Scores

‘অন্য দলগুলোর বাংলাদেশকে ভয় করা উচিত’

২০২৩ বিশ্বকাপের এখনো বেশ দেরি আছে। কিন্তু তার জন্য ঠিকই দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা সাজাতে শুরু করেছে দলগুলো। এরমধ্যে আবার করোনাভাইরাসের হানায় ভেস্তেও গিয়েছে ক্রিকেটের সূচি। কিন্তু সাকিব আল হাসান মনে করেন বিশ্বকাপের আগেই সব গুছিয়ে নিবে বাংলাদেশ এবং সেই সময় টাইগারদেরকে অন্য দলগুলোর ভয় করা উচিত হবে।

করোনা শনাক্তের কিট দিচ্ছেন সাকিব

সাকিব এখন আছেন যুক্তরাষ্ট্রে। কিছুদিন আগে তার ঘর আলো করে এসেছে দ্বিতীয় কন্যা সন্তান। দুই মেয়েকে নিয়ে ভালো সময় কাটাচ্ছেন সাকিব। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গভীর রাতে ‘ডয়চে ভেলে’-এর সরাসরি অনুষ্ঠানে এসে ব্যক্তিগত ও ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা করেন তিনি।

Also Read - ফেরার পর অধিনায়কত্ব নিয়ে সাকিবের ভাবনা






২০১৯ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফর্ম করেন সাকিব। বিশ্বকাপের আগে এইজন্য অনেক পরিশ্রমও করেছিলেন তিনি। বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর শেষ হওয়ার পর থেকেই ২০২৩ বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। পরবর্তী বিশ্বকাপ নিয়ে আগেও প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছেন সাকিব। সুযোগ পেলে সেটা নিয়েও চিন্তাভাবনা আছে তার।

আগামী বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভালো সুযোগ দেখছেন সাকিব। সর্বশেষ বিশ্বকাপেও দল ভালো করবে বলে তার বিশ্বাস ছিল। কিন্তু তিনি ব্যক্তিগতভাবে ভালো পারফর্ম করলেও তাকে সঙ্গ দিতে ব্যর্থ হয়েছেন অন্যরা।





সাকিব বলেন, ‘আমার মনে হয় আমাদের ভালো করার সুযোগ আছে। আমি মনে-প্রাণে এবারও (২০১৯ বিশ্বকাপ) বিশ্বাস করেছিলাম আমরা ভালো কিছু করব। আমরা খুব কাছাকাছি ছিলাম, হয়ত ছোটখাটো দুই-একটা কারণে আমরা আমাদের পুরো পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারিনি।’

আগামী বিশ্বকাপের এখনো তিন বছর বাকি আছে। সাকিব মনে করেন এই সময়ে বাংলাদেশ দলটা আরও ভারসাম্যপূর্ণ হবে। আর এশিয়ার মাটিতে খেলা হওয়ায় বাংলাদেশের জন্য অতিরিক্ত সুবিধা থাকবে। তখনকার বাংলাদেশ দলকে অন্যদের ভয় করা উচিত বলে মন্তব্য করেন এই অলরাউন্ডার।

সাকিবের ভাষায়, ‘কিন্তু ২০২৩ বিশ্বকাপে হয়তো সেটা পরিবর্তন করতে পারব এবং লক্ষ্যটা পূরণ করতে পারব। যেহেতু এশিয়াতে খেলা, তখন আমাদেরকেই অন্য দলগুলোর ভয় করা উচিত হবে বলে মনে করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘যে যেভাবে আমাদের ক্রিকেট বর্তমানে আছে, হয়তো করোনাভাইরাস না থাকলে এই বছরই আরও ভালো পর্যায়ে চলে আসতো। এখন আরও কিছুদিন সময় লাগবে কিন্তু বিশ্বকাপের আগে আমরা একটা ভারসাম্যপূর্ণ দল গঠন করতে পারব। আমাদের কাছে এখনো প্রায় ৩ বছর সময় আছে।’

 

উল্লেখ্য, ২০২৩ বিশ্বকাপ এককভাবে আয়োজন করবে বাংলাদেশের প্রতিবেশি রাষ্ট্র ভারত।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ইংল্যান্ড পেল ২০ পয়েন্ট, আয়ারল্যান্ড ১০

বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার ভয়ে মাঠ ছাড়তে চাননি বিজয়

আইসিসিকে ভারতের পাল্টা হুমকি

বিশ্বকাপ থেকে বাদ: মাশরাফির কাছে ‘শাপেবর’

২০২৩ বিশ্বকাপের দল নিয়ে সাকিবের চাওয়া