Scores

অবসরের কারণ জানিয়ে বোমা ফাটালেন ডি ভিলিয়ার্স

দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সফল ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স হঠাৎ করেই অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ফর্মের তুঙ্গে থাকা এই ব্যাটসম্যানের ৩৪ বছর বয়সেই অবসরের ঘোষণা যেন বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো হয়ে এসেছিল সমর্থকদের জন্য। এবার অবসর নেয়ার কারণ জানিয়ে আরও আলোচনার জন্ম দিলেন তিনি।

এবি ডি ভিলিয়ার্স

জাতীয় দল থেকে অবসর নিলেও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল), ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল), পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল), বিগ ব্যাশ লিগের (বিবিএল) মতো ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টগুলোতে ঠিকই তার ব্যাটিং কারিশ্মা দেখার সুযোগ পাচ্ছেন সমর্থকরা। তবে ফিট থাকার পরেও কেন জাতীয় দল থেকে তার এমন প্রস্থান সেই কারণ জানিয়েছেন এই প্রোটিয়া ক্রিকেটার।

Also Read - বিশ্বকাপের জন্য ফিট কেদার যাদব


 

মাত্র ৩৪ বছরে অবসর নেয়ার বিষয়ে ভিলিয়ার্স প্রথমে মজার ছলে বলেন, ‘২০২৩ বিশ্বকাপের সময় আমার বয়স কত হবে? ৩৯! ধোনি যদি এখনও খেলতে পারে তাহলে আমিও আবার ফিরে আসতে পারি।’ অবশ্য তিনি এই কথাটি মজা করেই বলেছেন বলেই জানিয়েও দিয়েছেন। জাতীয় দলের হয়ে ফেরার আর কোনো সম্ভাবনাও নেই বলে জানিয়েছেন।

২০১৯ বিশ্বকাপে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং শৈলী উপভোগ করতে না পারার আক্ষেপ থাকবে ভক্ত-সমর্থকদের। আক্ষেপ কি ভিলিয়ার্সেরও হবে না! অবশ্য কিছুদিন আগেই তিনি বলেছিলেন জাতীয় দল অবসর নেয়ায় এখন কোনো আফসোস নেই তার। তবে ২০১৯ বিশ্বকাপে যে খেলার যে প্রবল ইচ্ছা এই দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটারেরও ছিল সেটাও তিনি গোপন রাখেননি।

কিন্তু তার আগেই হঠাৎ অবসরের কারণে তিনি বলেন তার ওপরে সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া হচ্ছিল। এমনকি কখন, কীভাবে তিনি খেলবেন সেটাও অন্য কেউ ঠিক করে দিচ্ছিল। নিজের ওপরে এমন চাপিয়ে দেয়া সিদ্ধান্ত মেনে নিতে না পেরেই অবসরের ঘোষণা দিয়েছন তিনি। অবশ্য তার ওপরে কে এমন নজরদারী করতো সেই বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলেননি ভিলিয়ার্স।

থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি খ্যাত এই ব্যাটসম্যানের ভাষ্যমতে, ‘আমি নিজেও ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলতে আগ্রহী ছিলাম। কিন্তু আমি অবসর নিয়েছি। আমি খুব ঠাণ্ডা মাথায় এ সিদ্ধান্তটি নিয়েছি। আমার ক্যারিয়ারের শেষ তিন বছর পরিস্থিতি এমন ছিলো যে, আমি কখন খেলবো আর কখন খেলবো না তা অন্য কেউ ঠিক করে দিচ্ছিলো। এছাড়া দেশে ফিরলেই কারণে-অকারণে সমালোচনার শিকার হচ্ছিলাম। এটাও অবসরের অন্যতম কারণ।’

অবসরের আগে ১৯১ টেস্ট ইনিংসে ৮৭৬৫ রান, ২২৮ ওয়ানডের ২১৮ ইনিংসে ৯৫৭৭ ও ৭৮ টি-টোয়েন্টির ৭৫ ইনিংসে ১৬৭২ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করলেও তার নামের পাশে আছে ৯টি উইকেট।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

এমসিসির পক্ষ থেকে ডি ভিলিয়ার্সকে বিশেষ সম্মাননা

ডি ভিলিয়ার্সের চোখে আমলাই সেরা

ডি ভিলিয়ার্সকে যুবরাজ-কোহলির আবেগঘন বার্তা

বিশ্বকাপে খেলা প্রসঙ্গে বোমা ফাটালেন ডি ভিলিয়ার্স!

বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের থেকে আইপিএল ফাইনাল বড়!