SCORE

সর্বশেষ

অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হতেও প্রস্তুত সুজন

জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের অপ্রত্যাশিত বিদায়ের পর স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে- কে হবেন সাকিব-মাশরাফিদের পরবর্তী কোচ? বিসিবির পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী এক-দুই মাস দলের কোচ হবেন স্থানীয় কেউ এবং তিনি দায়িত্ব পালন করবেন অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে।

সেক্ষেত্রে বিসিবির প্রথম পছন্দ সাবেক ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন। কিন্তু সুজন আগেই জানিয়েছিলেন, তার ইচ্ছা স্থায়ীভাবে জাতীয় দলের মূল কোচ হবেন। সম্প্রতি কয়েকটি সাক্ষাৎকারেও সুজন বলেছিলেন, কোচ হলে স্থায়ীভাবেই কাজ করতে চান তিনি। তবে কি অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হতে আপত্তি রয়েছে সুজনের?

Also Read - স্যামির দৃষ্টিতে পরাজয় ক্যাচ মিসেরই খেসারত

আদতে মোটেও তেমনটি নয়। শনিবার ঢাকা ডায়নামাইটস ও রাজশাহী কিংসের মধ্যকার ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ঢাকার কোচ বলেন, ‘অন্তর্বর্তীকালীন কোচের ব্যাপারটা তো বোর্ডের সিদ্ধান্ত। বোর্ডের ব্যাপারটা বলি, প্রথমত লক্ষ্য বিদেশি কোচ আনা, তার জন্য কাজও শুরু হয়েছে। কথা বলা হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়। যদি এমন কিছু হয় যে, প্রয়োজনে আমার কাজ করতে হবে।’

সুজন বলেন, ‘আমি তো বাংলাদেশের জন্য অনেক প্রয়োজনে অনেক কাজই করেছি অনেক সময়। আবার করতে হলে আমি খুশি মনেই করবো। কারণ, এটা আমার প্যাশন আর কোচ হিসেবেও আমার এখন অনেক অভিজ্ঞতা হয়েছে।’

বিপিএলের চলমান আসরে ওপেনিং জুটি নিয়ে বেশ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে ঢাকা ডায়নামাইটসের টিম ম্যানেজমেন্ট। এভিন লুইসের সাথে এখন পর্যন্ত ব্যাটিং উদ্বোধন করতে নেমেছেন মেহেদী মারুফ, কুমার সাঙ্গাকারা, শহীদ আফ্রিদি ও সুনীল নারাইন। তবে সুজন জানান, এটা আসলে কোনো পরীক্ষা নয়, দলের পরিকল্পনাই- ‘এটা কোনো পরীক্ষা নয়, আমাদের দলীয় পরিকল্পনা। আমরা চাই প্রথম ছয় ওভার কাজে লাগাতে। আফ্রিদি যেহেতু একজন বিগ হিটার তাই শুরুতেই আমরা তাকে নামিয়েছি।’

উল্লেখ্য, সপ্তাহ-দুয়েক আগে বাংলাদেশের কোচের পদ থেকে হুট করেই পদত্যাগ করেন শ্রীলঙ্কান চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। যদিও বিসিবির সাথে তার চুক্তি ছিল ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত।

আরও পড়ুনঃ মাইলফলক স্পর্শ করলেন কায়েস

Related Articles

‘আমি তো চাই ওদের ১০ বছর নিষিদ্ধ করতে’

ক্রিকেটের স্বার্থে জেলা লিগে মনোযোগ বিসিবির

এবার দলের সঙ্গে থাকছেন না সুজন

মানসিকভাবে পিছিয়ে বাংলাদেশ!

মুস্তাফিজকে কারণ দর্শানোর নোটিশ