Scores

‘অচেনা’ দলকে চেনাতে এবারো ত্রাতার ভূমিকায় শ্রীনি

তিনি একজন কম্পিউটার প্রকৌশলী, কিন্তু থিতু হয়েছেন ক্রিকেটে। ভারতীয় নাগরিক শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখরন দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ দলের কোচিং প্যানেলে যুক্ত। কম্পিউটার বিশ্লেষকের ভূমিকায় প্রতিপক্ষের অবস্থান বিশ্লেষণে তার জুড়ি নেই। ক্যারিবীয় সিরিজকে সামনে রেখে টাইগারদের সামনে ত্রাতার ভূমিকায় সেই শ্রীনি।

'অচেনা' দলকে চেনাতে এবারো ত্রাতার ভূমিকায় শ্রীনি

মূলত পারফরম্যান্স অ্যানালিস্ট, তবে নিজ দলের খেলোয়াড়দের চেয়ে প্রতিপক্ষের শক্তি-সামর্থ্য-দুর্বলতা নিয়েই এবার বেশি ঘাটতে হয়েছে শ্রীনিকে। বাংলাদেশ সফররত ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দল এসেছে আনকোরা একটি দল নিয়ে। দলের অনেক ক্রিকেটারই অচেনা। শ্রীনি ঘেঁটে ঘেঁটে ক্যারিবিয়ান ঘরোয়া ক্রিকেটে তাদের পারফরম্যান্স, স্কিল, ভিডিও বের করে এনেছেন। আর তা দিয়েই বাংলাদেশ দল প্রতিপক্ষকে সামলানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

Also Read - এখনো সাকিবের সঙ্গী খুঁজছেন ডমিঙ্গো

শ্রীনিবাসকে কৃতিত্ব দিয়ে জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেন, ‘শ্রীনি আমাদের জন্য দারুণ কিছু কাজ করেছে। ঘরোয়া একদিনের টুর্নামেন্ট এবং সিপিএল ঘেঁটে সে কিছু ফুটেজ বের করেছে। খেলোয়াড়দের কিছু ভিডিও ক্লিপ জোগাড় করেছে। আমরা তাদের সব খেলোয়াড়কে মোটামুটি দেখতে পেরেছি।’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা না থাকলেও নতুন খেলোয়াড়দের খাটো করে দেখতে নারাজ ডমিঙ্গো। শ্রীনির অখ্যাত খেলোয়াড়দের নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটিও সেই কারণেই। হারানোর যখন কিছু নেই, তখন অর্জনের পাল্লাই ভারি হতে পারে! ডমিঙ্গো বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তারা অনভিজ্ঞ হলেও সিপিএল ও ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছে, ভালো রেকর্ড আছে ওদের। তাদের খাটো করে দেখতে পারি না। এটা কঠিন চ্যালেঞ্জ হবে। এই তরুণরা নিজেদের প্রমাণ করার সুযোগ পাচ্ছে। দলে জায়গা পোক্ত করতে তারা নিজেদের নিংড়ে দেবে।’

ডমিঙ্গো আরও বলেন, ‘তারা অনেক অনুপ্রাণিত হয়ে আছে (দলে ডাক পেয়ে)। প্রথম বল থেকেই আমাদের নিজেদের সেরাটা দিতে হবে। জমজমাট লড়াই হবে। তারা খেলার জন্য প্রস্তুত। আমাদের আত্মতৃপ্তির সুযোগ নেই।’

 

Related Articles

৯ বছর পরে এডওয়ার্ডস ও ২ বছর পরে গেইল ফিরলেন

জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পিএসএল ছাড়লেন গেইল

মালিঙ্গার অনুপস্থিতিতে নতুন অধিনায়কের অধীনে শ্রীলঙ্কা

মার্চে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশকে শৃঙ্খলার গুরুত্ব বোঝালেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক