Scores

“অনেকেই ভয়ে নামাজের টুপি খুলে ফেলে”

মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন- এমনটিই মনে করেন বাংলাদেশ দলের বাঁহাতি ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। গত শুল্রবার (১৫ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদের সন্ত্রাসী হামলা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যাওয়া বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা নিরাপদে দেশে ফিরলেও এখনও মানসিক ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারছেন না।

“মৃত্যুকে নিজের চোখে দেখেছি” tamim

প্রায় ৫০ জনের প্রাণহানির ঘটনার চাক্ষুষ সাক্ষী হওয়ার পর আপাতত ক্রিকেট থেকে দূরে রয়েছেন টাইগাররা। এর ফাঁকে জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএনক্রিকইনফোকে ঐ হামলার ব্যাপারে নিজের অনুভূতি জানিয়েছেন তামিম ইকবাল, যে সংবাদমাধ্যমের বাংলাদেশ প্রতিনিধি তামিমদের উদ্ধার করতে রেখেছিলেন বড় ভূমিকা।

Also Read - পিএসএলের ফাইনাল দেখতে করাচিতে কার্লোস পুয়োল


তামিম বলেন, ‘মৃত্যুকে নিজের চোখে দেখেছি। শরীর ঠান্ডা হয়ে আসছিল। এটা এমন কিছু যা আমরা সারা জীবনে ভুলতে পারব না।’

দেশে ফিরলেও তাই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের রেশ ভুলতে পারেননি তারা, ‘দলের সবারই এই এক কথা। সবার মুখে কিছুটা হাসি ফিরেছে ঠিকই কিন্তু ভেতরে-ভেতরে বিধ্বস্ত।’– বলেন তামিম।

সন্ত্রাসীর লক্ষ্য মুসলিমরা- এটি বুঝতে পেরে নামাজের টুপি খুলে ফেলেন। তামিম বলেন, ‘যখন আরও লাশ দেখলাম, বুঝতে পারছিলাম না ঠিক কী করা উচিত। অনেকেই ভয়ে মাথা থেকে নামাজের টুপি খুলে ফেলল। মানে বুঝতে পারছিলাম কিছু একটা ঘটছে। যারা পাঞ্জাবি পরে ছিল, ওপরে জ্যাকেট পরে নিল। এ ছাড়া আর কী করার আছে!’

শুধু তা-ই নয়, জীবন বাঁচাতে বাসের মেঝেতে শুয়ে পড়ান তারা। বাসে যতক্ষণ ছিলেন ততক্ষণ দেখা পাননি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কারও।

তামিম বলেন, ‘এরপর আমরা বাসের মেঝেতে শুয়ে পড়ি। এভাবে সাত-আট মিনিট কাটল। ঠিক কী ঘটছে তা বুঝতে পারছিলাম না তবে সহিংস কিছু যে ঘটছে, তা টের পেয়েছি। ভীষণ ভয় পেতে শুরু করি। দেখুন, ঠিকমতো কথা বলতে পারছি না। আমরা বাসচালককে বললাম, এখান থেকে বের করুন। কিছু একটা করুন। কিন্তু তিনি অনড়। সবাই চিৎকার করে তাঁকে বললাম। আমিও চিৎকার করেছি। ওই ছয়-সাত মিনিট কোনো পুলিশ ছিল না।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

তামিম-মুশফিকদের মৃত্যুপুরী থেকে ফেরার এক বছর

হামলার মুখে বাংলাদেশ, ভারত পাবে কড়া নিরাপত্তা

ক্রাইস্টচার্চের সেই মসজিদেই বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের নামাজ আদায়

“যখন স্বাভাবিক জীবনে ফেরার চেষ্টা করছি, তখনই অগ্নিকান্ড”

নিউজিল্যান্ডকে নিরাপদ ভাববে বাংলাদেশ, বিশ্বাস দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রীর