SCORE

সর্বশেষ

অভিষেক টেস্টে ফলো-অনে আফগানিস্তান

বেঙ্গালুরুতে স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ফলো-অনে পড়েছে সফরকারী আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। নিজেদের অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে ভারতের করা ৪৭৪ রানের জবাবে মাত্র ১০৯ রানে গুঁটিয়ে গেলে ফলো-অনে পড়ে আফগানরা। অতঃপর এ সিরিজে ভারতের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করা আজিঙ্কা রাহানেও সিদ্ধান্ত নেন আফগানিস্তানকে ফলো-অনে ব্যাট করানোর।

অভিষেক টেস্টে ফলো-অনে আফগানিস্তান

এর ফলে ৩৬৫ রানের বিশাল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে আবারও ব্যাট করতে নামবে আফগানরা।

Also Read - ব্যাটিং বিপর্যয়ে আফগানিস্তান

প্রথম দিনের ৬ উইকেটে করা ৩৪৭ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে ভারত। হার্দিক পান্ডিয়ার ৭১, রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ১৮, রবীন্দ্র জাদেজার ২০ ও শেষ দিকে উমেশ যাদবের অপরাজিত ২৬ রানের ঝড়ো ইনিংসে চড়ে স্কোরবোর্ডে আরও ১২৭ রান যোগ করে প্রথম ইনিংসে ৪৭৪ রানে অল-আউট হয় স্বাগতিকরা।

আফগান বোলারদের মধ্যে ইয়ামিন ৫১ রান খরচ করে সবচেয়ে বেশি ৩ উইকেট শিকার করেন। তার পাশাপাশি ওয়াফাদার ও রশিদ প্রত্যেকে ২টি করে উইকেট নেন। তাছাড়া মুজিব উর রহমান ও নবী নিজেদের ঝুলিতে নেন ১টি করে উইকেট।

ভারতের প্রথম ইনিংসে করা ৪৭৪ রানের জবাবে এরপর নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেই বিপাকে পড়ে সফরকারীরা। মোহাম্মদ শাহজাদ দারুণ শুরু করা স্বত্বেও বিপর্যয়ের সূত্রপাত ঘটে তাকে দিয়েই। পান্ডিয়ার থ্রোতে রান-আউটে শাহজাদ ব্যক্তিগত ১৪ ও দলীয় ১৫ রানে সাজঘরে ফেরার পর ম্যাচে শুরু হয় ভারতীয় বোলারদের আধিপত্য বিস্তার।

ইশান্ত শর্মা, উমেশ যাদবদের গতির সাথে বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ে পরাস্ত হয়ে একে-একে সাজঘরে ফিরেন জাবেদ আহমেদি (১), রহমত শাহ (১৪), আফসার জাজাই ৬)। এই চার ব্যাটসম্যানের কেউই নিজেদের স্কোরকে দুই অংকের ঘরে নিয়ে যেতে পারেননি। এরপর কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা চালালেও ১১ রান করে অশ্বিনের স্পিনে কাটা পড়ে সাজঘরে ফিরেন স্টানিকজাই। আর আফগানিস্তান নিজেদের পঞ্চম উইকেট হারিয়ে বসে দলীয় ৫০ রানের মাথায়।

স্টানিকজাইকে ফেরানোর পর আরও ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেন অশ্বিন। তার বোলিং তোপে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দলটি। দলের প্রয়োজনের সময় অশ্বিনের ঘূর্ণিতে ব্যর্থ হয়ে সাজঘরের পথে হাঁটেন রশিদরা। এক প্রান্ত থেকে উইকেট হারাতে থাকলেও আরেক প্রান্ত আগলে রেখে ব্যাট করতে থাকেন নবী।

তবে শেষ রক্ষা করতে পারেননি। অশ্বিনের ফাঁদে পা দিয়ে ২৪ রান করে দলীয় ৮৮ রানের সময় আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। আর এতে শেষ হয়ে যায় দলেরও শেষ আশা। শেষ উইকেট জুটিতে মুজিবের মারকুটে ১৫ রানে ১০০ রানের ঘরে প্রবেশ করলেও ১০৯ রানের বেশি করতে সক্ষম হয়নি দলটি।

স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে অশ্বিন সর্বোচ্চ ৪টি, ইশান্ত ও জাদেজা দুটি করে উইকেট নেন। তাছাড়া যাদব নিজের ঝুলিতে নেন একটি উইকেট।

লাইভ স্কোরকার্ড-

আরও পড়ুনঃ লঙ্কান বোর্ডে যুক্ত হচ্ছেন মুরালি-সাঙ্গা-মাহেলারা?

Related Articles

পান্ডিয়ার গতিতে বিধ্বস্ত ইংল্যান্ড

সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা জনসনের

কোহলি-রাহানের ব্যাটে ভারতের লড়াই

কারানের জায়গায় খেলবেন স্টোকস

আফগানিস্তান সিরিজের জন্য আয়ারল্যান্ড স্কোয়াড ঘোষণা