Scores

অনূর্ধ্ব উনিশের সেরা দশ ব্যাটসম্যান, কোথায় এখন তারা?

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দলের হয়ে সাফল্য পাওয়ার পরও অনেক খেলোয়াড় জাতীয় দলে আসতে পারেননি বা আসতে পারলেও অনূর্ধ্ব ১৯ লেভেলের মতো সাফল্য পেতে পারেননি। কেউ কেউ আবার এর ব্যতিক্রম, অনূর্ধ্ব ১৯ এর মতো জাতীয় দলেও যথেষ্ট সাফল্য পেয়েছেন।

অনূর্ধ্ব উনিশের সেরা দশ ব্যাটসম্যান, কোথায় এখন তারা?

অনূর্ধ্ব ১৯ লেভেলে বাংলাদেশ দলের হয়ে কমপক্ষে ৫০০ রান করা ব্যাটসম্যানদের মাঝে গড়ের দিকে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন লিটন দাশ। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যান ধরা হয় তাকে, রেকর্ডও তাই বলে। ৪৭ গড়ে লিটনের রান ৫৬৪।

Also Read - অবসর নিয়ে প্রশ্ন করায় মেজাজ হারালেন হাফিজ!


অনূর্ধ্ব ১৯ এর পর জাতীয় দলেরও নিয়মিত সদস্য লিটন। ৪৪ গড় নিয়ে ২য় স্থানে রয়েছেন বর্তমান অনূর্ধ্ব ১৯ দলের সদস্য মাহমুদুল হাসান জয়। ৩৯ গড় নিয়ে ৩য় ও ৪র্থ স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও সাদমান ইসলাম। দুইজনেরই জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ হয়েছে। সৈকত ওয়ানডেতে ও সাদমান টেস্টে এখন দলের নিয়মিত সদস্য।

অনূর্ধ্ব উনিশের সেরা দশ ব্যাটসম্যান, কোথায় এখন তারা?

৩৭ গড় নিয়ে ৫ম স্থানে রয়েছেন নাজমুল হাসান শান্ত। জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পেলেও অনূর্ধ্ব ১৯ এর মতো কিছু করে দেখাতে পারেননি শান্ত। ৩৭ গড় নিয়েই ৬ষ্ঠ স্থানে রয়েছেন বর্তমান অনূর্ধ্ব ১৯ দলের আরেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় তৌহিদ হৃদয়।

৭ম স্থানে রয়েছেন এনামুল হক বিজয়, তার গড় ৩৬। তবে জাতীয় দলে শুরুটা ভালো করলেও ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি বিজয়। জাতীয় দলে আশা যাওয়ার মাঝেই রয়েছেন তিনি।

অনূর্ধ্ব উনিশের সেরা দশ ব্যাটসম্যান, কোথায় এখন তারা?
ছবি : তামিম ইকবাল ২০০৫ সালে। ডেইলি স্টার

৮ম স্থানে রয়েছেন সাকিব আল হাসান, তার গড় ৩৬। অনূর্ধ্ব ১৯ এর তুলনায় অনেক বেশি সফল হয়েছেন জাতীয় দলে দেশের সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। যেই প্রতিভার ছাপ অনূর্ধ্ব ১৯ এ দেখিয়েছিলেন তা যে ভুল ছিলো না সেটা প্রমাণ করেছেন সাকিব। তার বন্ধু ও দেশের সবচাইতে সফল ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল আছেন সাকিবের পরই ৯ম স্থানে। অনূর্ধ্ব ১৯ এ তার গড় ছিলো ৩২। ১০ম স্থানে রয়েছেন টেস্ট দলের নিয়মিত সদস্য মমিনুল হক, তার গড় ৩১।

অনূর্ধ্ব ১৯ ইতিহাসে বাংলাদেশ দলের সবচাইতে সফল দশ ব্যাটসম্যানের মাঝে শুধুমাত্র তৌহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল হাসান জয় ছাড়া সকলেই জাতীয় দলে কোন না কোন সময় খেলেছেন, সকলেই গত এক বছরে কোন না কোন ফরম্যাটে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়িয়েছেন। এদের মাঝে তামিম ইকবাল , সাকিব আল হাসান ও মমিনুল হকরা উল্লেখযোগ্য সাফল্য পেয়েছেন জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। লিটন দাশ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের মতো খেলোয়াড়েরাও জানান দিয়েছেন তাদের প্রতিভার। নতুন টেস্ট দলে আসা সাদমান ইসলাম আভাস দিয়েছেন তামিমের যোগ্য সঙ্গী হওয়ার।

ইতিহাস বলে সেরা দশের সকলেই জাতীয় দলের হয়ে নিজেকে প্রমান করার সুযোগ পেয়েছেন বর্তমান অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ২ জন ছাড়া। তৌহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল হাসান জয়দের কাছেও সকলের প্রত্যাশা এই তালিকার বাকি ৮ জনের মতো ভবিষ্যতে জাতীয় দলে জায়গা করে নিজেদের অনূর্ধ্ব ১৯ এর প্রতিভার প্রমান যেনো তারা করতে পারে।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে ইতিহাস গড়ার দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ

বিদেশি কোচের খোঁজ পেলেন যুবারা

সোমবার থেকে যুবাদের ক্যাম্প

সাইফ হাসানের কাছে সবার আগে দেশ

যুব এশিয়া কাপের দল ঘোষণা