Scores

অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে হতে পারে শ্রীলঙ্কা সফর

বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে কম জলঘোলা হচ্ছে না। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান জানালেন, আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে জানা যাবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত। ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসলে অক্টোবরের ৭ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে উড়াল দিতে পারে ক্রিকেটাররা।

অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে হতে পারে শ্রীলঙ্কা সফর

শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে ক্রিকেটারদের নিয়ে এক সপ্তাহের অনুশীলন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু নির্ধারি সময়ের সফর না হওয়ায় তা দুই সপ্তাহে গড়িয়েছে। এখন খেলোয়াড়দের তিন দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যেই সিরিজের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

Also Read - ধোনি-মুরালিদের গ্লুকোজ খেয়ে ব্যাটিংয়ে নামতে বললেন শেবাগ


আকরাম বলেন, ‘কোচ, নির্বাচক, প্রধান নির্বাহির সাথে আলাপ আলোচনা করেছি আজ। তিন দিনের বিরতি দিয়েছি আমরা। হয়তো আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে শ্রীলঙ্কা সফরের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত পাবো। যেহেতু আমাদের সফর পিছিয়ে যাচ্ছে, তাই আমাদের হাতে এখন কিছুদিন সময় আছে।’

তিনি আরও বলেন,শ্রীলঙ্কা থেকে সর্বশেষ বলেছে যে এটা ওদের হাতে নেই, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার। গতকাল (শুক্রবার) ওরা আশা করেছিল মন্ত্রণালয় কোনো খবর দিবে। কিন্তু সেটা পাওয়া যায়নি। আশা করছি আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে আমাদেরকে ওরা জানতে পারবে। ওরা চাচ্ছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব গাইডলাইন সব ঠিক করে ফেলতে। সোমবার বা মঙ্গলবারে হয়তো আবার কিছু জানাবে।’

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট ও বিসিবির মতের মিল যদি এবার হয়ে যায় তাহলে আর বেশি দেরি করতে হবে না ক্রিকেটারদের। অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহেই সাগড়পাড়ের দেশটিতে উড়াল দিতে পারেন তামিম-মুশফিকরা।

আকরাম খানের ভাষায়, ‘আমাদের এই সফরটা শুরু হলে তারপর আমরা পরবর্তী পরিকল্পনা করব। এই সফরটাও গুরুত্বপূর্ণ। যদি ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসে তাহলে আগামী মাসের ৭ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে আমরা যেতে পারি। যেহেতু ওদের শ্রীলঙ্কায় টি-টোয়েন্টি হওয়ার কথা ছিল কিন্তু এখন হচ্ছে না তাই আমাদের হাতে সময় আছে।’

গুঞ্জন ছিল, শ্রীলঙ্কার শর্ত না মানলে বাংলাদেশের সফরটি করার দরকার নেই- এমন কথা বলেছে শ্রীলঙ্কা। তবে আকরাম বললেন, এমন কোনো তথ্য তারা পাননি,

‘আমাদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ধরনের কোনো তথ্য আসেনি। বাইরে কী হচ্ছে না হচ্ছে এটা নিয়ে আমরা কিছু করতে পারব না। ব্যাপারটা হলো, আমাদেরও সময় আছে, ওদেরও আছে। ওরা বারবার অনুরোধ করছে আমরা কিছুদিনের মধ্যে জানাব। এমন না যে ওরা চাচ্ছে না আর আমরা জোর করছি। আমরা ওভাবে যেতে চাইলে ওদের শর্ত মেনেই চলে যেতাম।’

ক্রিকেটারদের ভালো থাকার জোর দিতে গিয়েই এত আলাপ-আলোচনা হচ্ছে বলেও জানান আকরাম, ‘কিন্তু আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার ক্রিকেটারদের ভালো থাকাটা। ওরা যেন মানসিকভাবে ভালো থাকে। ওদের থেকে সেরা পারফর্মটা যেন আমরা পাই। ভালো পারফর্মের জন্য যা যা দরকার তাই আমরা করব। যদি সফর না হয় তখন আমরা ঘরোয়া একটা টুর্নামেন্ট করব।’

Related Articles

ফিটনেস পরীক্ষায় পাশ করে খেলতে হবে টি-টোয়েন্টি কাপ

বাংলাদেশকে না পেয়ে আর্থারের আক্ষেপ

সাকিব ছন্দে ফিরতে সময় নেবে না : নান্নু

কোহলি-স্টোকসদের পথে আফিফ-আকবরদের হাঁটাতে চান র‍্যাডফোর্ড

লাইভে আসছেন সাকিব, উত্তর দিবেন ১০ জন কমেন্টকারীর