অল্পের জন্য হামলা থেকে বাঁচলেন শানাকার পরিবার

ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কার একাধিক গির্জা ও হোটেলে হামলার হাত থেকে অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের ক্রিকেটার দাসুন শানাকা। যে তিনটি গির্জায় হামলা চালান হয় তার একটিতে তিনি যাওয়ার কথা ছিল।

অল্পের জন্য হামলা থেকে বাঁচলেন শানাকার পরিবার -
প্রার্থনার জন্য এই গির্জাই ব্যবহার করে থাকেন শানাকার পরিবারের সদস্যরা।

হামলার শিকার সেন্ট সেবাস্তিয়ান চার্চ শানাকার নিজ শহর নিগম্বোতেই অবস্থিত। রবিবার (২১ এপ্রিল) সকালে মা ও দাদীকে নিয়ে তার ঐ চার্চে যাওয়ার কথা ছিল।

তবে রাতে ১৭০ কিলোমিটার পথ ভ্রমণের ক্লান্তির কারণে শেষমেশ চার্চে যাওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন শানাকা। তবে তার মা ও দাদী ঐ চার্চেই ছিলেন, যারা সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে যান।

শানাকার ভাষ্য, ‘সাধারণত আমি চার্চে যাই। কিন্তু সেদিন আমাকে অনুরাধাপুরাতে যেতে হয়েছিল, তাই ক্লান্ত ছিলাম।’

সেন্ট সেবাস্তিয়ান চার্চে হামলার পর শানাকা ঘটনাস্থলে ছুটে যান সাথে সাথেই। তিনি বলেন, ‘সকালে আমি বাসায় ছিলাম। আমি একটা শব্দ শুনি, মানুষ বলছিল চার্চে বোমা হামলা হয়েছে। আমি দৌড়ে সেখানে যাই। দৃশ্যটা কখনও ভুলব না… পুরো চার্চ ধ্বংসস্তূপ হয়ে গেছে, অনেকের দেহ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে আছে, প্রাণহীন দেহগুলো টেনে বাইরে বের করছেন লোকজন।’

Also Read - ওয়াসিম জাফরের পরামর্শ কাজে লাগানোর প্রত্যাশা


শানাকা বেঁচে গেলেও তিনি শঙ্কায় পড়েছিলেন- তার মা ও দাদীর কিছু হল কি না। তিনি জানান, হামলাস্থলে মাকে খুঁজে পেয়েই নিরাপদে সরিয়ে নেন। এরপর জানতে পারেন, তার দাদী চার্চের ভেতরেই বসে ছিলেন। অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার শঙ্কায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েন শানাকা। যদিও একটু পরই দাদীকে জীবিত অবস্থায় খুঁজে পান। যদিও তার শরীরেও হামলার জখম ছিল।

শানাকা বলেন, ‘মা জানালার কাছে ছিলেন। কাছের একটা পার্টিশনের কারণে তার গায়ে ওই বিস্ফোরণের তেমন কিছু লাগেনি। তার ছোট একটু আঘাত লেগেছে। অথচ তার পাশের অনেকেই মারা গেছেন। যখন আমি দাদীকে খুঁজে পাই, আমি ভাবিনি তিনি জীবিত থাকবেন। তবে সেটা হয়েছে। বিস্ফোরণে তার পাশের সবাই মারা গেছেন, অন্যদের শরীরের কারণে তার বড় ক্ষতি হয়নি। মাথায় আঘাতে কিছুটা মাংস উঠে গেছে। তবে আমরা তাকে সার্জারির জন্য হাসপাতালে নিতে পেরেছি।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন