিম্পিকের জন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু প্রতিবন্ধী ক্রিকেটারদের