অতি আত্মবিশ্বাসী মন্তব্য করে ‘হাসির পাত্র’ হার্দিক

0
3569

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে আত্মবিশ্বাস নিয়ে হার্দিক পান্ডিয়া বলেছিলেন তাদের দলটি দ্বিতীয় সারির দল না। তিনি দাবি করেছিলেন, ভারত এরকম আরও দুইটি (মোট চারটি) স্কোয়াড গড়তে পারবে যারা যেকোনো টুর্নামেন্ট জিততে পারবে। কিন্তু এক সপ্তাহের ভেতরেই কঠিন বাস্তবতা দেখতে পেলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার।

অতি আত্মবিশ্বাসী মন্তব্য করে 'হাসির পাত্র' হার্দিক
হার্দিক পান্ডিয়া

হার্দিক বলেছিলেন, ‘দলে আমাদের কার কী ভূমিকা আছে সেটা আমরা পরিষ্কারভাবেই জানি। মূল দলেও এই একই ব্যাপার। আমাদের দলে এখন অনেক প্রতিভাবান ক্রিকেটার, ভারত এখন তৃতীয় কিংবা চতুর্থ দলও বানাতে পারবে। আমার বিশ্বাস, ভারতের তৃতীয় কিংবা চতুর্থ দলেরও যেকোনো টুর্নামেন্ট জেতার সামর্থ্য আছে।’

Advertisment

করোনাভাইরাসের থাবায় দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচের আগেই শ্রীলঙ্কা সফররত স্কোয়াডের মূল খেলোয়াড়দের হারায় ভারত। সিরিজের পরবর্তী দুইটি ম্যাচে অভিষেক হয়েছে ভারতের ৫ জন ক্রিকেটারের। একাদশে নিতে হয়েছে একজন নেট বোলারকেও। তবে আইপিএল খেলা সব ক্রিকেটাররা বর্তমান লঙ্কান দলের ক্রিকেটারদের চেয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অভিজ্ঞ বেশি। তবুও পারেননি ভারত। দুই ম্যাচের বাজে পারফর্ম করে সিরিজ হেরেছে শিখর ধাওয়ানের দল।

ভারতের এই করুণ পরিণতির পরে নিজের অতি আত্মবিশ্বাসী মন্তব্যের জন্য হার্দিককে নিয়ে হাস্যরস করছেন ক্রিকেট সমর্থকরা। বেশির ভাগ পাকিস্তানি সমর্থকদেরই এই হাস্যরস করতে দেখা যাচ্ছে। তবে সেই তালিকায় ভারতীয়রাও আছেন। কেউ কেউ আবার বলছেন, ভারত তাদেরকে ইংল্যান্ডের মতো শক্তিশালী প্রমাণ করার ব্যর্থ চেষ্টা করেছে।

সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কা কষ্টার্জিত জয় পেলেও তৃতীয় ম্যাচে তারা হেসেখেলেই জিতেছে। ভারতের বিপক্ষে ১৩ বছর পর দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জিতল লঙ্কানরা। অপরদিকে ৮টি টি-টোয়েন্টি সিরিজ অপরাজিত থাকার পরে হারের মুখ দেখল ভারত। হার্দিকের মন্তব্যের পরেই এসব ঘটনা ঘটায় তামাশার পাত্র হয়ে গেলেন এই ক্রিকেটার।

একনজরে