SCORE

সর্বশেষ

কঠিন সময়ের চ্যালেঞ্জ সহজভাবেই নিচ্ছেন নতুন কোচ

স্টিভ রোডস এমন একটা সময় বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নিলেন, অপ্রত্যাশিত কিছু ফলাফলে দল যখন সমালোচনার তীরে বিদ্ধ। তবে সে যা-ই হোক, দীর্ঘ আট মাস পর বাংলাদেশ দল প্রধান কোচের দেখা পেয়েছে, এটিই আপাতত দেশের ক্রিকেটের জন্য সুসংবাদ!

স্টিভ রোডস। ছবি: গেটি ইমেজেস
স্টিভ রোডস। ছবি: গেটি ইমেজেস

সেই সুসংবাদ হয়ে আসা রোডসের এটিই প্রথম কোনো জাতীয় দলের দায়িত্ব নেওয়া। সেই দায়িত্ব নিয়ে রোডস বেশ ইতিবাচক। এমনকি তার ভবিষ্যৎ কাজকেও দেখছেন সহজ করে।

মূলত ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে কোচের ভূমিকায় দায়িত্ব পালন করলেও রোডস বিভিন্ন সময়ে দেখভাল করেছেন ইংল্যান্ড জাতীয় দলেরও। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘নানা সময়ে ইংল্যান্ড দলের প্রস্তুতির অংশ হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে আমার। ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বাংলাদেশ সফরে প্রস্তুতিতেও ছিলাম। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কোচিংয়ের স্বাদ তাই কিছুটা পেয়েছি।

Also Read - বিশ্বকাপের ফাইনালে দৃষ্টি রোডসের

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ও ঘরোয়া ক্রিকেটের কোচিংয়ের মাঝে খুব বেশি ফারাক খুঁজে পান না রোডস। তবে জাতীয় দলের ক্ষেত্রে কাজটুকু যে সহজ নয়, জানেন সেটিও। সেই ‘কঠিন’ কিংবা অপেক্ষাকৃত কম সহজ কাজ করতে প্রস্তুত রোডস, কোচিংয়ে আসলে খুব বেশি পার্থক্য নেই, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কাজ যদিও বেশি। ছেলেদের খেলার জন্য প্রস্তুত করা সহজ নয়। তবে আমি মনে করি আমি এখন যোগ্য।’

৫৩ বছর বয়সী ইংলিশ কোচের মাথাভর্তি পাকা চুল। এ নিয়ে করলেন রসিকতাও, যার মাঝে ছিল তার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার ইঙ্গিত, ‘আমার চুল পাকা দেখতে পাচ্ছেন, যেটি বুঝিয়ে দিচ্ছে অনেক কঠিন সময় পেরিয়ে এসেছি। আশা করি আমার অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের জন্য সত্যিকার অর্থেই কাজে লাগবে।

রোডসকে বাংলাদেশের কোচ করার ক্ষেত্রে মাধ্যম হয়ে কাজ করেছেন যে গ্যারি কারস্টেন, সেই বিশ্বকাপজয়ী কোচ প্রস্তাব দিয়েছিলেন ভিন্ন ফরম্যাটে ভিন্ন কোচ নিয়োগের জন্য। শেষপর্যন্ত সব দায়িত্ব একাই কাঁধে নিয়েছেন রোডস। আর এই গুরুদায়িত্ব পালনের সামর্থ্যও তার আছে, জানালেন এমনটাই। সংবাদ সম্মেলনে রোডস বলেন, আমি এটাকে বড় সমস্যা মনে করি না। আমি জানি, গ্যারি শুরুতে এমনটা ভেবেছিলেন। তবে অনেক কোচই সব ফরম্যাটে দায়িত্ব পালন করেন। আমি খুব পরিশ্রমী একজন মানুষ। তাই তিন ফরম্যাট কভার করার মতো যথেষ্ট এনার্জি আমার আছে।

আরও পড়ুনঃ মুশফিকের কাঠগড়ায় ভেন্যুর ‘নতুনত্ব’

Related Articles

হাথুরুসিংহের মতোই ‘স্বাধীন’ রোডস

তবু রোডসকে ‘চূড়ান্ত’ বলতে নারাজ বোর্ড প্রধান

বৃহস্পতিবার ঢাকা আসছেন স্টিভ রোডস

অভিজ্ঞ ও ইংলিশ বলেই এগিয়ে রোডস

হাথুরুসিংহের উত্তরসূরি হচ্ছেন স্টিভ রোডস!