অভিষেকে কনকাশন, ইয়াসির একা নন

অভিষেক রাঙানোর ইচ্ছা কার না থাকে। কত আশা, স্বপ্ন আর প্রতিশ্রুতি খেলা করে ক্রিকেটারদের অভিষেককে ঘিরে। বিশেষত ফরম্যাটটা যখন টেস্ট, তখন বাড়তি রোমাঞ্চ থাকাই স্বাভাবিক।

অভিষেকে কনকাশন, ইয়াসির একা নন
ইয়াসিরের আগে কাসুজা ও সলোজানোও অভিষেকে মাথায় আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন। ফাইল ছবি

তবে সেই রোমাঞ্চ বিষাদে রূপ নেয়, যখন চোটের কারণে ম্যাচ থেকে ছিটকে যেতে হয়। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষেক হয়েছিল ইয়াসির আলী চৌধুরীর। তবে প্রতিভাবান এই ব্যাটারকে মাঠ ছাড়তে হয়েছে মাথায় আঘাত পেয়ে।

Advertisment

কনকাশনের কারণে শেষমেশ আর খেলা চালিয়ে যেতে পারেননি, ম্যাচ থেকেই ছিটকে পড়েছেন। অভিষেকে এমন দুর্ভাগ্য বরণ করে নেওয়া ক্রিকেটার অবশ্য ইয়াসির একা নন। টেস্টে ইয়াসিরের মত অভিষেকে কনকাশন হয়েছিল আরও দুই ক্রিকেটারের। অর্থাৎ, এই তালিকায় ইয়াসির তৃতীয়।

প্রথমবার এই তিক্ত স্বাদ পেয়েছিলেন জিম্বাবুয়ের কেভিন কাসুজা, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারারে টেস্টে। একই ম্যাচে দুইবার আঘাত পাওয়ার পর কাবু হয়ে পড়েন তিনি। দ্বিতীয়বার এই অভিজ্ঞতা হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেরেমি সলোজানোর, চলতি মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। তার এই আঘাত বেশ শঙ্কা জাগিয়েছিল ক্রিকেট বিশ্বে। তৃতীয়বার মাথায় আঘাত পেয়ে অভিষেকে ছিটকে পড়ার ঘটনা ঘটল ইয়াসিরের সাথে।

বাংলাদেশের কনকাশন সাবস্টিটিউট নিতে হয়েছে এ নিয়ে ৪ বার। ২০১৯ সালে ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে লিটন দাস ও নাঈম হাসান এবং এ বছর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডেতে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন মাথায় আঘাত পেয়ে ম্যাচ চলাকালীন ছিটকে পড়েন।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনের চ্যাটে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime Crickey সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।