অবসর ভাঙা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা আমিরের

২০১৯ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেন মোহাম্মদ আমির। তার সেই সিদ্ধান্ত মোটেও পছন্দ হয়নি পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্টের। এর জেরে সীমিত ওভারের দলেও আমিরের গুরুত্ব কমে যায়। যার ধারাবাহিকতায় আমিরকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের মত সিদ্ধান্ত নিতে হয়।

অবসর ভাঙা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা আমিরের2
মোহাম্মদ আমির। ফাইল ছবি

সেই আমির আবারও ফিরেছেন লাল বলের ক্রিকেটে। চলমান কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে গ্লস্টারশায়ারের হয়ে তিনটি ম্যাচ খেলবেন আমির। এতে অনেকেই মনে করছেন, আমির হয়ত টেস্টে ফেরার ভাবনা পুষে রেখেছেন।

Advertisment

তবে আমিরের দাবি, টেস্টে ফেরার ব্যাপারে এখনও কোনো ভাবনা নেই তার। এমনকি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অবসর ভাঙার বিষয়েও কোনো মন্তব্য করতে নারাজ তিনি।

আমির বলেন, ‘টেস্টে ফেরার বিষয়ে কিছু এখন বলতে গেলে তাড়াহুড়া হয়ে যাবে। ভবিষ্যতে কী হবে কেউই তা জানে না। সব কিছুই বদলে যেতে পারে। আপাতত আমি গ্লস্টারশায়ারের হয়ে খেলাটা উপভোগ করছি।’

অবসর ভাঙা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা আমিরের
মোহাম্মদ আমির। ফাইল ছবি

২০১০ সালের স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির পর দীর্ঘ সাজা ভোগ শেষে ২০১৬ সালে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে ফেরেন আমির। এরপর প্রতাপের সাথেই খেলছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। যদিও মিসবাহ-ওয়াকার জাতীয় দলের কোচিং প্যানেলে নিযুক্ত হওয়ার পর ব্রাত্য হয়ে পড়েন তিনি। একপর্যায়ে সবাইকে অবাক করে দিয়ে অবসরের ঘোষণা দেন ২০২০ সালের ডিসেম্বরে।

এরপর আমির জানিয়েছিলেন, মিসবাহ-ওয়াকাররা সরে গেলে ফিরবেন জাতীয় দলে, তবে তা হয়নি। রমিজ রাজার সাথে আমিরের দ্বন্দ্ব নিয়ে ফিসফাস শোনা গেছে একাধিকবার। আমির অবশ্য এ-ও জানিয়েছেন, রমিজ সরে গেলে তিনি অবসর ভাঙবেন এর কোনো নিশ্চয়তা নেই।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।