অধিনায়কত্বের প্রস্তাব পেয়েও ফিরিয়ে দিয়েছেন রশিদ

আফগানিস্তান জাতীয় দলকে একসময় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রশিদ খান। ‘মিউজিক্যাল চেয়ারে’র মত বদলাতে থাকা অধিনায়কত্ব তার হাতে বেশিদিন থাকেনি। তবে নতুন করে আবারও তাকে অধিনায়ক হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। রশিদ সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন।

আমি একজন পরিপূর্ণ অলরাউন্ডার হতে চাই রশিদ

Advertisment

সম্প্রতি আসগর আফগানকে আফগানিস্তান জাতীয় দলের তিন ফরম্যাটের নেতৃত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। টি-টোয়েন্টির অধিনায়কের দায়িত্ব সামলানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল রশিদকে। কিন্তু রশিদ সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন। অগত্যা তাকে সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব দিয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)।

সাবেক অধিনায়ককে সহ-অধিনায়ক হতে দেখে ভ্রু কুঁচকেছিলেন অনেকেই। তবে রশিদ নিজেই জানালেন, ইচ্ছা করেই তিনি নেতৃত্ব নেননি।

ক্রিক্ত বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএনক্রিকইনফোকে রশিদ বলেন, ‘নিজের সম্পর্কে আমার স্বচ্ছ ধারণা রয়েছে যে, আমি খেলোয়াড় হিসেবেই যথাযথ। সহ-অধিনায়কের ভূমিকায় থেকে কাজ চালানো যায়। যখন প্রয়োজন পড়বে, অধিনায়ককে সাহায্য করতে পাবর। তবে নেতৃত্ব থেকে দূরে সরে থাকাই ভালো।’

জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দিতে সবাই যেখানে মুখিয়ে থাকেন, সেখানে রশিদের অনাগ্রহের যৌক্তিক কারণ আছে। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা লেগ স্পিনার পূর্ণ মনোযোগ রাখতে চান তার পারফরম্যান্সেই। আর তাই অধিনায়কত্বের চাপ মাথায় নেওয়ার জন্য প্রস্তুত নন বলে মনে করছেন।

রশিদ বলেন, ‘আমি খেলোয়াড় হিসেবে দলের জন্য ভালো পারফরম্যান্স করতে চাই। অধিনায়ক হিসেবে অন্যান্য বিষয় নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করার চেয়ে খেলোয়াড় হিসেবে আমার পারফরম্যান্স দলকে বেশি সাহায্য করতে পারে বলে আমার বিশ্বাস। আমি ভয় পাই, অধিনায়কত্ব আমার খেলায় প্রভাব ফেলতে পারে। সুতরাং আমি খেলোয়াড় হিসেবেই দলে থাকতে পছন্দ করব। বোর্ড ও নির্বাচকরা যা সিদ্ধান্ত নেবেন, তাতে আমার সমর্থন থাকবে।’