SCORE

সর্বশেষ

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে লড়বে বাংলাদেশ

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে নিয়েছে আফগানিস্তান। টানা দুই ম্যাচ হেরে তৃতীয় ম্যাচ এখন যেন আনুষ্ঠানিকতা। বাংলাদেশের জন্য অর্জনের কিছুই নেই। শেষ সর্বনাশ হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর চ্যালেঞ্জ নিয়ে নামবে সাকিবরা।

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান মুশফিক
ছবি: আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

টানা দুই ম্যাচেই আফগানিস্তানের কাছে পাত্তা পায়নি বাংলাদেশ। র‍্যাঙ্কিংয়ে আটে থাকা আফগানিস্তান সিরিজ নিশ্চিত করে বাড়িয়ে নিয়েছে বাংলাদেশের সাথে রেটিং পয়েন্টের ব্যবধানটাও। কেন বাংলাদেশের এমন ভরাডুবি তা নিয়ে চলছে বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের ময়নাতদন্ত। অন্যদিকে উৎসবের নগরী হয়ে উঠেছে কাবুল-কান্দাহার।

প্রথম টি-টোয়েন্টির ব্যাটিং ব্যর্থতার পুনরাবৃত্তি ঘটেছে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে। প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও প্রথম দশ ওভার পর্যন্ত লড়াই করেছে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। শেষ দশ ওভারে বোলিং আক্রমণে আনা হয় লেগ স্পিনার রশিদ খানকে। দুই ম্যাচেই একাই গুড়িয়ে দেন বাংলাদেশকে। তার একটি জাদুকরী ওভারই যেন খোলনলচে বদলে দেয় ম্যাচের পরিস্থিতি। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে প্রথম দশ ওভারে ৩ উইকেটে ৮১ রান নিয়েও ১৩৪ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ।

Also Read - তবু রোডসকে 'চূড়ান্ত' বলতে নারাজ বোর্ড প্রধান

মিডল অর্ডারের ব্যাটসম্যানরাও ব্যর্থতার খাতা লম্বা করছেন। এখনো কেউ করতে পারেনি অর্ধশতক। দুই ম্যাচেই বড় জুটির অভাব বেশ ভালোই অভাব অনুভব করেছে বাংলাদেশ। বোলিংয়ে হঠাৎ হঠাৎ খেই হারিয়েছেন বোলাররা। তিন বিভাগেই আফগানদের কাছে উড়ে গিয়েছে বাংলাদেশ।

আফগানিস্তান বাংলাদেশের চেয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে। টি-টোয়েন্টিতে তারা শক্তিশালী। রয়েছে দুর্দান্ত বোলিং আক্রমণ। তবুও দুই ম্যাচ হেরে যাওয়াটা মানা যেন একটু কষ্টসাধ্যই। অন্তত হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানো উচিত বাংলাদেশের।

অন্যদিকে প্রথম দুই ম্যাচে জিতে তৃতীয় ম্যাচে নির্ভার আফগানিস্তান। দুর্দান্ত পারফরম্যান্স অব্যহত থাকলে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশের আশা করতেই পারে তারা। তাহলে প্রথমবারের মতো কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশকে হোয়াইটওয়াশ করার কীর্তি গড়বে আফগানরা।

সম্ভাব্য একাদশ :

আফগানিস্তান : উসমান গনি, আহমেদ শাহজাদ, নাজিবুল্লাহ জাদরান, আসগর স্টানিকজাই (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নবি, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি, শফিকুল্লাহ, রশিদ খান, করিম জানাত, শাপুর জাদরান ও মুজিব উর রহমান।

বাংলাদেশ : তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, আরিফুল হক, আবু হায়দার রনি, রুবেল হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু।

আরও পড়ুনঃ তবু রোডসকে ‘চূড়ান্ত’ বলতে নারাজ বোর্ড প্রধান

Related Articles

এশিয়া জয়ের পর লক্ষ্য এবার বিশ্বকাপ!

“খেলায় আপস অ্যান্ড ডাউনস থাকবেই”

বিদ্রোহ ভাঙলেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা

আফসোসের আগুনে পুড়ছেন আরিফুল

স্কটিশদের বিপক্ষে পাকিস্তানের ৪৮ রানের জয়